Mir Quasem

১৯৭১ সালে মানবতাবিরোধী অপরাধে ফাঁসির সাজাপ্রাপ্ত জামায়াতে নেতা মীর কাশেম আলির ফাঁসির সাজা বহাল রাখল বাংলাদেশের শীর্ষ আদালত। মৃত্যুদণ্ডের রায় পুনর্বিবেচনার জন্য সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করেন তিনি। প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বে আপিল বিভাগের পাঁচ সদস্যের বেঞ্চ তাঁর এই আবেদন খারিজ করে দেয়।

আইনি লড়াইয়ের ক্ষেত্রে এই রিভিউ ছিল শেষ ধাপ। কাশেম আলির আবেদন খারিজ হওয়ায় এখন তিনি রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা চাইতে পারবেন। তবে রাষ্ট্রপতি তাঁর আবেদন নাকচ করে দিলে, মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হবে।

এই রায় ঘোষণা উপলক্ষে মঙ্গলবার আদালত চত্বর ছিল নিশ্চিদ্র নিরাপত্তায় মোড়া। মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় ২০১৪ সালে ২ নভেম্বর আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুনালের রায়ে দু’টি অভিযোগে মীর কাশেমের ফাঁসি এবং ৮টি অভিযোগে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড হয়। ওই বছর ৩০ নভেম্বর রায় পুনর্বিবেচনার জন্য আবেদন করেন তিনি।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here