বাংলাদেশের বহুল প্রতীক্ষিত অহংকার ‘পদ্মা সেতু’র যাত্রা শুরু

0
padma setu
'পদ্মা সেতু' উদ্বোধন করছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রাজীব অরণ্য: ঢাকা

বহুল প্রতীক্ষিত ‘পদ্মা সেতু’র যাত্রা শুরু হল। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেতু উদ্বোধন করার পর খুলে গেল দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১টি জেলা ও ঢাকা-সহ দেশের অপরাপর অংশের জন্য সংযোগ এবং সম্ভাবনার অনন্ত দুয়ার।

এই সেতুকে বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি বলে বর্ণানা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, “‘পদ্মা সেতু’ শুধু একটি সেতুই নয়, এটা আমাদের সক্ষমতা, আমাদের আবেগ। আমাদের সক্ষমতা-মর্যাদার প্রতীক। এটা বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি। ‘পদ্মা সেতু’র জন্য আমি গর্ববোধ করি।”

শনিবার সকালে ‘পদ্মা সেতু’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে সেতুর মুন্সিগঞ্জ প্রান্তে বিশাল জনসমাবেশে আবেগময় বক্তব্য রাখেন শেখ হাসিনা।

বক্তৃতায় শেখ হাসিনা আরও বলেন, “‘পদ্মা সেতু’ শুধু একটি সেতু নয়, এই সেতু শুধু যে দুই পাড়ের মানুষের মধ্যে বন্ধন সৃষ্টি করেছে তা-ই নয়, এই সেতু ইট-বালি-সিমেন্ট-স্টিল-লোহা কংক্রিটের অবকাঠামো নয়, এই সেতু আমাদের অহংকার, এই সেতু আমাদের গর্ব, এই সেতু আমাদের সক্ষমতা ও মর্যাদার প্রতীক।”

‘পদ্মা সেতু’কে বিশ্বে এক ‘আশ্চর্য সৃষ্টি’ বলে মন্তব্য করে শেখ হাসিনা বলেন, “‘পদ্মা সেতু’ আমাদের মর্যাদা-সক্ষমতার শক্তি। যে সেতু আমরা নির্মাণ করেছি, সেটি বিশ্বের শ্রেষ্ঠ প্রযুক্তিতে তৈরি।”

এর আগে ঢাকা থেকে হেলিকপ্টারে মাওয়া সমাবেশস্থলে এসে পৌঁছোন শেখ হাসিনা। মাওয়া প্রান্তে সুধী সমাবেশে ভাষণ-শেষে তিনি উদ্বোধনী ফলক, স্মারক ডাকটিকিট এবং ১০০ টাকার স্মারকমুদ্রা উন্মোচন করেন।

মাদারীপুরের সমাবেশে যোগ দিতে মানুষ চলেছে দলে দলে।

প্রধানমন্ত্রী মাওয়া প্রান্তে সেতুর উদ্বোধন করে টোল দিয়ে গাড়িতে সেতু পেরিয়ে যান অপর প্রান্তে মাদারীপুরে। সেখানে ফলক উন্মোচনের পর বেলা ১২টায় সমাবেশে যোগ দেন। যেখানে অন্তত ১০ লক্ষ মানুষের সমাগমের কথা আগে থেকেই জানিয়েছিলেন আয়োজকেরা। তবে শরীয়তপুর প্রান্তে ভোর থেকেই মানুষের ঢল নামে। দক্ষিণের নানা প্রান্তের মানুষ এসে জড়ো হন সেখানে। নানা রঙের টি-শার্ট পরে নেচে গেয়ে সমাবেশে যোগ দিতে আসে মানুষ।

শেখ হাসিনা বলেন, “ইতিহাসের এক বিশেষ সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে আমরা”। এই সেতু নির্মাণের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সব কর্মকর্তা-কর্মচারী, দেশি-বিদেশি বিশেষজ্ঞ পরামর্শক, ঠিকাদার, প্রকৌশলী, প্রযুক্তিবিদ, শ্রমিক, নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত সেনাবাহিনীর সদস্যসহ সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান। ধন্যবাদ জানান ‘পদ্মা সেতু’র দুই প্রান্তের অধিবাসীদের যাদের জমিজমা ও বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তাদের এই ত্যাগ ও সহযোগিতা জাতি চিরদিন স্মরণ রাখবে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

আরও পড়তে পারেন

একনাথ শিন্ডে: এক সময় ছিলেন অটো চালক, এখন মহারাষ্ট্রের রাজনীতির রাশ তাঁরই হাতে

বৈঠকে ডাকেননি মমতা-পওয়ার, রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে এনডিএ প্রার্থীকে সমর্থন মায়াবতীর

মল্লিকবাজারে হাসপাতালের ৮ তলার কার্নিশে প্রায় দেড় ঘণ্টা, ধাক্কা খেতে খেতে মাটিতে পড়লেন রোগী

২৬/১১ হামলায় জড়িত লস্কর জঙ্গির ১৫ বছরের জেল হল পাকিস্তানে

ঝাড়খণ্ডে ঘূর্ণাবর্ত, বৃষ্টি কিছুটা বাড়ল দক্ষিণবঙ্গে

মহিলাদের গর্ভপাতের সাংবিধানিক অধিকার কেড়ে নিল মার্কিন সুপ্রিম কোর্ট, হতাশ জো বাইডেন

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন