Connect with us

বাংলাদেশ

বাংলাদেশে দাবি উঠল, একাত্তরের গণহত্যা ও বুদ্ধিজীবী-হত্যার জন্য ক্ষমা চাইতে হবে পাকিস্তানকে

পাক বাহিনী যখন বুঝেছিল, তারা মুক্তিযোদ্ধাদের কাছে পরাজিত হবে ঠিক তখনই জাতিকে মেধাশূন্য করতে রাজাকার-আলবদর-আল শামসদের সহযোগিতায় হত্যা করেছিল জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বুদ্ধিজীবীদের।

Published

on

পাকিস্তান দূতাবাসে গিয়ে স্মারকলিপি প্রদান।

ঋদি হক: ঢাকা

একাত্তরের গণহত্যা (Genocide in 1971) এবং বুদ্ধিজীবী-হত্যার (killing of intellectuals) জন্য রাষ্ট্রীয় ভাবে ক্ষমা চাইতে হবে পাকিস্তানকে (Pakistan)। এই দাবিতে সরব হল বাংলাদেশ (Bangladesh)। সোমবার দেশ জুড়ে সমাবেশের আয়োজন করা হয়। বিভিন্ন জায়গায় মানববন্ধনে যোগ দেন সাধারণ মানুষ।

Loading videos...

ওই দাবিতে বিজয় দিবসের ৪৯ বছর পূর্তি উৎসবের দু’ দিন আগে সোমবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আয়োজিত হল সমাবেশ। ওই সমাবেশের পরে একটি মিছিল পাকিস্তান দূতাবাস অভিমুখে যাওয়ার চেষ্টা করলে মিছিলটিকে শাহবাগে আটকে দেওয়া হয়। মিছিল থেকে ৬ জনের এক প্রতিনিধিদল দূতাবাসে গিয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীকে লেখা স্মারকলিপিটি দিয়ে আসেন।

সমাবেশ থেকে আওয়াজ

একাত্তরে পাক হানাদার বাহিনী বাংলাদেশে হত্যা, লুন্ঠন, অগ্নিসংযোগ, ধর্ষণ এবং নির্বিচারে গণহত্যা চালায়। ৪৯ বছর আগে বর্বর পাক বাহিনীর নির্বিচার গণহত্যা এবং বিজয়ের দু’ দিন আগে বুদ্ধিজীবীদের হত্যার ঘটনা আজও ভুলে যায়নি বাংলাদেশের মানুষ। সেই অপরাধের জন্য রাষ্ট্রীয় ভাবে ক্ষমা চাওয়ার দাবিতে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সরব হল বাংলাদেশের মানুষ।

মাগুরায় মানববন্ধনে মহিলারাও।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আয়োজিত সমাবেশে দাবি তোলা হল, একাত্তরের গণহত্যা ও বাঙালির শ্রেষ্ঠ সন্তান তথা বুদ্ধিজীবীদের হত্যার দায় কবুল করে পাকিস্তানকে বাংলাদেশের কাছে রাষ্ট্রীয় ভাবে ক্ষমা চাইতে হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবেশে যোগ দিয়ে বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক বলেন, পাকিস্তানকে অবিলম্বে গণহত্যার দায় স্বীকার করে বাংলাদেশের কাছে রাষ্ট্রীয় ভাবে ক্ষমা চাইতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের বিরুদ্ধে পাকিস্তান দূতাবাস এখনও ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। পাকিস্তান দূতাবাসের কার্যক্রমে নজরদারি বাড়ানোর জন্য সরকারের কাছে দাবি জানান এই সাবেক বিচারপতি।

সমাবেশে ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ বলেন, পাকিস্তানকে একাত্তরের গণহত্যা ও জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বুদ্ধিজীবীদের হত্যাকাণ্ডের অপরাধে দ্রুত ক্ষমা চাইতে হবে। অন্যথায় গণহত্যার অপরাধে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আদালতে মামলা করা হবে। সাম্প্রদায়িক মৌলবাদী অপশক্তির পৃষ্ঠপোষক হিসেবে পাকিস্তান বাংলাদেশের বিরুদ্ধে প্রতিনিয়ত ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। এদের সব ষড়যন্ত্র বাংলাদেশের মানুষ রুখে  দেবে।

প্রতিবাদ বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মন্দের।

গণহত্যা ও বুদ্ধিজীবী-হত্যা

১৯৭১ সালের ২৫ মার্চের গণহত্যা দিয়ে শুরু করে ১৬ ডিসেম্বর মুক্তিবাহিনীর চূড়ান্ত বিজয় অর্জনের পূর্ব পর্যন্ত ত্রিশ লক্ষ মানুষকে নির্মম ভাবে হত্যা করেছিল পাকিস্তানি বাহিনী।

হানাদার বাহিনী দুই লাখ মা-বোনের সম্ভ্রম লুট করে নিয়েছিল। একাত্তরের পরাজিত অপশক্তি পাকিস্তানি দোসররা আবার মাথাচাড়া দিয়ে ওঠার চেষ্টা করছে। লাল-সবুজের পতাকা আবারও খামচে ধরতে চায় পুরোনো শকুনেরা।

১৪ ডিসেম্বর পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী হত্যা করেছিল জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের। প্রতিথযশা লেখক, কবি, সাহিত্যক, চিকিৎসক, শিক্ষক, বিজ্ঞানীদের রাতের আঁধারে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে নির্মম ভাবে হত্যা করে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী। পাকিস্তানি বাহিনী যখন বুঝতে পেরেছিল, তারা বীর মুক্তিযোদ্ধাদের কাছে পরাজিত হতে চলেছে ঠিক তখনই জাতিকে মেধাশূন্য করার জন্য এ দেশীয় রাজাকার-আলবদর-আল শামসদের সহযোগিতায় হত্যা করেছিল জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বুদ্ধিজীবীদের।

ঢাকায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে।

সম্প্রতি কুষ্টিয়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য ভাঙচুরের মাধ্যমে কোটি কোটি মানুষের হৃদয়ে আঘাত দিয়েছে মৌলবাদী-সাম্প্রদায়িক অপশক্তি পাকিস্তানের দোসর মামুনুল-ফয়জুল চক্র।

রাষ্ট্রীয় ক্ষমার দাবিতে স্মারকলিপি

সমাবেশ শেষে একটি মিছিল পাকিস্তান দূতাবাস অভিমুখে যাওয়ার চেষ্টা করলে সেটি শাহবাগে আটকে দেয় পুলিশ। মিছিল থেকে ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ, ভাস্কর শিল্পী রাশা, বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চর কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল, সাধারণ সম্পাদক মো: আল মামুন, আইন বিষয়ক সম্পাদক এজেডইউ প্রিন্স ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সনেট মাহমুদ-সহ ৬ জনের এক প্রতিনিধিদলকে পাকিস্তান দূতাবাসে নিয়ে যাওয়া হয়।

সেখানে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীকে লেখা স্মারকলিপিটি গ্রহণ করেন ডিপ্লোমেটিক পুলিশের ডেপুটি কমিশনার (ডিসি) আশরাফুল ইসলাম।

আরও পড়ুন: আট লাখ বর্গফুট জায়গা নিয়ে আয়োজন হবে একুশে বইমেলার

দেশ

টিকা পেতে ভারতকে চিঠি, সীমান্তে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টে দুশ্চিন্তায় বাংলাদেশ

জরুরি প্রয়োজনে ভারতকে ৩০ লক্ষ ডোজ দেওয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

Published

on

মার্কিন দূতের সঙ্গে বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী।

ঋদি হক: ঢাকা

জরুরি প্রয়োজনে টিকা পেতে ভারতের বিদেশমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছেন বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। তাতে তিনি বলেছেন, পুরোটা না দিতে পারলেও সেকেন্ড ডোজ দেওয়ার জন্য যা লাগবে সেটা যেন সরবরাহ করা হয়। জরুরি প্রয়োজনে ৩০ লক্ষ ডোজ দেওয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। ড. মোমেন আরও জানান, সীমান্ত এলাকায় ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে দুশ্চিন্তায় সময় পার করছে বাংলাদেশ। ঢাকায় নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল মিলারের সঙ্গে বিদেশমন্ত্রকে বৃহস্পতিবার বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ সব কথা জানালেন ড. মোমেন।

Loading videos...

ড. মোমেন জানান, যুক্তরাষ্ট্রের কাছে অ্যাস্ট্রাজেনেকার ২ কোটি টিকা চেয়েছে বাংলাদেশ। এই মুহূর্তে বাংলাদেশের কত ডোজ টিকা দরকার তা জানতে চান মার্কিন রাষ্ট্রদূত। অবিলম্বে যে ৪০ লাখ ডোজ টিকার প্রয়োজন তা জানানো হয় তাঁকে। মার্কিন রাষ্ট্রদূত বলেছেন, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ভ্যাকসিন সংগ্রহ করতে যুক্তরাষ্ট্র মিশন সর্বোচ্চ চেষ্টা করছে।

টিকা চেয়ে বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রকে চিঠি দিয়েছে। তাতেও প্রাথমিক ভাবে ৪০ লাখ ডোজ টিকা চাওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে যাঁরা প্রথম ডোজ নিয়েছেন, তাঁদের দ্বিতীয় ডোজ দেওয়ার প্রক্রিয়া চলমান রাখার জন্য এটি ন্যূনতম প্রয়োজন। যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারী বাঙালিদেরও উদ্যোগ নিতে বলেছেন ড. মোমেন। যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত টিকা নিয়ে যোগাযোগ অব্যাহত রেখেছেন। 

রাশিয়া থেকে টিকা আসার বিষয়টি কতটা নিশ্চিত জানতে চাওয়া হলে মন্ত্রী বলেন, এই বিষয়টি স্বাস্থ্য মন্ত্রক নির্ধারণ করে থাকে। রাশিয়া একটি প্রস্তাব দিয়েছে এবং তার ওপর ভিত্তি করে তারা টিকা দেবে বা যৌথ উৎপাদনে যাবে। এটি স্বাস্থ্যমন্ত্রক দেখছে।

ভারত থেকে টিকা আনার বিষয়ে মন্ত্রী জানান, “আমরা ভারতকে চিঠি দিয়েছি। আমি নিজে ভারতের বিদেশমন্ত্রীকে বলেছি, পুরোটা দেওয়া সম্ভব না হলেও অবিলম্বে ৩০ লাখ ডোজ টিকা সরবরাহ করা হোক। আমরা এখনও উত্তর পাইনি।”

আরও পড়ুন: মমতাকে অভিনন্দন জানালেন শেখ হাসিনা

Continue Reading

দেশ

মমতাকে অভিনন্দন জানালেন শেখ হাসিনা

Published

on

ফাইল ছবি।

ঋদি হক: ঢাকা

টানা তিন বার পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী (West Bengal CM) হিসেবে শপথ গ্রহণ করায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Mamata Bandyopadhyay) অভিনন্দন জানিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী (Bangladesh PM) শেখ হাসিনা (Sheikh Hasina)। বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইং থেকে পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

Loading videos...

চিঠিতে শেখ হাসিনা লিখেছেন, “প্রিয় মমতাজি, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে টানা তৃতীয় বারের মতো শপথগ্রহণ উপলক্ষ্যে আপনাকে আন্তরিক অভিনন্দন জানাই। ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের বিপুল বিজয় আপনার ওপর পশ্চিমবঙ্গের জনগণের সুগভীর আস্থার প্রতিফলন। ভারত বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু। বিশেষ ভাবে, পশ্চিমবঙ্গের জনগণের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক অত্যন্ত নিবিড়, হৃদয়ের এবং আবহমানকালের।

“২০২১-এর এই বিশেষ সময়ে যখন আমরা মুজিববর্ষ, বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী এবং ভারত-বাংলাদেশ কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর উদযাপন করছি, সেই মাহেন্দ্রক্ষণে আমি কৃতজ্ঞতার সঙ্গে স্মরণ করছি বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে পশ্চিমবঙ্গের জনগণ ও রাজনৈতিক নেতৃত্বের অবদান এবং সেই সঙ্গে আমাদের অভিন্ন সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও জীবনচর্চা। বৈশ্বিক করোনাভাইরাস মহামারির এই ক্রান্তিকালে বন্ধুত্বপূর্ণ আঞ্চলিক সহযোগিতার ভিত্তিতে সংকট উত্তরণের লক্ষ্যে একযোগে কাজ করে যেতে আমরা অঙ্গীকারবদ্ধ।

“আপনার সুযোগ্য নেতৃত্বে পশ্চিমবঙ্গের জনগণের সর্বাঙ্গীন উন্নতি ও উত্তরোত্তর মঙ্গল কামনা করছি। দুই বাংলার জনগণের অধিকতর সমৃদ্ধ ভবিষ্যৎ বিনির্মাণের লক্ষ্যে আগামী দিনগুলোতে পশ্চিমবঙ্গের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক ঘনিষ্ঠ থেকে ঘনিষ্ঠতর হবে এই প্রত্যাশা ব্যক্ত করছি। আপনার সুস্বাস্থ্য, দীর্ঘায়ু ও অব্যাহত সাফল্য প্রত্যাশা করছি।”

Continue Reading

পরিবেশ

২০ বছরে বাংলাদেশের সুন্দরবনে ২৫ বার আগুন, পুড়ে গেছে প্রায় ৮১ একর বনভূমি

ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ১৮ লাখ ৫৫ হাজার ৫৩৩ টাকা।

Published

on

ঋদি হক: ঢাকা

বাংলাদেশের সুরক্ষা দেওয়াল সুন্দরবনে কেন বার বার অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে!  নেপথ্যের রহস্যই বা কী? বিগত ২০ বছরে ২৫ বার আগুন লেগেছে সেখানে। আগুনের লেলিহান শিখায় পুড়ে গেছে প্রায় ৮১ একর বনভূমি। তাতে ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ১৮ লাখ ৫৫ হাজার ৫৩৩ টাকা। কিন্তু আগুন লাগার কারণ অজ্ঞাত। সুন্দরবনের সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের সূত্রে এ সব তথ্য জানা গেছে।

Loading videos...

তবে বন বিভাগের খবর, ২০০২ থেকে ২০২১ সনের ৩ মে পর্যন্ত বিশ বছরে আগুনে পুড়েছে সুন্দরবনের প্রায় ৭২ একর বনাঞ্চল।

সর্বনাশা আগুনের লেলিহান শিখা যেন ম্যানগ্রোভ সুন্দরবনের পিছু ধাওয়া করে ফিরছে। সুযোগ পেলেই আগুনের লেলিহান শিখা ছড়িয়ে পড়ে এই জঙ্গলে। বছর ঘুরতে না ঘুরতেই বলতে গেলে একই এলাকায় বারংবার আগুন লাগে। একের পর এক আগুনে ক্ষতবিক্ষত বাংলাদেশ রক্ষার দেওয়াল সুন্দরবন। বেড়েই চলেছে জীববৈচিত্র্যের ক্ষতি। 

সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগ সূত্রের খবর, ২০০২ সালে সুন্দরবনের পূর্ব বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের কটকায় আগুন লাগে একবার। একই রেঞ্জের নাংলি ও মান্দারবাড়িয়ায় দু’ বার। ২০০৫ সালে পচাকোড়ালিয়া, ঘুটাবাড়িয়ার সুতার খাল এলাকায় দু’ বার। ২০০৬ সালে তেড়াবেকা, আমুরবুনিয়া, খুরাবাড়িয়া, পচাকোড়ালিয়া ও ধানসাগর এলাকায় পাঁচ বার অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

২০০৭ সালে পচাকোড়ালিয়া, নাংলি ও ডুমুরিয়ায় তিন বার, ২০১০ সালে গুলিশাখালিতে এক বার। ২০১১ সালে নাংলিতে দু’ বার। ২০১৪ সালে গুলিশাখালিতে এক বার। ২০১৬ সালে নাংলি, পচাকোড়ালিয়া ও তুলাতলায় তিন বার। ২০১৭ সালে মাদ্রাসারছিলায় এক বার এবং চলতি বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি ধানসাগর এলাকায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

সর্বশেষ সুন্দরবনের দাসের ভারানি এলাকায় আগুন লাগে গত সোমবার অর্থাৎ ৩ মে সকাল ১১টায়। ৩০ ঘণ্টা পর মঙ্গলবার বিকালে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসার কথা জানায় বন বিভাগ ও ফায়ার সাভির্স। পরে সন্ধ্যায় সুন্দরবন ছেড়ে চলে যায় ফায়ার সাভির্সের ৩টি ইঞ্জিন। 

সর্বশেষ বুধবার ভোর থেকে একই স্থানে ফায়ার লাইনের মধ্যেই ফের আগুন লাগে। তাতে গাছপালা ও লতাগুল্ম দাউদাউ করে জ্বলতে থাকে। আগুনের খবর পেয়ে সকালে বন বিভাগ ও ফায়ার সার্ভিসের শরণখোলা থেকে একাধিক ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার কাজ শুরু করে। পরবর্তীতে মোরেলগঞ্জ ও বাগেরহাটের ফায়ার সার্ভিসের আরও দু’টি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়ে আগুন নেভানোর কাজে যুক্ত হয়। স্থানটি লোকালয় থেকে প্রায় ৩ কিলোমিটার বনের গহীনে দাসের ভারানি এলাকায়।

সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জ কর্মকর্তা ও তদন্ত কমিটির প্রধান সহকারী বন সংরক্ষক (এসিএফ) জয়নাল আবেদিন তৃতীয় দিনের মতো শরণখোলা রেঞ্জের দাসের ভারানি এলাকায় আগুন লাগার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, শরনখোলা, মোরেলগঞ্জ ও বাগেরহাটের ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইঞ্জিন-সহ বন বিভাগ ও সুন্দরবন সুরক্ষায় নিয়োজিত ভিটিআরসি টিমের সদস্যরা আগুন নেভানোর কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন।

ওই আগুন লাগার কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিরূপণে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে বন বিভাগ। কমিটিকে সাত কার্যদিবসের মধ্যে বিভাগীয় বন কর্মকর্তার কাছে (ডিএফও) প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

আরও পড়ুন: প্রথম বার ভারত থেকে রেলপথে বাংলাদেশ আমদানি করছে ৫০ হাজার টন চাল

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
বিদেশ2 hours ago

২৫ বার এভারেস্ট শীর্ষে, নিজের রেকর্ড ভেঙে ইতিহাস সৃষ্টি করলেন কামি রিটা শেরপা

ক্রিকেট3 hours ago

IPL 2021: বাকি ম্যাচগুলি আয়োজন করতে চেয়ে বিসিসিআইকে আবেদন জানাল শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড

দেশ3 hours ago

Coronavirus Second Wave: এ বার সম্পূর্ণ লকডাউনের পথে হাঁটল তামিলনাড়ুও

রাজ্য4 hours ago

Bengal Corona Update: রাজ্যের ১৫ জেলায় মৃত্যুহার ১ শতাংশের কম

দেশ4 hours ago

Corona Update: দৈনিক সংক্রমণ কিছুটা কমলেও মৃতের সংখ্যায় রেকর্ড, তবুও মৃত্যুহার নিম্নমুখী

দেশ4 hours ago

Delhi Covid Crisis: অক্সিজেনের সংকট শেষ, তিন মাসের মধ্যে সব দিল্লিবাসীর টিকাকরণ হয়ে যাবে, জানালেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল

দেশ5 hours ago

Assam CM Dilema: ফলাফলের ছ’দিন পরেও মুখ্যমন্ত্রীর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতে পারল না বিজেপি

দেশ5 hours ago

Coronavirus Second Wave: করোনা মোকাবিলায় এ বার দু’ সপ্তাহের সম্পূর্ণ লকডাউন জারি হল কর্নাটকে

রাজ্য3 days ago

কমিশনের নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে পুনর্গণনার দাবিতে আদালতে যাওয়ার হুঁশিয়ারি শুভেন্দু অধিকারীর

রাজ্য3 days ago

বৃহস্পতিবার থেকে রাজ্যে লোকাল ট্রেন বন্ধ, মেট্রো ও সরকারি বাস অর্ধেক, এক গুচ্ছ ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

sourav ganguly
ক্রিকেট2 days ago

Covid Crisis in IPL: জৈব সুরক্ষা বলয়ে কোনো ফাঁক ছিল বলে মনে করেন না সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়

দেশ2 days ago

Corona Update: দু’তিনটে রাজ্যে সংক্রমণবৃদ্ধির জের, ভারতের দৈনিক সংক্রমণ ভেঙে দিল অতীতের রেকর্ড

রাজ্য3 days ago

Bengal Corona Update: দৈনিক সংক্রমণ ১৮ হাজারের গণ্ডি পেরোলেও কমল সংক্রমণের হার, পর পর ৪ দিন সুস্থতার হারে বৃদ্ধি

রাজ্য2 days ago

Post-Poll Violence: ইন্ডিয়া টুডে-র সাংবাদিকের ছবি পোস্ট করে হিংসায় মৃত হিসেবে বর্ণনা বিজেপির

ক্রিকেট3 days ago

অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন স্পিনার অপহৃত, পরে মুক্ত

রাজ্য2 days ago

Bengal Corona Update: দৈনিক সংক্রমণে স্থিতাবস্থা অব্যাহত, কলকাতায় সক্রিয় রোগীর সংখ্যায় বড়ো পতন

ভিডিও

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 months ago

বাজেট কম? তা হলে ৮ হাজার টাকার নীচে এই ৫টি স্মার্টফোন দেখতে পারেন

আট হাজার টাকার মধ্যেই দেখে নিতে পারেন দুর্দান্ত কিছু ফিচারের স্মার্টফোনগুলি।

কেনাকাটা3 months ago

সরস্বতী পুজোর পোশাক, ছোটোদের জন্য কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সরস্বতী পুজোয় প্রায় সব ছোটো ছেলেমেয়েই হলুদ লাল ও অন্যান্য রঙের শাড়ি, পাঞ্জাবিতে সেজে ওঠে। তাই ছোটোদের জন্য...

কেনাকাটা3 months ago

সরস্বতী পুজো স্পেশাল হলুদ শাড়ির নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই সরস্বতী পুজো। এই দিন বয়স নির্বিশেষে সবাই হলুদ রঙের পোশাকের প্রতি বেশি আকর্ষিত হয়। তাই হলুদ রঙের...

কেনাকাটা3 months ago

বাসন্তী রঙের পোশাক খুঁজছেন?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই আসছে সরস্বতী পুজো। সেই দিন হলুদ বা বাসন্তী রঙের পোশাক পরার একটা চল রয়েছে অনেকের মধ্যেই। ওই...

কেনাকাটা3 months ago

ঘরদোরের মেকওভার করতে চান? এগুলি খুবই উপযুক্ত

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘরদোর সব একঘেয়ে লাগছে? মেকওভার করুন সাধ্যের মধ্যে। নাগালের মধ্যে থাকা কয়েকটি আইটেম রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার...

কেনাকাটা4 months ago

সিলিকন প্রোডাক্ট রোজের ব্যবহারের জন্য খুবই সুবিধেজনক

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন সামগ্রী এখন সিলিকনের। এগুলির ব্যবহার যেমন সুবিধের তেমনই পরিষ্কার করাও সহজ। তেমনই কয়েকটি কাজের সামগ্রীর খোঁজ...

কেনাকাটা4 months ago

আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজ রইল আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার সময় যে দাম ছিল...

কেনাকাটা4 months ago

রান্নাঘরের এই সামগ্রীগুলি কি আপনার সংগ্রহে আছে?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরে বাসনপত্রের এমন অনেক সুবিধেজনক কালেকশন আছে যেগুলি থাকলে কাজ অনেক সহজ হয়ে যেতে পারে। এমনকি দেখতেও সুন্দর।...

কেনাকাটা4 months ago

৫০% পর্যন্ত ছাড় রয়েছে এই প্যান্ট্রি আইটেমগুলিতে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: দৈনন্দিন জীবনের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলির মধ্যে বেশ কিছু এখন পাওয়া যাচ্ছে প্রায় ৫০% বা তার বেশি ছাড়ে। তার মধ্যে...

কেনাকাটা4 months ago

ঘরের জন্য কয়েকটি খুবই প্রয়োজনীয় সামগ্রী

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যদিনের প্রয়োজনীয় ও সুবিধাজনক বেশ কয়েকটি সামগ্রীর খোঁজ রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদনটি লেখার সময় যে দাম ছিল তা-ই...

নজরে