খবর অনলাইন ডেস্ক: বৃহস্পতিবার থেকেই টেলিভিশন তৈরিতে ব্যবহৃত মূল উপদানগুলির উপর ৫ শতাংশ বেসিক কাস্টমস ডিউটি বা আমদানি শুল্ক কার্যকর করল কেন্দ্র। বুধবারের একটি নির্দেশিকায় জানানো হয়, দেশীয় উৎপাদনকে আরও এক ধাপ এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য এই আমদানি শুল্ক আরোপের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সেন্ট্রাল বোর্ড অব ইনডাইরেক্ট ট্যাক্সেস অ্যান্ড কাস্টমস (CBIC) বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, এলসিডি (LCD) এবং এলইডি (LED) টিভি-তে ব্যবহৃত উপদানগুলির আমদানির উপর ৫ শতাংশ শুল্ক কার্যকর হবে। চিপস, প্রিন্টেড সার্কিট বোর্ড অ্যাসেমব্লি এবং গ্লাস বোর্ডগুলিতে ওই শুল্ক কার্যকর হবে।

সরকারি ভাবে সম্প্রতি আমদানির উদ্দেশে সীমাবদ্ধ পণ্যগুলির মধ্যে টেলিভিশন সেটকেও ফেলা হয়েছে। এ বার এলইডি বা এলসিডি প্যানেলগুলিতে ব্যবহৃত নির্দিষ্ট উপাদানগুলির শুল্ক শূন্য থেকে ৫ শতাংশ পর্যন্ত বাড়িয়ে দেওয়া হল।

স্থানীয় পণ্য ব্যবহারে উৎসাহ দেওয়া এবং স্থানীয়স্তরে বিভিন্ন পণ্যের উৎপাদনে গতি বাড়াতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানা যায়। এর আগে ২০১৭ সালের ডিসেম্বর মাসে টেলিভিশন সেট আমদানিতে ২০ শতাংশ শুল্ক কার্যকর হয়েছিল। এ বছরের জুলাইয়ের শেষ থেকে টেলিভিশন আমদানি সীমাবদ্ধ বিভাগে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

সব মিলিয়ে টিভির দাম সাময়িক ভাবে বেড়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। একটি মহলের তরফে দাবি করা হয়েছিল, এর ফলে টিভির দাম দেড় হাজার টাকা পর্যন্ত বেড়ে যেতে পারে। অন্য একটি সূত্রে দাবি, নতুন শুল্কের জন্য সর্বোচ্চ আড়াইশো টাকা পর্যন্ত বাড়তে পারে টিভির দাম। তবে বিষয়টি এখনও স্পষ্ট নয়। টিভির নির্দিষ্ট যন্ত্রাংশের উপর ৫০ শতাংশ আমদানি শুল্ক কার্যকর হওয়ায়, দাম ঠিক কতটা বাড়বে, সেটা এ বার বোঝা যেতে পারে।

প্রসঙ্গত, স্থানীয় স্তরে উৎপাদনে উৎসাহিত করতে কেন্দ্রীয় সরকার ১০টি ক্ষেত্রে বিশেষ পদক্ষেপ নিয়েছে। এক দিকে যেমন ঘরোয়া উৎপাদনকারীকে কর ছাড় দেওয়া সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, তেমনই ওই একই পণ্য বিদেশ থেকে আমদানি করার ক্ষেত্রে শুল্ক বৃদ্ধি এবং সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়তে পারেন: ফের দেড় লক্ষ কোটির আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণার পরিকল্পনা কেন্দ্রের

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন