Connect with us

বাংলাদেশ

১১ ঘন্টায় ৪৩৩ মিলিমিটার! রেকর্ড গড়ে ডুবল উত্তর বাংলাদেশের জনপথ রংপুর

নগরীর বাবু খাঁ ও কামারপাড়া, জুম্মাপাড়া, কেরানিপাড়া, আলমনগর, হনুমানতলা, মুন্সিপাড়া, গণেশপুর ইত্যাদি এলাকার অন্তত ৫০/৬০টি মহল্লার প্রধান সড়ক তলিয়ে গেছে।

Published

on

flooded Rangpur
জলমগ্ন রংপুর।

ঋদি হক: ঢাকা

আবহাওয়া অফিসের খাতাপত্রে এমন টানা বৃষ্টির নজির টানা ৬০ বছরের মধ্যে নেই। আর ১১ ঘন্টায় ৪৩৩ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত! ও যে শ’ বছরের রেকর্ড ভেঙেছে।

রাস্তাঘাট, দোকানপাট, অফিস-আদালত, বাড়িঘর – রংপুরের (Rangpur) সর্বত্র জলে জলময়। রাস্তার অনেক স্থানে কোমরভাঙা জল। বাড়িঘরের ভেতরে হাঁটুজলে ময়লা-আবর্জনা ভাসছে। ফায়ার সার্ভিস স্টেশনে হাঁটুজলে দাড়িয়ে লাল রঙা গাড়ি। এ সব দেখে রংপুরবাসী রীতিমতো বাকরুদ্ধ। শহরের চারিদিকে জল আর জল।

আবহাওয়া অফিসের তরফে বলা হয়েছে, একনাগাড়ে এমন বৃষ্টি গত শ’ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ। রংপুর আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, শনিবার রাত ১০টা থেকে রবিবার সকাল ৯টা পর্যন্ত গত ১১ ঘণ্টায় ৪৩৩ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। গত ৬০ বছরে এমন একটানা বৃষ্টিপাত দেখার কথা স্মরণ করতে পারেননি শহরের কোনো মানুষ।

রংপুর বিভাগীয় শহর হলেও রাস্তাঘাট বেশ উন্নত। এর জন্য কৃতিত্ব প্রাপ্য বাংলাদেশের (Bangladesh) প্রয়াত রাষ্ট্রপতি হুসেন মহম্মদ এরশাদের। কারণ, তিনিই রংপুরের রাস্তায় দামি বাতি লাগিয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন। যত দিন বেঁচেছিলেন, তত দিন রংপুরের মানুষও তাঁকে ফিরিয়ে দেয়নি। প্রতিদান হিসেবে তাঁর দলের মনোনয়ন নিয়ে যিনিই ভোটে দাঁড়িয়েছেন, তাঁকেই জিতিয়েছে রংপুর।

কী অবস্থা রংপুরের

সেই রংপুর ও তার আশপাশের এলাকায় স্মরণকালের মধ্যে ভয়াবহ বৃষ্টি হয়েছে। এ বৃষ্টিতে নগরীর অন্তত ৬০টি মহল্লা হাঁটু থেকে কোমরডোবা জলে তলিয়ে গেছে। বাড়ি-ঘর জলমগ্ন। এর ফলে অন্তত এক লাখ মানুষ জলবন্দি হয়ে পড়েছেন। তাঁরা এখন বাড়িঘর ছেড়ে নিরাপদ আশ্রয়ে চলে গেছেন। বেশির ভাগ রাস্তা-ঘাট দিয়ে গাড়ি চলাচল প্রায় বন্ধ। নগরবাসীর চরম দুর্ভোগে পড়েছেন। 

নগরীর বাবু খাঁ ও কামারপাড়া, জুম্মাপাড়া, কেরানিপাড়া, আলমনগর, হনুমানতলা, মুন্সিপাড়া, গণেশপুর ইত্যাদি এলাকার অন্তত ৫০/৬০টি মহল্লার প্রধান সড়ক তলিয়ে গেছে। এ সব এলাকার বাড়িঘরে জল ঢুকে বসবাসের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। জলবন্দি হাজার হাজার পরিবার বাড়ি-ঘর ছেড়ে পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন স্থানে আশ্রয় নিয়েছে। টানা বৃষ্টিতে গভীর রাতে ঘরের ভেতরে জল ঢুকে পড়ে বেশির ভাগ বাড়ির টিভি ফ্রিজ-সহ বিভিন্ন নিত্যসামগ্রী ও মূল্যবান আসবাবপত্র জলে তলিয়ে যায়।

শহরের বাসিন্দা আসমা বেগম জানান, রাত ৩টার দিকে তাঁর ঘুম ভেঙে যায়। তিনি বাথরুমে যাওয়ার জন্য বিছানা থেকে নেমে দেখেন ঘরের ভেতরে হাঁটুজল। সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে জলও বাড়তে থাকে। সকাল ৭টার মধ্যে বাড়ির উঠানসহ ঘরের ভেতর কোমরডোবা জল। খাটবিছানা সব জলে ভাসতে থাকে।

সোমবারের অবস্থা ও পূর্বাভাস

দুর্ভোগের ক্ষত রেখে রংপুরের জল নামতে শুরু করেছে। আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, আগামী দুই দিন অবস্থা ভালো থাকবে। মৌসুমী বায়ু সচল রয়েছে। যার অবস্থান বর্তমানে ভারতের বিহারে। দুদিনের মাথায় তা ফের বাংলাদেশের উত্তর জনপদ দিয়ে প্রবেশ করবে এবং মৌসুমের শেষ বৃষ্টি ঝরিয়ে বঙ্গোপসাগরে চলে যাবে।

খবর অনলাইনে আরও পড়তে পারেন

হাসিনার জন্মদিনে ভারতের শুভেচ্ছা, মুক্তিযুদ্ধে ভারতের অবদান স্মরণ হাসিনার

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দেশ

দুই দেশ একে অপরের পরিপূরক শক্তি: বাংলাদেশের শিল্পমন্ত্রীর সঙ্গে ভারতীয় হাই কমিশনারের বৈঠক

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশের শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুনের সঙ্গে বৈঠকে মিলিত হন ঢাকায় নিযুক্ত ভারতের হাই কমিশনার বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী।

Published

on

বাংলাদেশের শিল্পমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে ভারতের হাই কমিশনার।

ঋদি হক: ঢাকা 

ভারত (India) ও বাংলাদেশ (Bangladesh) এক অপরের প্রতিযোগী নয়। বরং একে অপরের পরিপূরক হিসেবেই অগ্রসরমান হতে চায়। এ ক্ষেত্রে ভারতে বাংলাদেশি পণ্যের রফতানি বৃদ্ধি, উভয় দেশের মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্য জোরদারের উদ্দেশ্যে স্থলবন্দর-কেন্দ্রিক বাণিজ্যের সম্প্রসারণ এবং রফতানির ক্ষেত্রে বিদ্যমান সমস্যাগুলোর সমাধানে এক সঙ্গে কাজ করার ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করেছে ভারত।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশের শিল্পমন্ত্রী (Bangladesh Industry Minister) নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুনের (Nurul Majid Mahmud Humayun) সঙ্গে বৈঠকে মিলিত হন ঢাকায় নিযুক্ত ভারতের হাই কমিশনার (Indian High Commissioner) বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী (Vikram Doraiswami)। তাঁদের মধ্যে আলোচনায় পণ্যের মান সংক্রান্ত সনদের পারস্পরিক স্বীকৃতির বিষয়টিও উঠে আসে। বৈঠকে ভারতীয় হাই কমিশনার বলেন, বন্ধু বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের যাত্রায় অংশীদার হওয়ার জন্য অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে কাজ করতে চায় ভারত।

দোরাইস্বামী বলেন, ভারত মনে করে অটোমোবাইল, হালকা প্রকৌশল, কৃষি যন্ত্রপাতি এবং অ্যাকটিভ ফার্মাসিউটিক্যালস ইনগ্রেডিয়েন্স (এপিআই) শিল্প ক্ষেত্রে ভারতীয় উদ্যোক্তাদের দীর্ঘ অভিজ্ঞতা দারুণ কাজে আসতে পারে। শুধু তা-ই নয়, বন্ধু রাষ্ট্রের এই সহায়তাকে কাজে লাগিয়ে বাংলাদেশের কাছে তার শিল্পায়নের চলমান ধারাকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার সুযোগ রয়েছে। তবে উল্লিখিত ক্ষেত্রের উন্নয়নে ‘ভারত প্রতিযোগী নয়, বরং পরিপূরক শক্তি’ হিসেবে কাজ করতে চায়। তাতে উভয় দেশই অর্থনৈতিক ভাবে লাভবান হবে।

বাংলাদেশের শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূনের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে এই আগ্রহের কথা জানান ভারতের হাই কমিশনার বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী। শিল্প মন্ত্রকের অতিরিক্ত সচিব বেগম পরাগ-সহ ওই মন্ত্রকের অন্যান্য আধিকারিক এবং ভারতীয় হাই কমিশনের কর্মকর্তারা ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে দ্বিপাক্ষিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়েও বিশদ আলোচনা হয়।

বৈঠককালে ভারতীয় হাই কমিশনার বাংলাদেশের সাম্প্রতিক অর্থনৈতিক বৃদ্ধি ও উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের প্রশংসা করে বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে বৃহত্তর অর্থনৈতিক অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে কাজ করতে আগ্রহী ভারত। হাই কমিশনার বলেন, বিদেশি পণ্য ভারতের বাজারে প্রবেশের ক্ষেত্রে দেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী কিছু অ্যাক্রেডিটেড ল্যাবরেটরির মানসনদ গ্রহণ বাধ্যতামূলক। এই সনদ সাপেক্ষে ভারতের বাজারে বাংলাদেশের খাদ্যপণ্য এবং খাদ্য নয় এমন পণ্যের রফতানির দ্বার সহজেই উন্মুক্ত হতে পারে।

বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ড অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউটের (বিএসটিআই) সঙ্গে ভারতের সংশ্লিষ্ট মান-প্রতিষ্ঠানগুলোর যোগাযোগ শক্তিশালী করারও পরামর্শ দিয়েছেন হাই কমিশনার। বাংলাদেশের অভ্যন্তরে পণ্যের গুণগতমান পরীক্ষায় মোবাইল টেস্টিং ল্যাবরেটরি সেবা চালু করতে ভারতের সহায়তার কথা উল্লেখ করেন তিনি। 

শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ হুমায়ুন ভারতের সঙ্গে দীর্ঘ দিনের সুসম্পর্কের কথা উল্লেখ করে বলেছেন, বন্ধুপ্রতিম রাষ্ট্র ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক অনেকটা রক্তের সম্পর্কের মতো। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে ভারতের জনগণের বিশাল ত্যাগ ও সমর্থনের কথা কৃতজ্ঞতার সঙ্গে স্মরণ করেন তিনি। পারস্পরিক উন্নয়ন-যাত্রায় দু’ দেশ বিভিন্ন আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক ইস্যুতে এক সঙ্গে কাজ করছে বলেও উল্লেখ করেন শিল্পমন্ত্রী।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য ও ব্যবসা বৃদ্ধির মাধ্যমে উভয় দেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরও গভীর হতে পারে। বর্তমান সরকার ভারতের সঙ্গে বাণিজ্য পরিধি বাড়াতে আন্তরিক ভাবে কাজ করছে। বাণিজ্যের পরিধি বাড়লে রফতানি সম্পর্কিত বিদ্যমান সমস্যাগুলোর সহজেই সমাধান হবে।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশের উদীয়মান শিল্পক্ষেত্রগুলোর বিকাশে ভারতের অভিজ্ঞতা কাজে লাগানোর সুযোগ রয়েছে। ভারতীয় হাই কমিশনারের আগ্রহকে অত্যন্ত ইতিবাচক বলে মন্তব্য করেছেন শিল্পমন্ত্রী। এ লক্ষ্যে তিনি উভয় দেশের বিশেষজ্ঞদের মধ্যে কথাবার্তা ও মতবিনিময়ের পরামর্শ দেন।

খবরঅনলাইনে আরও পড়ুন

ঢাকা থেকে কলকাতা, চেন্নাই পথে সাত মাস পর চালু হল উড়ান

Continue Reading

দেশ

ঢাকা থেকে কলকাতা, চেন্নাই পথে সাত মাস পর চালু হল উড়ান

এয়ার বাবল চুক্তির অধীনে কোভিড-১৯ কালীন সময়ে সকল ধরনের স্বাস্থ্যবিধি মেনে উড়ান চালনা শুরু করা হয়েছে।

Published

on

বাংলাদেশ-ভারত রুটে উড়ান পুনরায় চালু করার অনুষ্ঠানে ভারতের হাই কমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামী এবং অন্যান্য অতিথি।

ঋদি হক: ঢাকা

করোনা মহামারির কারণে দীর্ঘ প্রায় সাত মাস বন্ধ ছিল বাংলাদেশ-ভারতের আকাশপথ। অবশেষে বুধবার তা উন্মুক্ত হল।

এ দিন বাংলাদেশের বেসরকারি বিমান সংস্থা ইউ-এস বাংলার ঢাকা-কলকাতা-ঢাকা (Dhaka-Kolkata-Dhaka flight), ঢাকা-চেন্নাই-ঢাকা (Dhaka-Chennai-Dhaka flight) রুটে উড়ান সূচনার মধ্যে দিয়ে কাটল দীর্ঘ দিনের স্থবিরতা। বুধবার সকালে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে উড়ানের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ভারতের হাই কমিশনার (Indian High Commissioner) বিক্রম দোরাইস্বামী (Vikram Doraiswami)।   

এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বেসরকারি বিমান সংস্থা ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স (US-Bangla Airlines) জানিয়েছে, এয়ার বাবল চুক্তির অধীনে কোভিড-১৯ কালীন সময়ে সকল ধরনের স্বাস্থ্যবিধি মেনে দু’দেশের রাষ্ট্রীয় সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ঢাকা থেকে চেন্নাই ও কলকাতা এবং চট্টগ্রাম থেকে চেন্নাই রুটে উড়ান চালনা শুরু করা হয়েছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এম মফিদুর রহমান এবং হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন এ এইচ এম তৌহিদ উল আহসান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স এর চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার ক্যাপ্টেন শিকদার মেজবাহউদ্দিন আহমেদ।

উড়ানের সময়সূচি

ঘোষিত সময়সূচি অনুযায়ী সোমবার ছাড়া বাকি ছ’ দিন ঢাকা থেকে বাংলাদেশ সময় সকাল ৯টা ৪৫ মিনিটে কলকাতার উদ্দেশে উড়ান ছাড়বে এবং ভারতীয় সময় সকাল ১০টা ১৫ মিনিটে কলকাতায় পৌঁছোবে। কলকাতা থেকে ছাড়বে ভারতীয় সময় সকাল ১১টায় এবং ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বাংলাদেশ সময় দুপুর সাড়ে ১২টায় পৌঁছোবে।

ঢাকা থেকে চেন্নাই উড়ান ছাড়বে প্রতি সোম, বুধ, শুক্র ও শনিবার বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ১০টায়, চেন্নাই পৌঁছোবে ভারতীয় সময় দুপুর ১২টা ৪০ মিনিটে। ওই দিন ভারতীয় সময় দুপুর দেড়টায় চেন্নাই থেকে ছেড়ে ঢাকা পৌঁছোবে বাংলাদেশ সময় বিকেল ৪টা ৪০ মিনিটে।

এ ছাড়া প্রতি মঙ্গল, বৃহস্পতি ও রবিবার ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম হয়ে চেন্নাই ও চেন্নাই থেকে চট্টগ্রাম হয়ে ঢাকায় উড়ান চালাবে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। উল্লিখিত দিনে ঢাকা থেকে বাংলাদেশ সময় সকাল ৯টায় এবং চট্টগ্রাম থেকে সকাল সাড়ে ১০টায় চেন্নাইয়ের উদ্দেশে ছেড়ে যাবে এবং চেন্নাই থেকে চট্টগ্রামের উদ্দেশে ছাড়বে ভারতীয় সময় দুপুর দেড়টায় এবং চট্টগ্রামে পৌঁছোবে বাংলাদেশ সময় বিকেল ৪টা ৪০ মিনিটে ও ঢাকায় সন্ধে সোয়া ৬টায়।

খবরঅনলাইনে আরও পড়ুন

করোনাকালেও জিডিপি বৃদ্ধিতে অভাবনীয় সাফল্য, এশিয়ায় মাথা উঁচু বাংলাদেশের

Continue Reading

বাংলাদেশ

করোনাকালেও জিডিপি বৃদ্ধিতে অভাবনীয় সাফল্য, এশিয়ায় মাথা উঁচু বাংলাদেশের

বিশ্বব্যাংক ও আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) যখন ধারণা করেছিল বিশ্বের কোনো দেশের মোট অভ্যন্তরীণ উৎপাদনের বৃদ্ধি ১.৩৮ থেকে ৩.৩৮ শতাংশের বেশি হবে না, ঠিক তখন বাংলাদেশের বৃদ্ধি হয়েছে ৫.২ শতাংশ।

Published

on

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করছেন বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী।

ঋদি হক: ঢাকা

করোনা মহামারির (Corona pandemic) প্রথম দিকে একটা ধাক্কা যে লাগেনি তা কিন্তু নয়। কিন্তু পরবর্তীতে কয়েক মাসের মধ্যেই রফতানিতে ঘুরে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ (Export from Bangladesh)। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বই আজ এশিয়ায় মাথা উচু করে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশের বৃদ্ধি।

এ কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী (Bangladesh Foreign Minister) ড. এ. কে. আব্দুল মোমেন (Dr. A K Abdul Momen) বলেছেন, বিশ্বব্যাংক ও আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) যখন ধারণা করেছিল বিশ্বের কোনো দেশের মোট অভ্যন্তরীণ উৎপাদনের (জিডিপি, (GDP) বৃদ্ধি ১.৩৮ থেকে ৩.৩৮ শতাংশের বেশি হবে না, ঠিক তখন বাংলাদেশের বৃদ্ধি হয়েছে ৫.২ শতাংশ। এটা অভাবনীয় সাফল্য। করোনাকালেও প্রমাণিত হল বাঙালি বীরের জাতি।

করোনাকালীন মাস তিনেকের মতো সময় বাংলাদেশে তৈরি পোশাক রফতানিতে ভাটা পড়েছিল। বিভিন্ন দেশ বাংলাদেশ থেকে পোশাক রফতানি বাতিল করে দেয়। পরবর্তী কালে সরকারের প্রচেষ্টায় বাতিল আদেশের ৪০ শতাংশ পুনরুদ্ধার করা সম্ভব হয়। এ ক্ষেত্রেও দূরদর্শিতার প্রমাণ রাখতে পেরেছে অর্থনৈতিক অগ্রসরমান বাংলাদেশ।

ড. মোমেন বলেন, এ ক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দূরদর্শিতার পরিচয় দিলেন। বাংলাদেশের সরবরাহ-শৃঙ্খল যাতে অচল না হয়ে যায়, সে বিষয়ে আলাপ-আলোচনা করেন বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপ্রধানের সঙ্গে তিনি। প্রধানমন্ত্রীর এই আলোচনায় সাড়া দিয়েছেন তাঁরা। এ জন্য বাংলাদেশের তরফে সেই সব রাষ্ট্রপ্রধানকে ধন্যবাদ।

বর্তমানে তৈরি পোশাক শিল্প স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে ভালো ফল করছে। প্রতি মাসে ৩০০ কোটি ডলারেরও বেশি মূল্যের পোশাক রফতানি করা হচ্ছে। ফলে করোনাকালেও এশিয়ার সব দেশের মধ্যে বাংলাদেশের বৃদ্ধি সব চেয়ে বেশি বলে মোমেন।

প্রদর্শনী ঘুরে দেখছেন বিদেশমন্ত্রী-সহ অন্য অতিথিরা।

‘করোনার মোকাবিলায় চিত্রকলা’ বিষয়ক চিত্রপ্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসে এ সব তথ্য তুলে ধরেন বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী। সংস্কৃতি মন্ত্রকের পৃষ্ঠপোষকতায় ঢাকার শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা ভবনে মঙ্গলবার প্রদর্শনীর উদ্বোধন করে ‘করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায়’ দেশবাসীকে সতর্ক থাকার বার্তা দিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান ড. মোমেন। 

করোনা মহামারিতে বন্ধুপ্রতিম দেশগুলোকে অনুরোধ করা হয়েছিল প্রবাসী বাংলাদেশিদের খাবার-সহ চিকিৎসার ব্যবস্থা করার জন্য। ড. মোমেন জানান তারা সেই অনুরোধ রেখেছেন। প্রবাসী বাংলাদেশিদের সাহায্য করার জন্য বাংলাদেশের মিশনসমূহে অর্থ পাঠানো হয়েছিল। প্রবাসী বাংলাদেশিদের পরিবারকে সহায়তার জন্য দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রক বিশেষ ব্যবস্থা করেছে।

চিত্রপ্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ, মন্ত্রকের সচিব মো. বদরুল আরেফীন এবং বরেণ্য চিত্রশিল্পী জামাল আহমেদ বিশেষ অতিথি রূপে উপস্থিত ছিলেন। সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী।

খবরঅনলাইনে আরও পড়ুন

অবৈধ অস্ত্র, ওয়াকিটকি-সহ ঢাকায় বিধায়ক-পুত্র গ্রেফতার, এক বছরের জেল

Continue Reading

Amazon

Advertisement
দেশ6 mins ago

১০টি রাজ্যে নতুন করে সুস্থ কোভিডরোগীর ৮০ শতাংশ

রাজ্য1 hour ago

জলীয় বাষ্পের প্রভাবে বাড়ল সর্বনিম্ন তাপমাত্রা, মঙ্গলবার পর্যন্ত হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা দক্ষিণবঙ্গে

মল্লারপুরে বিক্ষোভ
বীরভূম2 hours ago

বীরভূমের মল্লারপুরে পুলিশ হেফাজতে নাবালকের মৃত্যু, জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ

বিদেশ4 hours ago

দরিদ্র দেশগুলির জন্য কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন বিমা প্রকল্পের পরিকল্পনা ‘হু’-র

kolkata High Court
রাজ্য4 hours ago

কোভিডরোগীদের জন্য মারণ হতে পারে বাজির ধোঁয়া, ঠেকাতে ফের আদালতে যাওয়ার প্রস্তুতি

Mayawati
দেশ4 hours ago

আর রাখঢাক নয়, এ বার বিজেপিকে সরাসরি ভোট দেওয়ার আহ্বান মায়াবতীর

দেশ5 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৪৮,৬৪৮, সুস্থ ৫৭,৩৮৬

দেশ5 hours ago

স্বস্তি আরও বাড়িয়ে ভারতে সক্রিয় রোগী নামল ছ’লক্ষের নীচে, আপাতত চিন্তা দিল্লিকে নিয়ে

দেশ5 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৪৮,৬৪৮, সুস্থ ৫৭,৩৮৬

containment kolkata
কলকাতা2 days ago

লকডাউন নিয়ে গুজবের বিরুদ্ধে পুলিশি পদক্ষেপ

বিনোদন3 days ago

সিবিআই গ্রেফতার করতে পারে, আশঙ্কায় তড়িঘড়ি আদালতের দ্বারস্থ সুশান্ত সিং রাজপুতের দুই দিদি

কলকাতা2 days ago

বিসর্জনের আগেই আগুন, পুড়ে ছাই সল্টলেকের দুর্গাপুজো মণ্ডপ

উঃ ২৪ পরগনা2 days ago

সক্কালেই ফোন, টাটা ক্যানসার হসপিটালে রক্ত দিয়ে এলেন ১৪ জন স্বেচ্ছাসেবী

coronavirus
রাজ্য3 days ago

দেড় মাস পর রাজ্যে কমল সক্রিয় রোগী, নতুন সংক্রমণ নামল ৪ হাজারের নীচে

বিনোদন2 days ago

ভেন্টিলেশনেই সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, শুরু ডায়ালিসিস

বিনোদন3 days ago

চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন না সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, আরও সংকট, জানালেন চিকিৎসক

কেনাকাটা

কেনাকাটা17 hours ago

দীপাবলিতে ঘর সাজাতে লাইট কিনবেন? রইল ১০টি নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আসছে আলোর উৎসব। কালীপুজো। প্রত্যেকেই নিজের বাড়িকে সুন্দর করে সাজায় নানান রকমের আলো দিয়ে। চাহিদার কথা মাথায় রেখে...

কেনাকাটা3 weeks ago

মেয়েদের কুর্তার নতুন কালেকশন, দাম ২৯৯ থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজো উপলক্ষ্যে নতুন নতুন কুর্তির কালেকশন রয়েছে অ্যামাজনে। দাম মোটামুটি নাগালের মধ্যে। তেমনই কয়েকটি রইল এখানে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা4 weeks ago

‘এরশা’-র আরও ১০টি শাড়ি, পুজো কালেকশন

খবর অনলাইন ডেস্ক : সামনেই পুজো আর পুজোর জন্য নতুন নতুন শাড়ির সম্ভার নিয়ে হাজর রয়েছে এরশা। এরসার শাড়ি পাওয়া...

কেনাকাটা4 weeks ago

‘এরশা’-র পুজো কালেকশনের ১০টি সেরা শাড়ি

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো কালেকশনে হ্যান্ডলুম শাড়ির সম্ভার রয়েছে ‘এরশা’-র। রইল তাদের বেশ কয়েকটি শাড়ির কালেকশন অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা1 month ago

পুজো কালেকশনের ৮টি ব্যাগ, দাম ২১৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : এই বছরের পুজো মানে শুধুই পুজো নয়। এ হল নিউ নর্মাল পুজো। অর্থাৎ খালি আনন্দ করলে...

কেনাকাটা1 month ago

পছন্দসই নতুন ধরনের গয়নার কালেকশন, দাম ১৪৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজোর সময় পোশাকের সঙ্গে মানানসই গয়না পরতে কার না মন চায়। তার জন্য নতুন গয়না কেনার...

কেনাকাটা1 month ago

নতুন কালেকশনের ১০টি জুতো, ১৯৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো এসে গিয়েছে। কেনাকাটি করে ফেলার এটিই সঠিক সময়। সে জামা হোক বা জুতো। তাই দেরি...

কেনাকাটা1 month ago

পুজো কালেকশনে ৬০০ থেকে ১০০০ টাকার মধ্যে চোখ ধাঁধানো ১০টি শাড়ি

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজোর কালেকশনের নতুন ধরনের কিছু শাড়ি যদি নাগালের মধ্যে পাওয়া যায় তা হলে মন্দ হয় না। তাও...

কেনাকাটা1 month ago

মহিলাদের পোশাকের পুজোর ১০টি কালেকশন, দাম ৮০০ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পুজো তো এসে গেল। অন্যান্য বছরের মতো না হলেও পুজো তো পুজোই। তাই কিছু হলেও তো নতুন...

কেনাকাটা1 month ago

সংসারের খুঁটিনাটি সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে এই জিনিসগুলির তুলনা নেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিজের ও ঘরের প্রয়োজনে এমন অনেক কিছুই থাকে যেগুলি না থাকলে প্রতি দিনের জীবনে বেশ কিছু সমস্যার...

নজরে