পটনা : নজর রাখছেন নীতীশ কুমার। প্রধানমন্ত্রীর ৫০ দিনের সময়সীমা পূর্ণ হতে আর বলা যায় এক পক্ষ কাল বাকি। এর মধ্যে দেশ থেকে দুর্নীতি, কালো টাকা আর সন্ত্রাসবাদ নির্মূল হয় কিনা তার দিকে তিনি লক্ষ রাখছেন। নীতীশের গলায় যেন একটু বেসুরো খেলছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ডিমনিটাইজেশনের প্রতি নিঃশর্ত সমর্থন জানিয়েছেন নীতীশ। কিন্তু এখন যেন তাতে একটু খোঁচা। আজ যেন একটু আক্রমণাত্মক।

মঙ্গলবার পটনায় মদ্যপান নিষিদ্ধ করা নিয়ে এক ওয়ার্কশপে নীতীশ বলেন, ডিমনিটাইজেশন নিয়ে যা ঘটছে তা সবই লক্ষ করছি। অপেক্ষা করে আছি, ৫০ দিন পর এর বিশ্লেষণ করব। প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, ডিমনিটাইজেশন কালো টাকা, দুর্নীতি ও সন্ত্রাসবাদ দমনে কাজে আসবে। এর জন্যই আমি সমর্থন করেছিলাম। ৫০ দিন পর দেখব, যা বলা হয়েছিল তা ঘটল কি ঘটল না।

এর পরেই প্রধানমন্ত্রীর নাম না করে তাঁর দেওয়া প্রতিশ্রুতি নিয়ে কার্যত আক্রমণ করেন নীতীশ।  বলেন, “লোকে কথা দিয়েছিল কালো টাকা ফিরিয়ে আনবে আর প্রত্যেকের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ১৫ লক্ষ টাকা করে জমা দেওয়া হবে। কই, এ সব তো কিছুই হল না।”

“নির্বাচনের সময় তো অনেক বড়ো বড়ো প্রতিশ্রুতি দেওয়া হল, বেকাররা কাজ পাবে, কালো টাকা ফিরিয়ে আনা হবে। কোথায় গেল সে সব কথা? কোথায় চাকরি? কোথায়ই বা কালো টাকা?” – প্রশ্ন নীতীশের।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here