করোনারোগীর চাপে উত্তরের হাসপাতালে ঠাঁই নেই, জানালেন বাংলাদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী

0
বাংলাদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী।
বাংলাদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

নিজস্ব প্রতিনিধি, ঢাকা: উত্তর জনপদের হাসপাতালগুলো করোনা-আক্রান্ত রোগীতে ঠাসা! নতুন রোগীদের সামাল দেওয়া কঠিন হয়ে পড়েছে। তবে আমরা চাই না ঢাকা ও দেশের অন্যান্য জেলাগুলোতে এমন সমস্যা দেখা দিক। শুক্রবার নিজ নির্বাচনী এলাকা মানিকগঞ্জে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

তিনি আরও বলেন, করোনা নিয়ন্ত্রণে থাকাকালীন হাসপাতালে মাত্র ১৫শ’র মতো রোগী ছিল। যে-ই সংক্রমণ  বেড়ে গেল অমনি হু হু করে সারা দেশে হাসপাতালে রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ৪ হাজারের মতো।

Loading videos...

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, এখানেই শেষ নয়। প্রতি দিন প্রায় ৪ হাজারের কাছাকাছি মানুষ নতুন করে কোভিডে আক্রান্ত হচ্ছেন। এই হারে রোগী বাড়তে থাকলে হাসপাতালে করোনারোগীর জায়গা দেওয়া কঠিন হবে।

নিজ বাসভবনে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এ সব কথা তুলে ধরেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

বাংলাদেশেও ডেলটা ভ্যারিয়েন্ট

জাহিদ মালেক আরও বলেন, ডেলটা ভ্যারিয়েন্ট আমাদের দেশেও এসেছে। এর সংক্রমণের ক্ষমতা ৫০ ভাগের বেশি। কাজেই এই সময়টা আমাদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। নিজেদের রক্ষা করতে হবে, পরিবারকে রক্ষা করতে হবে, দেশকে রক্ষা করতে হবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে টিকা কর্মসূচি এখনও পুরোপুরি ভাবে চালু করতে পারিনি। আমরা আশা করছি, খুব শিগগিরই টিকা পেয়ে যাব। চিন ও রাশিয়ার কাছ থেকে টিকা পাব এবং ভারতের সঙ্গে যে চুক্তি হয়েছে সেখান থেকেও পাব। কিন্তু এখনও তা পাওয়া যায়নি। টিকা দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই কিন্তু একজন মানুষ সুরক্ষিত হয় না, তারও এক মাস সময় লাগে।

যে সমস্ত দেশে করোনা নিয়ন্ত্রণে নেই বা ছিল না সেই সমস্ত দেশের অর্থনীতি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, এ কথা উল্লেখ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের অর্থনীতি এখনও ভালো অবস্থানে রয়েছে। এখনও লোকজন কাজ করছে। কিন্তু করোনা যদি বৃদ্ধি পেয়ে যায়, তা হলে লকডাউন করতে হচ্ছে।

যদি আরও লকডাউনে যেতে হয়, যানবাহন চলাচলে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়, তা হলে অর্থনীতি ক্ষতিগ্রস্ত হবে। এ কারণেই সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য বার বার তাগিদ দেওয়া হচ্ছে বলে মন্তব্য করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

আরও পড়ুন: ঢাকায় নামছে মেট্রোরেল, টেস্টট্র্যাকে ট্রায়াল রান হল

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.