নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ইলিশ ধরা, বাগেরহাটে মাছবোঝাই ট্রলারকে জরিমানা

0

ঋদি হক: ঢাকা

মা-ইলিশ রক্ষায় ৪ থেকে ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত ইলিশ ধরা নিষিদ্ধ। মা-ইলিশ রক্ষায় নদ-নদী সমন্বিত বাহিনীর বিশেষ অভিযান চলছে। নিষেধাজ্ঞা অমান্যকারীকে অর্থ, জেল বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত করার বিধান রয়েছে।

বাগেরহাটের শরণখোলায় ইলিশ আহরণে নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে চোরাগোপ্তা ভাবে নদীতে মাছ ধরা চলছিল। সেই সময় ভ্রাম্যমাণ আদালত ইলিশবোঝাই একটি ট্রলার আটক করে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) খাতুনে জান্নাতের নেতৃত্বে ওই অভিযান চলে। ট্রলারটিকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। মঙ্গলবার বিকাল নাগাদ অভিযানকালে ফিশিং ট্রলারে ইলিশ ও অন্যান্য সামুদ্রিক মাছ পাওয়া যায়। সাগর থেকে ফিরতে দেরি হওয়ায় মাছ-সহ ট্রলারটি উপজেলার সাউথখালী ইউনিয়নের গাবতলা এলাকায় অবস্থান করছিল।

শরণখোলা উপজেলার জ্যেষ্ঠ মৎস্য কর্মকর্তা এম এম পারভেজ সংবাদমাধ্যমকে জানান, সোমবার মধ্যরাতে তার অফিস সহকারী মনোতোষ আরিন্দা ও শরীফ আহমেদ জোয়াদ্দার বলেশ্বর নদে টহল দিচ্ছিলেন। এ সময় গাবতলা ঘাটে ট্রলারটি দেখে তাদের সন্দেহ হয়। এ সময় তল্লাশি করে মাছ পাওয়ায় ট্রলার ও মাছ বাজেয়াপ্ত করে মৎস্য বিভাগের হেফাজতে নেওয়া হয়। এর পর মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে জরিমানা আদায় করা হয়।

ট্রলারটির মালিক দক্ষিণ সাউথখালী গ্রামের আলম হাওলাদার। ট্রলারে ছোটো-বড়ো ইলিশসহ বিভিন্ন প্রজাতির সামুদ্রিক মাছ ছিল। পরে মাছগুলো স্থানীয় তিনটি এতিমখানায় বিতরণ করা হয়েছে।

আরও পড়তে পারেন

৪ দিন আটকে থাকার পর মোংলা বন্দরের পসুর চ্যানেলে বিদেশি দুই জাহাজ

মেরিল্যান্ডে বাংলাদেশ হাউসের উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা

শিক্ষকের স্থায়ী বহিষ্কারের দাবিতে রবি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের আমরণ অনশন, অসুস্থ দুই

শেখ হাসিনার জন্মদিনে টিকা পাবেন ৮০ লাখ মানুষ

ইলিশের ওজন ২ কেজি ১০০ গ্রাম! ৪০০০ টাকায় বিক্রি

ঢাকায় শুরু হয়েছে বঙ্গবন্ধু-বাপু পক্ষকালব্যাপী ডিজিটাল প্রদর্শনী

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন