Connect with us

বাংলাদেশ

বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে ভারতে আসছে বাংলাদেশের তিনটে গানের দল

ওয়েবডেস্ক : ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশের বিজয় দিবস। এই বিজয় দিবসের অনুষ্ঠান ভারতে প্রতিবছর পালিত হয়। এ বছর এই অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ থেকে আসছে তিনটি গানের দল।

বিজয় দিবস পালিত হবে কলকাতা, আগরতলা, দিল্লি এবং মুম্বইয়ে। বাংলাদেশের ১৩জনের একদিন গানের দল আসছে এই অনুষ্ঠানে যোগ দিতে। মুম্বইয়ের অনুষ্ঠানে থাকবেন সে দেশের বিখ্যাত গায়িকা দিনাত জাহান মুন্নি। বাংলাদেশের সংবাদমাধ্যম প্রথম আলোকে দেওয়া এক ওয়েব সাক্ষাৎকারে এ খবর জানিয়েছেন তিনি। তাঁরা লোকসঙ্গীত এবং অন্যান্য গাইবেন।

১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ মুক্তিবাহিনী এবং ভারতে সেনাবাহিনীর যৌথ বাধার কাছে হেরে নতিস্বীকার করে পাকিস্তান। বাংলাদেশের মতো ভারতেও দিনটি বিজয় দিবস হিসাবে পালিত হয় আসছে।

বিজয় দিবসের মূল অনুষ্ঠানটি হয় নয়াদিল্লিতে। তিনবাহিনীর প্রধান এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ইন্ডিয়া গেটের অমর জওয়ান জ্যোতিতে মাল্যদান করে যুদ্ধে নিহত শহিদদের শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন।

আরও পড়ুন :

দেশ

এক মাসে ভারত-বাংলাদেশ পণ্যবাহী শতাধিক ট্রেন চলেছে

ঋদি হক: ঢাকা

করোনা-প্রার্দুভাব ও লকডাউনের কারণে ভারত-বাংলাদেশ স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল। ইদানীং সেই বাণিজ্য অবশ্য চালু হয়েছে। তবে এরই মধ্যে রেলপথে পণ্য পরিবহনের প্রস্তাব দেয় ভারত। ভারতের সেই প্রস্তাবকে স্বাগত জানায় বাংলাদেশ।

এর পর জুন মাসের গোড়া থেকেই দু’ দেশের মধ্যে রেলপথে পণ্য পরিবহণ শুরু হয়। বাংলাদেশ রেলওয়ে ও ভারতীয় রেলের ব্যবস্থাপনায় পণ্যবাহী ট্রেনগুলো চলাচল করেছে।

বৃহস্পতিবার ঢাকায় ভারতীয় হাইকমিশন সূত্র জানায়, এক মাসে ভারতীয় রেলের  ১০৩টি পণ্যবাহী ট্রেন পেঁয়াজ, আদা, মরিচ, ভুট্টা, হলুদ, ধানের বীজ, চিনি ইত্যাদি নিত্যপণ্য বাংলাদেশে সরবরাহ করেছে। করোনা মহামারিজনিত পরিস্থিতিতে লকডাউনের মধ্যেও দুই দেশের মধ্যে ট্রেনে পণ্য আনা-নেওয়া বেড়েছে। দুই দেশের রেলপথে এক মাসে শতাধিক পণ্যবাহী ট্রেন চলা একটা রেকর্ড।

ট্রেনে পণ্য সরবরাহের সাফল্য দেখে বাংলাদেশ রেলওয়ে দু’ দেশের মধ্যে পণ্যবাহী ট্রেন অর্থাৎ পার্সেল ট্রেন সেবা চালুর অনুমতি দিয়েছে। এর ফলে মালগাড়িপ্রতি ২৩৮ মেট্রিক টন পণ্য পরিবাহিত হবে।

আরও পড়ুন: চ্যাংরাবান্ধা দিয়ে শুরু হল ভারত-বাংলাদেশ বাণিজ্য

সম্প্রতি ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলি দাশ একাধিক ভিডিও কনফারেন্সে বাংলাদেশের রেল মন্ত্রক, এনবিআর (ন্যাশনাল বোর্ড অব রেভেনিউ) ও বাণিজ্য মন্ত্রককে দুই দেশের মধ্যে ট্রেনে পণ্য আনা-নেওয়া সহজীকরণের ব্যাপারে অনুরোধ জানান। আলোচনার পরে এখন এনবিআর ও বাংলাদেশ রেলওয়ে বেনাপোল-পেট্রাপোল দিয়ে কনটেনার ট্রেন সেবা সহজ করার বিষয়ে একমত হয়েছে।

Continue Reading

দেশ

চ্যাংরাবান্ধা দিয়ে শুরু হল ভারত-বাংলাদেশ বাণিজ্য

ঋদি হক: ঢাকা

প্রায় সাড়ে তিন মাস পর ভারতের (India) চ্যাংরাবান্ধা স্থলবন্দর (Changrabandha Land Port) দিয়ে শুরু হল বৈদেশিক বাণিজ্য। মঙ্গলবার নবান্ন থেকে স্বয়ং পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় চ্যাংরাবান্ধা দিয়ে বৈদেশিক বাণিজ্য চালু করার কথা ঘোষণা করতেই আশা ছিল হয়তো বুধবার থেকেই চালু হয়ে যাবে বাণিজ্য। তা অবশ্য হয়নি। এক দিন দেরিতে, বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হল দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্য।

করোনার বিস্তার রুখতে চ্যাংরাবান্ধা দিয়ে বন্ধ রাখা হয়েছিল এই বাণিজ্য। বৃহস্পতিবার বিকালে স্থলবন্দরে উপস্থিত হন পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রী বিনয় কৃষ্ণ বর্মন, এমএলএ ড. সৌরভ চক্রবর্তী, এমএলএ অর্ঘ রায় প্রধান, চ্যাংরাবান্ধা উন্নয়ন কমিটির চেয়ারম্যান পরেশ অধিকারী এবং ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। মন্ত্রী-এমএলএ’র হাত ধরেই বৈদেশিক বাণিজ্যের দুয়ার খোলে। একের পর এক পণ্যবোঝাই ট্রাক ঢুকতে থাকে বাংলাদেশে (Bangladesh)।

চ্যাংরাবান্ধা দিয়ে ভারত-বাংলাদেশ বাণিজ্য (Indo-Bangla Trade) শুরু হওয়ায় দু’ দেশের ব্যবসায়ীদেরই স্বস্তি ফিরেছে। বুড়িমারি (Burimari) স্থলবন্দরে ফের দেখা দিয়েছে কর্মচাঞ্চল্য।

আরও পড়ুন: বুধবার চ্যাংরাবান্ধা দিয়ে শুরু হচ্ছে ভারত-বাংলাদেশ বাণিজ্য

এখানকার ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, দু’ দেশের বাণিজ্য এত দিন বন্ধ থাকায় তাঁদের অনেক ক্ষতির মুখে পড়তে হয়েছে। সময়মতো পণ্য ডেলিভারি করা সম্ভব হয়নি। এ কারণে বহু বিলও আটকে রয়েছে। সবাই ঋণী। ও দিকে ব্যাঙ্কের তরফেও তাগাদা আসছে। তবু এত দিন পরে বাণিজ্য শুরু হওয়ায় তাঁরা খুশি। 

বৈদেশিক বাণিজ্য বন্ধ থাকায় ক্ষতির মুখে পড়েন বাংলাদেশের প্রায় সাড়ে তিনশো ব্যবসায়ী। ব্যবসায়ী নুরুজ্জামান জানান, আমদানিকৃত বিভিন্ন পণ্য দীর্ঘদিন ট্রাকে ছিল। ফলে তার কিছুটা তো নষ্ট হয়েছে। আবার কোনো কোনো পণ্যের মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে যাওয়ার সময় এসেছে।

তবে দীর্ঘ দিন পরও যে বন্দর চালু হয়েছে, তাতেই একটা আশার আলো দেখতে পাচ্ছেন ব্যবসায়ীরা।

বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্য পুনরায় চালু হওয়ায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন ডুয়ার্স ইউনাইটেড ট্রাক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সম্পাদক এবং যৌথ ব্যবসায়ী কমিটির অন্যতম নেতা উৎপল কুমার রায়। পাশাপাশি বৈদেশিক বাণিজ্য চালু করার ব্যাপারে স্থানীয় রাজনীতিক, মন্ত্রী, সকলেরই আন্তরিক প্রচেষ্টার উল্লেখ করেন তিনি।

উৎপলবাবু জানালেন, দীর্ঘদিন পরে হলেও ব্যবসায়ীরা একটা স্বস্তিদায়ক অবস্থায় ফিরেছেন।

Continue Reading

বাংলাদেশ

গুলশানে জঙ্গি হামলার ৪ বছর, অনলাইন প্রচারণায় সক্রিয় জঙ্গি গোষ্ঠী

ঋদি হক: ঢাকা

বহুল আলোচিত গুলশন (Gulshan) জঙ্গি হামলার চার বছর পূর্ণ হল। দুনিয়া জুড়ে আলোড়ন সৃষ্টি করা এই হামলা হয়েছিল ২০১৬ সালের ১ জুলাই।

সে দিন আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠন আইএস-এর একদল অস্ত্রধারী জঙ্গি গুলশনের হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় (Holey Artisan Bakery) হামলা চালায়। জঙ্গিরা অবস্থানরত দেশি-বিদেশি নাগরিকদের পণবন্দি করে। এর পর একে একে হত্যা করা হয় জাপানি, ইতালিয়ান ও ভারতীয়-সহ দেশ-বিদেশের ২০ অতিথিকে। এঁদের মধ্যে ৩ জন বাংলাদেশি, ৭ জন জাপানি, ৯ জন ইতালিয়ান এবং ১ জন ভারতীয় নাগরিক ছিলেন। পরে সেনা অভিযানে আইএস-এর পোশাক পরা ৫ জঙ্গি নিহত হয় এবং ১২ ঘণ্টা পর ভয়াবহ জঙ্গি হামলার অবসান ঘটে।

নিহতদের শ্রদ্ধা জানাতে বুধবার চিন, জাপান ও আমেরিকার রাষ্ট্রদূত, ঢাকা মহানগর পুলিশ কশিমনার, র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ানের (র‌্যাব) ডিজি-সহ বহু বিশিষ্ট বাংলাদেশি ঘটনাস্থলে হাজির হন। তাঁরা জঙ্গি-হামলায় নিহতদের প্রতি ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

শ্রদ্ধা নিবেদন করে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি, DMP) কমিশনার মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম (Md. Shafiqul Islam) বলেন, বিশ্বজোড়া করোনা মহামারি পরিস্থিতিতেও জঙ্গি সংগঠনগুলো বসে নেই। তারা অনলাইনে সদস্যদের উদ্বুদ্ধ করার চেষ্টা করছে, নানাবিধ প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছে। করোনা পরিস্থিতিতে স্বাভাবিক ভাবেই মানুষ ঘরেই বেশি সময় কাটাচ্ছেন। এ সময় তাঁরা ধর্মীয় সাইটগুলোতে বেশি ভিজিট করছেন। এর সুযোগ নিচ্ছে জঙ্গি সংগঠনগুলো। তাদের সদস্যরা ইন্টারনেট ব্যবহার করে ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছে। তাদের টার্গেট পুলিশের সদস্যরা।

কমিশনার আরও বলেন, ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধের পর সব চেয়ে বড়ো যে জঙ্গি হামলার মুখোমুখি হয়েছিল বাংলাদেশ (Bangladesh), সেটি হচ্ছে হলি আর্টিজানের জঙ্গি হামলা। হলি আর্টিজান হামলার পর থেকে একের পর এক জঙ্গি-আস্তানা গুঁড়িয়ে  দিয়েছে পুলিশ। জঙ্গিদের যে সক্ষমতা ছিল, সেটি এখন নেই বললেই চলে। এখন তারা যে সব ইম্প্রভাইজড বোমা বানায়, তার আসল সব এক্সপার্ট পুলিশের হাতে ধরা পড়েছে। তারা জেলে রয়েছে। অনেকে বিভিন্ন অভিযানে নিহত হয়েছে। তাই এখন সে ধরনের সক্ষমতা জঙ্গি সংগঠনগুলোর নেই। হলি আর্টিজান হামলার পরে বাংলাদেশ পুলিশের নিরাপত্তা ব্যবস্থা যেমন ঢেলে সাজা হয়েছে, একই ভাবে জঙ্গিবাদে যারা জড়িত তাদের সক্ষমতা, ক্ষমতা সম্পর্কেও পুলিশের একটা সুস্পষ্ট ধারণা হয়েছে বলেও দাবি করেন শফিকুল ইসলাম।

২০১৯ সালের ২৭ নভেম্বর ঢাকার সন্ত্রাস-বিরোধী ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মজিবুর রহমান হলি আর্টিজান হামলা সংক্রান্ত মামলার রায় ঘোষণা করেন। রায়ে মামলার ৮ আসামির মধ্যে ৭ জনকে মৃত্যুদণ্ড ও একজনকে বেকসুর খালাস করে দেওয়া হয়। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হল, জাহাঙ্গীর হোসেন ওরফে রাজীব গান্ধী, আসলাম হোসেন ওরফে র‌্যাশ, আব্দুস সবুর খান, রাকিবুল হাসান রিগ্যান, হাদিসুর রহমান, শরিফুল ইসলাম ওরফে খালেদ এবং মামুনুর রশিদ রিপন। মিজানুর রহমান ওরফে বড়ো মিজান নামের একজনকে বেকসুর খালাস দেয় আদালত।

রায়ের পর্যবেক্ষণে বিচারক বলেন, বাংলাদেশে তথাকথিত জিহাদ কায়েমের লক্ষ্যে এবং আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠন আইএস-এর দৃষ্টি আকর্ষণ করতে জেএমবির একাংশ নিয়ে গঠিত হয় নব্য জেএমবি। তারাই গুলশন হলি আর্টিজান বেকারিতে নারকীয় ও দানবীয় হত্যাকাণ্ড ঘটায়। হলি আর্টিজান হামলার মধ্য দিয়ে জঙ্গিবাদের উন্মত্ততা, নিষ্ঠুরতা ও নৃশংসতার জঘন্য বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে। এই কলঙ্কজনক হামলার মাধ্যমে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের চরিত্র হরণের চেষ্টা করা হয়, যাতে বাংলাদেশে বিদেশি নাগরিকরা নিরাপত্তাহীনতায় ভোগেন। শান্তি ও সম্প্রীতির জন্য পরিচিত বাংলাদেশের ইতিবাচক ভাবমূর্তি এই হামলায় কিছুটা ক্ষুন্ন হয়।

Continue Reading
Advertisement
বিনোদন3 hours ago

‘সড়ক ২’ পোস্টার: ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাতের অভিযোগে মহেশ ভাট, আলিয়া ভাটের বিরুদ্ধে মামলা

রাজ্য4 hours ago

রেকর্ড সংখ্যক পরীক্ষার দিন আক্রান্তের সংখ্যাতেও নতুন রেকর্ড, রাজ্যে বাড়ল সুস্থতার হারও

দেশ4 hours ago

নতুন নিয়মে খুলছে তাজমহল!

wfh
ঘরদোর5 hours ago

ওয়ার্ক ফ্রম হোম করছেন? কাজের গুণমান বাড়াতে এই পরামর্শ মেনে চলুন

দেশ5 hours ago

আতঙ্ক বাড়িয়ে ফের কাঁপল দিল্লি

শিল্প-বাণিজ্য5 hours ago

কোভিড-১৯ মহামারি ভারতীয়দের সঞ্চয়ের অভ্যেস বদলে দিয়েছে: সমীক্ষা

fat
শরীরস্বাস্থ্য6 hours ago

কোমরের পেছনের মেদ কমান এই ব্যায়ামগুলির সাহায্যে

বিদেশ6 hours ago

নরেন্দ্র মোদীর ‘বিস্তারবাদী’ মন্তব্যের পর চিনের কড়া প্রতিক্রিয়া

নজরে