PC on GCA inauguration

নিজস্ব প্রতিনিধি, ঢাকা: মঙ্গলবার রাজধানী ঢাকার আগারগাঁওয়ে গ্লোবাল সেন্টার অন অ্যাডাপ্টেশন-এর (Global Centre on Adaptation, GCA) আঞ্চলিক কার্যালয়ের উদ্বোধন করলেন বাংলাদেশের (Bangladesh) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা (Sheikh Hasina)। এই উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনলাইন অনুষ্ঠানে যোগ দেন রাষ্ট্রপুঞ্জের প্রাক্তন মহাসচিব বান কি-মুন (Ban Ki-moon) এবং নেদারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুট (Mark Rutte)।

জিসিএ’র আঞ্চলিক কার্যালয় খোলা হয়েছে আগারগাঁওয়ের অবস্থিত পরিবেশ অধিদফতরে। এই কার্যালয়টি জলবায়ু পরিবর্তনজনিত জরুরি পরিস্থিতির মোকাবিলায় দক্ষিণ এশিয়ার বিভিন্ন সরকার, সিটি মেয়র, ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ, বিনিয়োগকারী, স্থানীয় জনগোষ্ঠী এবং সুশীল সমাজের সঙ্গে একযোগে কাজ করবে।

বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর প্রতি জিসিএ’র আঞ্চলিক কার্যালয়টি উৎসর্গ করা হয়।

গ্লোবাল ক্লাইমেট রিস্ক ইনডেক্স ২০১৯ অনুসারে, দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলো জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবের জন্য বিশ্বে সব চেয়ে বেশি ঝুঁকিপূর্ণ অঞ্চল। ক্লাইমেট ভালনারেবল ফোরাম ও ভালনারেবল গ্রুপ অব টুয়েন্টি (ভি ২০) ফাইন্যান্স মিনিস্টার্সের সভাপতি বাংলাদেশ বিশ্বেও প্রথম দেশ হিসেবে একটি জাতীয় অভিযোজন পরিকল্পনা তৈরি করেছে।

জিসিএ-র বাংলাদেশ অফিস মূলত দক্ষিণ এশিয়ায় অভিযোজনের ক্ষেত্রসমুহ শক্তিশালী করা এবং সমগ্র অঞ্চলের জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকিসমুহ দূর করতে মাঠ পর্যায়ের কার্যক্রম জোরদার করতে সহায়তা করবে। বাংলাদেশ যত দিন সভাপতি থাকবে তত দিন এটি জলবায়ু-ভিত্তিক দু’টি গুরুত্বপূর্ণ আন্তর্জাতিক সংস্থা সিভিএফ এবং ভি ২০-এর সচিবালয় হিসেবেও কাজ করবে।  

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, গ্লোবাল সেন্টার অন অ্যাডাপ্টেশনের চেয়ারম্যান ও রাষ্ট্রপুঞ্জের প্রাক্তন মহাসচিব বান কি মুন, নেদারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুট, গ্লোবাল সেন্টার অন অ্যাডাপটেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা প্যাট্টিক ভার্কুইজেন বক্তৃতা দেন।   

বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল, বিদেশমন্ত্রী ও জিসিএ বোর্ডের সদস্য ড. এ কে আব্দুল মোমেন এবং পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন, ভারতের পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়, ভুটানের বিদেশমন্ত্রী লিনোপ টেন্ডি দরজি, মলদ্বীপের পরিবেশমন্ত্রী হোসেন রশিদ হাসান, নেপালের বন ও পরিবেশমন্ত্রী শক্তি বাহাদুর বাসনেট, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক সহকারী মালিক আমিন আসলাম বক্তৃতা করেন।

এর পর জিসিএ ভবনে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে ড. এ. কে আব্দুল মোমেন, মো. শাহাবউদ্দিন ব্রিফ করেন। সারা বিশ্বের তরুণদের শিক্ষার সুযোগ প্রদানের মাধ্যমে তাদের ভূমিকাকে অভিযোজন সূচিতে যুক্ত করার উদ্দেশ্যে জিসিএ’র ইয়ুথ অ্যাডাপ্টেশন নেটওয়ার্কের উদ্বোধন করেন ক্লাইমেট ভালনারেবল ফোরামের অ্যাম্বাসেডর সায়মা ওয়াজেদ হোসেন।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

মসজিদে বিস্ফোরণে মৃত্যুর ঘটনায় ভারতের শোকপ্রকাশ

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন