ওয়েবডেস্ক: পিয়াঁজের আকাশ ছোঁয়া দামের জেরে নাকের জলে চোখের জলে হচ্ছেন বাংলাদেশবাসী। রাজধানী ঢাকার বাজারে এক পিস ভারতীয় পিয়াঁজের দাম পড়ে যাচ্ছে সে দেশের টাকায় প্রায় পাঁচ টাকার মতো।

অথচ মাস খানেক আগেও পরিস্থিতি এমন ছিল না। ঢাকায় এক কেজি ভারতীয় পিয়াঁজ মিলত ২০টাকায়। এখন সেই দাম পৌঁচেছে প্রায় ৭০টাকার কাছাকাছিতে। প্রথম আলো জানিয়েছে, বাংলাদেশি পিয়াঁজের তুলনায় ভারতীয় পিয়াঁজ কিছুটা সস্তা। গত রবিবার বাংলাদেশি পিঁয়াজের দাম ছিল ৮৫-৯০টাকার মধ্যে। কোথাও কোথাও দেশি পিয়াঁজ কেজি প্রতি ৯০-১০০টাকাতেও বিক্রি হচ্ছে।

সরকারি সংস্থা ট্রেডিং কর্পোরেশন অফ বাংলাদেশের হিসাব অনুযায়ী পিয়াঁজের দাম বেড়েছে প্রায় ৭১ শতাংশ। এক বছর আগে এই সময় এক কেজি পিয়াঁজের দাম ছিল ২০ থেকে ৩৫টাকার মধ্যে। ভারতীয় পিয়াঁজের সাইজ যেহেতু তুলনামূলক ভাবে বড়, তাই আধ কেজিতে ওজনে উঠছে সাতটি পিয়াঁজ। ফলে ৭০টাকা কেজি হলে একটি পিয়াঁজের দাম পড়ে যাচ্ছে প্রায় পাঁচ টাকা।

বাংলাদেশে প্রতিবছর প্রায় ৭০ লক্ষ টন পিয়াঁজ উৎপাদিত হয়। এছাড়া ৫ থেকে ৬ লক্ষ টন পিয়াঁজ আমদানি করে বাংলাদেশ। এর বেশির ভাগটাই আসে ভারত থেকে। সাধারণত বছরের শেষের দিকে পিয়াঁজের দাম বাড়ে। তবে এবার বেড়েছে অনেক বেশি।

পিয়াঁজের খুব শীঘ্রই কমতে থাকবে বলে মনে করা হচ্ছে। কারণ অন্ধ্র, মহারাষ্ট্র, কার্নাটক,গুজরাত, মধ্যপ্রদেশ ও রাজস্থানে খরিফ মরসুমের পিয়াঁজ উঠতে শুরু করেছে। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে বাজারের পিয়াঁজের সরবরাহ স্বাভাবিক হবে বলে মনে করছে বাণিজ্য মহল।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here