Connect with us

বাংলাদেশ

রাত পোহালেই ঈদ, মহাসড়কে সুদীর্ঘ যানজটে আটকা পড়েছেন হাজারো ঘরমুখো মানুষ

পারাপারের অপেক্ষায় বৃহস্পতিবার রাত থেকেই শ শ যাত্রীবোঝাই যান ঘাটে অপেক্ষায় রয়েছে। শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত দীর্ঘ ২০ কিলোমিটার যানজটের সৃষ্টি হয়।

ঋদি হক: ঢাকা

বাংলাদেশে ভোগান্তির ঈদযাত্রা দেখে বিভিন্ন দেশের মানুষ অবাক হন। উৎসবকে ঘিরে যে কোনো পরিস্থিতিতে হার-না-মানা যাত্রায় শামিল হন মানুষ। এ সময় রাত-দিন ২৪ ঘণ্টা মানুষের চলাচল। ঈদের সপ্তাহখানেক আগে থেকেই রাস্তার স্বাভাবিক পরিস্থিতি পালটে যায়। ঘরমুখো মানুষের পদচারণায় সারাক্ষণ মুখরিত থাকে বাস, ট্রেন এবং লঞ্চ টার্মিনাল। অভ্যন্তরীণ উড়ানের টিকিট তো দিন পনেরো আগেই হাওয়া হয়ে যায়। ঝড়বৃষ্টি-সহ কোনো প্রতিকূল আবহাওয়াই থামিয়ে রাখতে পারে না ঘরমুখো মানুষের আনন্দযাত্রা। হাজারো কষ্টকে হাসিমুখে মেনে নেওয়ার কৌশলটা কী? আসলে ভোগান্তির ঈদযাত্রায় গন্তব্যে পৌঁছোনোর পর সকল ক্লান্তি ধুয়েমুছে যায়।

আরও পড়ুন: করোনা মহামারি ও বন্যাকে সঙ্গী করেই ঈদ উদযাপনের প্রস্তুতি বাংলাদেশে

কিন্তু এ বারের চিত্র আলাদা। গত রমজানের ঈদে (Ramzan Eid) লকডাউন চলছিল। গণপরিবহণ বন্ধ থাকা সত্ত্বেও বিকল্প ব্যবস্থায় যে হারে মানুষ গ্রামে গিয়েছিল তা চোখে না দেখলে বিশ্বাস করা যায় না। রমজান ঈদের পর থেকেই করোনার (coronavirus) সংক্রমণ বেড়ে যায়। এমন পরিস্থিতি যে হবে, তা অবশ্য আগেই বলেছিলেন বিশেষজ্ঞরা। এ বারেও সেই আশঙ্কা উড়িয়ে দিচ্ছেন না সমাজ-স্বাস্থ্য বিজ্ঞানীরা।

বাংলাদেশের টেলিভিশনগুলোয় অনুষ্ঠিত টকশোতে পরিষ্কার বলা হচ্ছে, গোরুর হাটে, রাস্তায়, লঞ্চে স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে না। দূরপাল্লার যাত্রীরা স্বাস্থ্যবিধির তোয়াক্কা করছেন না। এর পরিণতি কী হতে পারে, তা পরিষ্কার। কারণ, শহর থেকে গ্রামে গিয়ে ঈদ শেষে শহরে ফিরে আসা। এই আসাযাওয়া এবং মেলামেশার ভয়ংকর পরিণতি হচ্ছে নতুন নতুন জায়গায় সংক্রমণ ছড়িয়ে যাওয়ার আশঙ্কা।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার সাবেক ব্যক্তিগত চিকিৎসক ও জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ডা. লেনিন চৌধুরী (Dr. Lenin Chowdhury) বলেছেন, কৃষকদের মধ্যে করোনার সংক্রমণ খুবই কম ছিল। এ বারে দেশের প্রত্যন্ত এলাকার কৃষক ও ব্যবসায়ীরা গোরু নিয়ে রাজধানীর বিভিন্ন কোরবানির হাটে (qurbani hat) এসেছেন। তাঁরা গোরু বিক্রি করতে দুই থেকে তিন দিন হাটেই থেকেছেন। স্বাস্থ্যবিধির বিষয়ে তাঁদের অজ্ঞতা লক্ষ করা গেছে। এ সব গোরু-ব্যবসায়ীরা এলাকায় ফিরে যাওয়ার পর নতুন করে সংক্রমণ যে বাড়বে না, তার গ্যারান্টি কে দেবে? এই গোরু-ব্যবসায়ীরা করোনা সংক্রমণের উৎস। 

রাত পোহালেই কোরবানির ঈদ (Qurbani Eid) । শিকড়ের টানে মানবস্রোত মহাসড়কে। বাসের ছাদে, পিকআপ গাড়িতে, প্রাইভেট কারে জনস্রোত। গোরু বিক্রি শেষে খালি ট্রাকে চড়ে মানুষ ফিরছে। দক্ষিণ ও উত্তরাঞ্চলের রুটে সকাল থেকেই যানজট দীর্ঘ হতে থাকে। মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ফেরিঘাটে (Paturia Ferry ghat) ২০ কিলোমিটার যানজট। গত দু’ দিন যাবত এই ঘাটে যানবাহন পারাপারে হিমশিম খাচ্ছে ফেরি কর্তৃপক্ষ। 

জানা গেছে, এই নৌরুটে ফেরি স্বল্পতার পাশাপাশি প্রমত্তা পদ্মার স্রোতের কারণে ফেরি পারাপারে দেরি হচ্ছে। ফলে উভয় তীরে যানজট তীব্র হচ্ছে। পারাপারের অপেক্ষায় বৃহস্পতিবার রাত থেকেই শ শ যাত্রীবোঝাই যান ঘাটে অপেক্ষায় রয়েছে। শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত দীর্ঘ ২০ কিলোমিটার যানজটের সৃষ্টি হয়। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন ঘরমুখো মানুষ। বিশেষ করে নারী ও শিশুদের অবস্থা খুবই খারাপ।

স্থানীয় সাংবাদিকরা জানিয়েছেন, পাটুরিয়া থেকে ঢাকা মহাসড়ক (Dhaka Mahasarak) পর্যন্ত প্রায় ১০ কিলোমিটার যানজট। পাশাপাশি উথলীর মোড় থেকে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের বোয়ালী পর্যন্ত তিন কিলোমিটার ট্রাকের এবং পাটুরিয়া নবগ্রাম সড়কে প্রাইভেট কারের প্রায় ৫ কিলোমিটার যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। এ সব যানবাহন কখন পদ্মা পেরোনোর সুযোগ পাবেন, তা বলা যাচ্ছে না।

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দেশ

বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক দিন দিন আরও দৃঢ় হবে, বললেন ভারতীয় হাইকমিশনার

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের অভূতপূর্ব উন্নয়ন এবং নারীর ক্ষমতায়নের ভূয়সী প্রশংসা করেন ভারতীয় হাইকমিশনার।

ঋদি হক: ঢাকা

বাংলাদেশ-ভারতের সম্পর্ক পরীক্ষিত। এই সম্পর্ক দিন দিন আরও দৃঢ় হবে। এই আশাই ব্যক্ত করেছেন বাংলাদেশে ভারতীয় হাইকমিশনার (Indian High Commissioner) রিভা গাঙ্গুলি দাশ (Riva Ganguly Das) ।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হকের সঙ্গে বিদায়ী সাক্ষাৎকালে হাইকমিশনার বলেন, দু’ দেশের সম্পর্কে অবনতি ঘটাতে কেউ কেউ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে বিভ্রান্তিকর প্রচারণা চালিয়েছে। কিন্তু বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক (Indo-Bangla Relation) এতটা হালকা নয়। গত কয়েক বছরে দু’ দেশের মধ্যে অনেক কাজ হয়েছে। ছিটমহল সমস্যা মিটেছে, সমুদ্রসীমানা বিরোধের সমাধান হয়েছে। দু’ দেশ উন্নয়নের অংশীদার হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের (Bangladesh) অভূতপূর্ব উন্নয়ন এবং নারীর ক্ষমতায়নের ভূয়সী প্রশংসা করেন ভারতীয় হাইকমিশনার। তিনি মুক্তিযুদ্ধের উপর লিখিত বইয়ের হিন্দিতে অনুবাদ করার জন্য অনুরোধ করেন। ২০২১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে বাংলাদেশের জনগণের আনন্দের অংশীদার হতে ভারতের ইচ্ছার কথা প্রকাশ করেন রিভা গাঙ্গুলি দাশ।

রিভা গাঙ্গুলি দাশ আশা করেন, বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক দিন দিন আরও দৃঢ় হবে। বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক, বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ এবং দ্বিপাক্ষিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হকের সঙ্গে ভারতীয় হাইকমিশনারের আলোচনা হয়। আগামী দিনগুলোতে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক আরও সুদৃঢ় হবে বলেন দু’ জন আশা প্রকাশ করেন।

আরও পড়ুন: শেখ হাসিনাকে নরেন্দ্র মোদীর ঈদ-শুভেচ্ছা

মহান মুক্তিযুদ্ধে ভারত সরকার এবং সে দেশের জনগণের সহায়তার কথা কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করেন আ ক ম মোজাম্মেল হক। বাংলাদেশের স্বাধীনতাযুদ্ধে ভারতীয় মিত্রবাহিনীর শহিদ সদস্যদের অবদান স্মরণে স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তিতে বাংলাদেশে স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ করার কথাও জানান মন্ত্রী।

ভারতের বিদেশ মন্ত্রকের সচিব (পূর্ব) পদে শ্রীমতি গাঙ্গুলির যোগদানের জন্য অভিনন্দন এবং শুভকামনা জানিয়ে মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক আশা করেন, ওই পদে দায়িত্ব পালনের সময় দু’দেশের সুসম্পর্ক ভিন্ন মাত্রা পাবে। 

ছবি: বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হকের সঙ্গে বিদায়ী সাক্ষাৎ ভারতীয় হাইকমিশনার রিভা গাঙ্গুলি দাশের।

Continue Reading

বাংলাদেশ

রাশেদ খান হত্যা মামলা: ৯ পুলিশের বিরুদ্ধে পরোয়ানা, ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ধৃত

বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম নগরীর লালখান বাজার এলাকা থেকে পুলিশ প্রদীপ কুমার দাশকে গ্রেফতার করে।

ঋদি হক: ঢাকা

সাবেক সেনা কর্মকর্তা সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যা মামলায় টেকনাফ থানা থেকে প্রত্যাহার করে নেওয়া ওসি প্রদীপ কুমার দাশকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম নগরীর লালখান বাজার এলাকা থেকে পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারের পরই তাঁকে বিশেষ নিরাপত্তায কক্সবাজারের পথে নিয়ে যাওয়া হয়।

গ্রেফতারের খবরটি সুনিশ্চিত করে র‌্যাবের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, চট্টগ্রাম থেকে পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করার খবর আমরা পেয়েছি। মামলার তদন্তের দায়িত্বে যে হেতু র‌্যাব রয়েছে, তাই পুলিশ তাঁকে র‌্যারেব কাছেই হস্তান্তর করবে।

এর আগে অবসরপ্রাপ্ত সেনাকর্মকর্তা হত্যা মামলায় টেকনাফ মডেল থানার সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ও টেকনাফ বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের আইসি পুলিশ ইন্সপেক্টর মো. লিয়াকত-সহ ৯ পুলিশকর্মীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে আদালত।

নিহত সিনহা মো. রাশেদ খানের বড়ো বোন শারমিন শাহরিয়ার বুধবার কক্সবাজার টেকনাফ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তামান্না ফারাহার আদালতে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

সূত্রের খবর, আদালতের নির্দেশে বুধবার রাতেই টেকনাফ মডেল থানায় নিয়মিত হত্যা মামলা হিসাবে এটি নথিভুক্ত করা হয়। মামলা নম্বর সিআর: ৯৪/২০২০, দণ্ডবিধির জামিন-অযোগ্য ৩০২, ২০১ ও ৩৪ ধারায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। মামলার তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নকে (কক্সবাজার র‌্যাব-১৫)। মামলায় সিনহা মো. রাশেদ খানের সঙ্গী ও ৩১ জুলাই-এর ঘটনায় টেকনাফ পুলিশের দায়ের করা মামলার অভিযুক্ত সাহেদুল ইসলাম সিফাত-সহ ১০ জনকে সাক্ষী করা হয়েছে। গত ৩১ জুলাই রাত সাড়ে ৯টার নাগাদ কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের বাহারছড়া পুলিশ তদন্তকেন্দ্রে সিনহা নিহত হওয়ার সময় অভিযুক্তরা উপস্থিত ছিলেন।

সিনহার দেহে ছয়টি গুলির ছিদ্র

কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি শাজাহান কবির সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে সিনহা মো. রাশেদ খানের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করেন এসআই মো. আমিনুল ইসলাম। তিনি সিনহার দেহে তিনটি গুলি ঢুকে তিনটি ছিদ্র করে বেরিয়ে যাওয়ার ক্ষত পেয়েছেন। ঢোকা ও বেরোনো মিলে মোট ছয়টি ছিদ্র ছিল নিহত মেজর সিনহার দেহে। সুরতহাল রিপোর্টে বিস্তারিত উল্লেখ থাকার কথা জানালেন শাজাহান কবির।

মৃত্যু নিশ্চিত করতে লিয়াকত আরও গুলি ছোড়েন

সিনহার বড়ো বোন শারমিন শাহরিয়ার ফেরদৌস অভিযোগ করেছেন, টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশের নির্দেশে পুলিশ পরিদর্শক লিয়াকত আলী তাঁর ভাইকে গুলি করে হত্যা করেন। সিনহা মাটিতে লুটিয়ে পড়লে মৃত্যু নিশ্চিত করতে লিয়াকত আরও এক রাউন্ড গুলি করেন। ঘটনার কিছুক্ষণ পর ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ঘটনাস্থলে আসেন। তখনও জীবিত থাকা সিনহাকে উদ্দেশ করে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করেন এবং তাঁর শরীরে লাথি মারেন। মৃত্যু নিশ্চিত হলে একটি পিকআপ ভ্যানে তুলে সিনহাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

অভিযোগে আরও উল্লেখ করা হয়, সিনহার সঙ্গে থাকা ক্যামেরাম্যান সিফাতকে টেনে হিঁচড়ে গাড়ি থেকে নামিয়ে ফেলা হয়। সিফাত দুই হাত উঁচু করা অবস্থায় গাড়িতে বসে থাকা সিনহার পরিচয় দেন। পরিচয় দেওয়ার পরও পুলিশ অকথ্য ভাষায় গালাগাল করে।

ওসি প্রদীপের নির্দেশে গুলি ছোড়ে লিয়াকত

এক পর্যায়ে পরিদর্শক লিয়াকত হুংকার ছেড়ে বলে, তোর মতো বহুত মেজরকে আমি দেখেছি, এই বার খেলা দেখামু – এ কথা বলে সিনহাকে গাড়ি থেকে নামিয়ে ফেলেন। এর পর পরিদর্শক লিয়াকত ওসি প্রদীপের সঙ্গে মোবাইল ফোনে শেষ কথা বলেন – ঠিক আছে, শালাকেও শেষ করে দিচ্ছি। মুহূর্তে পরিদর্শক লিয়াকত কয়েক রাউন্ড গুলি করলে সিনহা মাটিতে পড়ে যান।

এ সময় সিনহা জীবন রক্ষার্থে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ কর্মীরা তাঁকে চেপে ধরে আবার মাটিতে ফেলে দেন। সিনহাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। সিনহার মৃত্যুর ঘটনাটি ভিন্ন খাতে নিতে ইয়াবা, গাঁজা ও সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগ এনে টেকনাফ থানায় দু’টি মামলা দায়েরও করা হয়।

স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

তথ্যচিত্র নির্মাণে কক্সবাজারে শুটিং করতে যাওয়া মেজর সিনহা রশিদ খানের সঙ্গী ছিলেন তাঁরা। ৩১ জুলাই সিনহাকে হত্যার সময় একই গাড়িতে ছিলেন স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটির ফিল্ম অ্যান্ড মিডিয়া বিভাগের শিক্ষার্থী চিত্রগ্রাহক সাহেদুল ইসলাম সিফাত এবং নির্মাতা শিপ্রা রানি দেবনাথ। পুলিশ নিজেদের রক্ষায় দু’টো মামলা রজু করে এবং শিপ্রা ও সিফাতকে আটক করে। তাঁদের মুক্তি এবং সার্বিক নিরাপত্তার দাবিতে বৃহস্পতিবার ঢাকার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেন ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীরা।

তাঁদের তরফে বলা হয়, তথ্যচিত্র নির্মাণের জন্য সেখানে মেজর সিনহার সঙ্গে অবস্থান করছিলেন তাঁরা। মেজর সিনহা হত্যার ঘটনায় তাঁদের জড়িয়ে দু’জনকেই আটক করা হয়েছে। মানববন্ধন থেকে সিফাত ও শিপ্রার জীবনের নিরাপত্তা বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে তাঁদের সার্বিক নিরাপত্তা ও নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করা হয়। মেজর সিনহা হত্যার সুষ্ঠু তদন্ত ও কোমলমতি শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং সেই সঙ্গে আটক শিক্ষার্থী ও তাঁদের পরিবারের সদস্যদের সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দাবিও তোলেন তাঁরা।

Continue Reading

বাংলাদেশ

হত্যা মামলা করলেন মেজর সিনহার বড়ো বোন শারমিন, সেনাপ্রধান ও আইজিপি-র ঘটনাস্থল পরিদর্শন

ঋদি হক: ঢাকা

ইন্সপেক্টর লিয়াকত আলী এবং টেকনাফ (Teknaf) থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ-সহ ৯ পুলিশের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করলেন পুলিশের গুলিতে নিহত সাবেক সেনা কর্মকর্তা সিনহা মো. রাশেদ খানের (Major Sinha Md. Rashed Khan) বড়ো বোন শারমিন শাহরিয়ার ফেরদৌস। গত শুক্রবার রাতে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভে শামলাপুর পুলিশ তল্লাশিচৌকিতে পুলিশের গুলিতে নিহত হন প্রাক্তন মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান।     

বুধবার কক্সবাজার (Cox’s Bazar) সিনিয়ার জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে (নম্বর ৩ – টেকনাফ) মামলা দায়ের করেন সিনহা মো. রাশেদ খানের বড়ো বোন। বিচারক তামান্না ফারাহ আবেদনটি গ্রহণ করেন এবং মামলা হিসাবে সেই এজাহার নথিভুক্ত করে সাত দিনের মধ্যে আদালতকে অবগত করার জন্য টেকনাফ থানার ওসি-কে নির্দেশ দেন। পাশাপাশি কক্সবাজারস্থ র‌্যাব ১৫-ব্যাটালিয়নের কমান্ডার আজিম আহমেদকে তদন্ত করার নির্দেশও দেন আদালত।

মামলার অপর সাত আসামি হলেন এসআই নন্দদুলাল রক্ষিত, কনস্টেবল সাফানুর করিম, কনস্টেবল কামাল হোসেন, কনস্টেবল মো. আবদুল্লাহ আল মামুন, এএসআই লিটন মিয়া, এসআই টুটুল ও কনস্টেবল মো. মোস্তফা। সিনহার বাড়ি যশোরের বীর হেমায়েত সড়কে। তাঁর বাবা মুক্তিযোদ্ধা, এরশাদ খানের আমলে অর্থ মন্ত্রণালয়ের উপসচিব ছিলেন।

কান্নায় ভেঙে পড়েন শারমিন

মামলা দায়ের করে আদালত থেকে বেরিয়ে আসেন শারমিন। এ সময় উপস্থিত  সাংবাদিকদের দেখতে পেয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি। শারমিন শাহরিয়ার বলেন,  দেশের একজন বীর সন্তানকে যে ভাবে হত্যা করা হয়েছে, তার বিচারের জন্য তাঁরা কেস ফাইল করেছেন।

শারমিন বলেন, পুলিশের গুলিতে তাঁর ভাইয়ের মৃত্যু হয়েছে ৩১ জুলাই রাতে। সেই রাতে টেকনাফ থেকে পুলিশ ফোন করে তাঁর মাকে জিজ্ঞেস করেছিল, সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান তাঁর ছেলে কি না, তিনি সেনাবাহিনীর মেজর ছিলেন কি না। কিন্তু পুলিশ তখন বলেনি যে সিনহার মৃত্যু হয়েছে। পরদিন বাসায় তিন জন পুলিশ গিয়েছিলেন, তাঁরাও বলেননি যে ভাই মারা গেছেন। ভাইয়ের মৃত্যুর খবর তাঁরা অন্য সোর্স থেকে জানতে পারেন। শারমিন শাহরিয়ার সাংবাদিকদের বলেন, “আমার ভাইকে হত্যার উদ্দেশ্যে গুলি করা হয়েছে। আমরা হত্যা মামলা করেছি।”

দু’ বছর আগে সেনাবাহিনী থেকে স্বেচ্ছায় অবসরে যাওয়া সিনহা ‘লেটস গো’ নামে একটি ভ্রমণ বিষয়ক ডকুমেন্টারি বানানোর জন্য গত প্রায় এক মাস ধরে কক্সবাজারের হিমছড়ি এলাকায় ছিলেন। আরও তিন সঙ্গীকে নিয়ে তিনি উঠেছিলেন নীলিমা রিসোর্টে।


সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ এবং পুলিশের মহাপরিদর্শক বেনজীর আহমেদ বুধবার কক্স বাজারের বাহারছড়া এলাকা পরিদর্শন করেন। ছবি: সৌজন্যে আইএসপিআর

সেনাপ্রধান ও আইজিপির ঘটনাস্থল পরিদর্শন

এ দিকে সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ এবং বাংলাদেশ পুলিশের মহাপুলিশ পরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদ বুধবার কক্সবাজার বাহারছড়ায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

পরে বিকালে কক্সবাজারে যৌথ সাংবাদিক বৈঠকে মিলিত হয়ে জেনারেল আজিজ আহমেদ বলেন, কক্সবাজারের টেকনাফে অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহার পুলিশের গুলিতে মৃত্যুর ঘটনায় সেনাবাহিনী ও পুলিশ মর্মাহত। তদন্ত কমিটির ওপর সেনাবাহিনী ও পুলিশের আস্থা রয়েছে। তারা যাদের দোষী সাব্যস্ত করবে, তাদের বিচারের মুখোমুখি করতে হবে। এই ঘটনায় দুই বাহিনীর সম্পর্কে কোনো প্রভাব পড়বে না। এ ঘটনার দায় ব্যক্তির, কোনো প্রতিষ্ঠানের নয়।

প্রত্যক্ষদর্শীর গা-শিউরে-ওঠা বর্ণনা 

মেজর (অব) সিনহার গাড়ি থামানো এবং গাড়ি থেকে নেমে আসার পর তাঁকে লক্ষ করে গুলিছোড়া ও গুলিবিদ্ধ সিনহাকে কক্সবাজার হাসপাতালের পাঠানোর যে বর্ণনা প্রত্যক্ষদর্শী দিয়েছেন, তা শুনে যে কোনো সুস্থ মানুষ শিউরে উঠবেন।

গোটা ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ভ্রাম্যমাণ ব্যবসায়ী মোহাম্মদ হামিদ। তিনি জানিয়েছেন, মেরিন ড্রাইভ সড়ক দিয়ে টেকনাফের বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর পুলিশ চেকপোস্টে একটি প্রাইভেট কার পৌঁছোলে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর লিয়াকত আলী ব্যারিকেড দেন। এ সময় হাত উঁচু করে গাড়ি থেকে নেমে আসেন একজন। এর পরই নিজের পরিচয় দিয়ে হাত উঁচু করে গাড়ি থেকে নামেন মেজর (অব) সিনহা মো. রাশেদ। তিনি নামার সঙ্গে সঙ্গে কোনো কিছু জিজ্ঞাসা না করেই গুলি ছোড়েন লিয়াকত আলী। মুহূর্তেই সিনহা মাটিতে ঢলে পড়েন।

১০-১২ মিনিট পর সাদা নোয়াহ (মাইক্রোবাস) যোগে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ। কয়েক মিনিট পর একটি মিনি ট্রাকে (পিকভ্যান) সিনহা মো. রাশেদকে তুলে কক্সবাজারের উদ্দেশে পাঠিয়ে দেন ওসি। ব্যবসায়ী হামিদ আরও বলেন, তাঁর চোখের সামনে এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনা কখনও তিনি ভুলতে পারবেন না।

Continue Reading
Advertisement
বিনোদন4 hours ago

বিজয় মাল্যর বিরুদ্ধে তদন্তকারী সিবিআই দল-ই সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তে!

রাজ্য4 hours ago

রাজ্যে প্রথম বার এক দিনে ২৫ হাজার টেস্ট, আক্রান্তের সংখ্যায় রেকর্ড হলেও সুস্থতার হারে স্বস্তি

প্রযুক্তি5 hours ago

হ্যাকার এবং সাইবার অপরাধীরা করোনার সুযোগ নিচ্ছে : বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

কেনাকাটা5 hours ago

ঘর ও রান্নাঘরের সরঞ্জাম কিনতে চান? অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ৫০% পর্যন্ত ছাড়

দেশ5 hours ago

বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক দিন দিন আরও দৃঢ় হবে, বললেন ভারতীয় হাইকমিশনার

শিল্প-বাণিজ্য6 hours ago

ব্য়াঙ্ক চেকে জুড়ছে নতুন সুরক্ষা বৈশিষ্ট্য, ঘোষণা আরবিআইয়ের

দেশ6 hours ago

চেন্নাইয়ে মজুত প্রচুর টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট, বেইরুটের ভয়াবহতায় বাড়ছে আতঙ্ক

বিজ্ঞান6 hours ago

করোনা রোগীর মৃত্যুর ঝুঁকি কমাতে প্লাজমা থেরাপির কোনো ভূমিকা নেই, বলেছে এইমসের অন্তর্বর্তী বিশ্লেষণ

দেশ15 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৫৬২৮২, সুস্থ ৪৬১২১

গাড়ি ও বাইক1 day ago

পেট্রোলচালিত গাড়ি ‘এস-ক্রস’ বাজারে নিয়ে এল মারুতি সুজুকি

ক্রিকেট2 days ago

অঘটন! ৩২৯ তাড়া করে বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের হারাল আয়ারল্যান্ড

ক্রিকেট2 days ago

আইপিএলের নিয়মাবলি: গুচ্ছের টেস্টিং, চলা-ফেরায় নিয়ন্ত্রণ, একটি দলের জন্য একটি হোটেল

দেশ2 days ago

রুপোর ইট দিয়ে রামমন্দিরের শিলান্যাস করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

ক্রিকেট2 days ago

বিতর্কের মধ্যেই আইপিএলের সঙ্গত্যাগ করল চিনা সংস্থা ভিভো

প্রযুক্তি1 day ago

শাওমি, বাইডু-সহ আরও বেশ কয়েকটি চিনা সংস্থার অ্যাপ নিষিদ্ধ করল কেন্দ্র

দেশ2 days ago

আক্রান্তের সংখ্যার সঙ্গে পাল্লা দিল সুস্থতা, সক্রিয় কোভিডরোগী কমল ভারতে

রবিবারের খবর অনলাইন

কেনাকাটা

কেনাকাটা5 hours ago

ঘর ও রান্নাঘরের সরঞ্জাম কিনতে চান? অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ৫০% পর্যন্ত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্ক : অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ঘর আর রান্না ঘরের একাধিক সামগ্রিতে প্রচুর ছাড়। এই সেলে পাওয়া যাচ্ছে ওয়াটার...

কেনাকাটা7 hours ago

এই ১০টির মধ্যে আপনার প্রয়োজনীয় প্রোডাক্টটি প্রাইম ডে সেলে কিনতে পারেন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : চলছে অ্যামাজনের প্রাইমডে সেল। প্রচুর সামগ্রীর ওপর রয়েছে অনেক ছাড়। ৬ ও ৭  তারিখ চলবে এই সেল।...

কেনাকাটা1 day ago

শুরু হল অ্যামাজন প্রাইম ডে সেল, জেনে নিন কোন জিনিসে কত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্: শুরু হল অ্যামাজন প্রাইম ডে সেল। চলবে ২ দিন। চলতি মাসের ৬ ও ৭ তারিখ থাকছে এই অফার।...

things things
কেনাকাটা6 days ago

করোনা আতঙ্ক? ঘরে বাইরে এই ১০টি জিনিস আপনাকে সুবিধে দেবেই দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনা পরিস্থিতিতে ঘরে এবং বাইরে নানাবিধ সাবধানতা অবলম্বন করতেই হচ্ছে। আগামী বেশ কয়েক মাস এই নিয়মই অব্যাহত...

কেনাকাটা1 week ago

মশার জ্বালায় জেরবার? এই ১৪টি যন্ত্র রুখে দিতে পারে মশাকে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: একে করোনা তায় আবার ডেঙ্গুর প্রকোপ শুরু হয়েছে। এই সময় প্রতি বারই মশার উৎপাত খুবই বাড়ে। এই বারেও...

rakhi rakhi
কেনাকাটা2 weeks ago

লকডাউন! রাখির দারুণ এই উপহারগুলি কিন্তু বাড়ি বসেই কিনতে পারেন

সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে মনের মতো উপহার কেনা একটা বড়ো ঝক্কি। কিন্তু সেই সমস্যা সমাধান করতে পারে অ্যামাজন। অ্যামাজনের...

কেনাকাটা2 weeks ago

অনলাইনে পড়াশুনা চলছে? ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ৪০ হাজার টাকার নীচে ৬টি ল্যাপটপ

ইনটেল প্রসেসর সহ কোন ল্যাপটপ আপনার অনলাইন পড়াশুনার কাজে লাগবে জেনে নিন।

কেনাকাটা2 weeks ago

করোনা-কালে ঘরে রাখতে পারেন ডিজিটাল অক্সিমিটার, এই ১০টির মধ্যে থেকে একটি বেছে নিতে পারেন

শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা বুঝতে সাহায্য করে এই অক্সিমিটার।

কেনাকাটা3 weeks ago

লকডাউনে সামনেই রাখি, কোথা থেকে কিনবেন? অ্যামাজন দিচ্ছে দারুণ গিফট কম্বো অফার

খবরঅনলাইন ডেস্ক : সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে দোকানে গিয়ে রাখি, উপহার কেনা খুবই সমস্যার কথা। কিন্তু তা হলে উপায়...

laptop laptop
কেনাকাটা3 weeks ago

ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ২৫ হাজার টাকার মধ্যে এই ৫টি ল্যাপটপ

খবরঅনলাইন ডেস্ক : কোভিভ ১৯ অতিমারির প্রকোপে বিশ্ব জুড়ে চলছে লকডাউন ও ওয়ার্ক ফ্রম হোম। অনেকেই অফিস থেকে ল্যাপটপ পেয়েছেন।...

নজরে

Click To Expand