নিউ ইয়র্কে মোদী-হাসিনা বৈঠকে উঠে এল এনআরসি প্রসঙ্গ

0

ওয়েবডেস্ক: ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনীর বৈঠকে উঠে এল ভারতের বহুচর্চিত নাগরিকপঞ্জী বা এনআরসি প্রসঙ্গ। রাষ্ট্রসঙ্ঘের ৭৪তম সাধারণ সভার ফাঁকে ওই বৈঠক আয়োজিত হয় গত শুক্রবার।

গত শুক্রবার রাষ্ট্রপুঞ্জের সাধারণ সভায় বক্তব্য রাখেন মোদী। ওই দিনই লোত্তে নিউ ইয়র্ক প্যালেস হোটেলে মুখোমুখি হন মোদী-হাসিনা।

ওই বৈঠকের পর বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন বলেন, বৈঠকটি ছিল আন্তরিকতায় ভরপুর এবং খুবই বন্ধুত্বপূর্ণ পরিবেশে। তিনি বলেন, ওই বৈঠকে দু’দেশের মধ্যে তিস্তা-সহ অন্যান্য নদীর জলবণ্টন এবং এনআরসি প্রসঙ্গেও আলোচনা হয়। এ ছাড়া আরও বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ দ্বিপাক্ষিক বিষয়ও উঠে আসে আলোচনার তালিকায়।

মোদীর কাছে এনআরসি নিয়ে হাসিনা বলেন, বাংলাদেশের সামনে এনআরসি নিয়ে গভীর উদ্বেগের সৃষ্টি হয়েছে।

প্রত্যুত্তরে মোদী তাঁকে বলেন, ভারত-বাংলাদেশের সুসম্পর্কের কথা মাথায় রেখেই এনআরসি অথবা জলবণ্টনের মতো বিষয়গুলি নিয়ে ইতিবাচক পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

মোদীর কথায়, “এনআরসি ও জলবণ্টনের মতো ইস্যুগুলোকে আমরা সহজভাবে নিতে পারি। কারণ বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে চমৎকার সম্পর্ক রয়েছে”।

ডেইলি স্টারের রিপোর্ট অনুযায়ী, হাসিনার উদ্বেগের অবসান ঘটাতে মোদী বলেন, সরকারি কর্মকর্তারা সমস্যার সমাধানের চেষ্টা করছেন। এটা নিয়ে বাংলাদেশের চিন্তিত হওয়ার কোনো কারণ নেই।

[ আরও পড়ুন: বাংলায় এনআরসি-আতঙ্ক! কে ‘গুজব’ ছড়াচ্ছে আর কে ‘শান্ত’ থাকার পরামর্শ দিচ্ছে? ]

ওই বৈঠকে বাংলাদেশের তরফে উপস্থিত ছিলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মহম্মদ ফারুক খান, পররাষ্ট্র সচিব শহিদুল হক এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.