Connect with us

শিল্প-বাণিজ্য

শুক্রবার রাত ১১.৫৯টার মধ্যে বকেয়া মেটানোর নোটিশ এয়ারটেল-ভোডাফোনকে

mobile tower

ওয়েবডেস্ক: ভোডাফোন আইডিয়া এবং ভারতী এয়ারটেলের মতো সংস্থাগুলি ডিপার্টমেন্ট অব টেলিকমিউনিকেশন (ডট)-এর বকেয়া না মেটানোয় তীব্র ভর্ৎসনার মুখোমুখি হয়েছে সুপ্রিম কোর্টে। শুক্রবারই শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, সংশ্লিষ্ট টেলি পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থাগুলিকে নোটিশ পাঠাতে পারবে মন্ত্রক। নির্দেশ মিলতেই নড়েচড়ে বসল ডট।

গত ২৪ অক্টোবর বকেয়া মেটানোর নির্দেশ দিয়েছিল আদালত। বলা হয়, ২৩ জানুয়ারির মধ্যে ওই বকেয়া টাকা মিটিয়ে দিতে হবে। তার পরেও সেই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে যায় টেলি পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থাগুলি। এ দিন সংস্থাগুলির উদ্দেশে সতর্কতাবার্তা দিয়ে সর্বোচ্চ আদালত জানিয়ে দেয়, এটাই শেষ এবং চরম সুযোগ। আগামী ১৭ মার্চের আগে যদি বকেয়া ৯২ হাজার কোটি টাকা না মেটানো হয়, তা হলে টেলিকম সংস্থাগুলির অধিকর্তাদের সশরীরে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেয় বিচারপতি অরুণ মিশ্র, বিচারপতি আবদুল নাজির এবং বিচারপতি এম আর শাহের বেঞ্চ।

এর পরই ডট-এর বিভিন্ন সার্কেল সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলির কাছে প্রাপ্য চেয়ে নোটিশ ধরাতে শুরু করে। এ দিনই উত্তরপ্রদেশ (পশ্চিম) টেলিকম সার্কেল সমস্ত টেলি পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থার উদ্দেশে বিজ্ঞপ্তি জারি করে। সেখানে বলা হয়, ১৪ ফেব্রুয়ারি মধ্যরাতের মধ্যেই বকেয়া মিটিয়ে দিতে হবে।

ওই নোটিশে বলা হয়েছে, “উপরে উল্লিখিত বিষয়ের প্রসঙ্গে, আপনাকে ১৪.০২.২০২০, রাত ১১:৫৯টার মধ্যে, ইতিবাচক ভাবে লাইসেন্স ফি এবং স্পেকট্রাম ব্যবহারের চার্জের বকেয়া অর্থ প্রদানের নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে”।

এ ব্যাপারে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একটি টেলি পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থা ইকনোমিক্স টাইমস-এর কাছে স্বীকার করে নিয়েছে, তারা এ ধরনের নোটিশ পেয়েছে।

ডট কর্তৃপক্ষ আগেই জানিয়েছেন, ভারতী এয়ারটেলের প্রায় ২৩,০০০ কোটি টাকা, ভোডাফোন আইডিয়ার ১৯,৮২৩.৭১ কোটি এবং রিলায়েন্স কমিউনিকেশনের কাছে ১৬,৪৫৬.৪৭ কোটি টাকা বকেয়া রয়েছে।

শিল্প-বাণিজ্য

কেন্দ্রীয় সরকার আগস্ট মাস পর্যন্ত কর্মীদের ইপিএফ বকেয়া জমা করবে, অনুমোদন মন্ত্রিসভায়

বুধবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই প্রস্তাব অনুমোদিত হয়।

provident fund

ওয়েবডেস্ক: কেন্দ্রীয় সরকার নিয়োগকারী সংস্থা ও কর্মচারী উভয়ের এমপ্লয়িজ প্রভিডেন্ট ফান্ডের (EPF) অবদানের বকেয়া টাকা তিন মাস জমা করবে। বুধবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই প্রস্তাব অনুমোদিত হয়।

অর্থাৎ চলতি বছরের আগস্ট মাস পর্যন্ত নিয়োগকারী সংস্থা এবং কর্মীদের হয়ে ইপিএফ অবদানের টাকা জমা করার প্রক্রিয়া অব্যাহত রাখবে।

এ দিন প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরোর (PIB) টুইটার হ্যান্ডলে জানানো হয়, “নিয়োগকারী এবং কর্মীদের পক্ষে ইপিএফ অবদানের ২৪ শতাংশ (নিয়োগকারী-১২+ কর্মী-১২ শতাংশ) আগামী আগস্ট মাস পর্যন্ত জমা করবে কেন্দ্রীয় সরকার। প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ যোজনা (PMGKY)/আত্মনির্ভর ভারত প্রকল্পে জুন থেকে আগস্ট পর্যন্ত এই খাতে সরকারের ব্যয় হবে ৪,৮৬০ কোটি টাকা। সরকারের এই উদ্যোগে ৭২ লক্ষ কর্মী উপকৃত হবেন”।

করোনাভাইরাস মহামারিতে (Coronavirus pandemic) চরম আর্থিক সংকটের মুখোমুখি হয়েছে ছোটো ব্যবসাগুলি। এর আগে গত মে মাসে নিয়োগকারী এবং কর্মীদের স্বস্তি দিয়ে পিএমজিকেওয়াই প্রকল্পে ইপিএফ অবদানে সরকারি সহায়তা ঘোষণা করে কেন্দ্র।

কারা পাবেন?

১০০ জন পর্যন্ত কর্মী রয়েছেন এবং ৯০ শতাংশ কর্মী প্রতি মাসে ১৫ হাজার টাকা পর্যন্ত মজুরি পান, এমন সংস্থাগুলির জন্য এই সরকারি সহায়তা দেওয়া হবে। ইপিএফওর অবদানের ধারাবাহিকতা বিচ্ছিন্ন হওয়ার ফলে কেউ যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয়, সে তাকিয়েই সিদ্ধান্তটি নেওয়া হয়েছিল।

এর আগেই কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন ঘোষণা করেন, বেসরকারি কর্মীদের বেতন থেকে আগামী তিন মাস ১০ শতাংশ হারে ইপিএফ কাটা হবে। অর্থাৎ, ১২ শতাংশের পরিবর্তে আগামী তিন মাস ১০ শতাংশ পিএফ কাটা হবে। এর ফলে হাতে বাড়তি বেতন পাবেন কর্মীরা। ১৫ হাজারের নীচে বেতন, এমন কর্মীদের ইপিএফের টাকা সরকার দেবে। অন্য দিকে সরকারি কর্মীদের পিএফ ১২ শতাংশ হারে কাটা হবে। এই খাতে সরকার ৬ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার আর্থিক সহায়তা দেবে।

বর্তমান নিয়মানুযায়ী, ১৫ হাজার টাকা পর্যন্ত বেতন পান, এমন কর্মীদের জন্য ইপিএফ-তে যোগ দেওয়া বাধ্যতামূলক। কর্মীরা নিজের বেসিক বেতনের ১২ শতাংশ ইপিএফ অ্য়াকাউন্টে জমা করেন। অন্য দিকে নিয়োগকারী ব্যক্তি অথবা সংস্থা আরও ১২ শতাংশ দেন। নিয়োগকারীর অবদানের ৩.৬৭ শতাংশ ইপিএফ অ্যাকাউন্টে যায়। বাকি ৮.৩৩ শতাংশ চলে যায় এমপ্লয়িজ পেনশন স্কিমে (EPS)।

কোভিড-১৯-এ বাড়তি সংযোজন

ইপিএফ গ্রাহকরা এককালীন নন-রিফান্ডেবল অ্যাডভান্স বা অ-ফেরতযোগ্য অগ্রিম হিসাবে নিজের জমা করা টাকার ৭৫ শতাংশ অথবা তিনমাসের বেতন তুলে নিতে পারেন। এই দু’টির মধ্যে যেটির পরিমাণ কম, সেটিই প্রত্যাহার করতে পারবেন ইপিএফও (EPFO) গ্রাহক।

যে প্রক্রিয়ার মাধ্যমে অন্যান্য সমস্ত অগ্রিম আবেদনের মঞ্জুরি দেওয়া হয়, সংশোধিত অনুচ্ছেদের অধীনে এই অগ্রিম একই প্রক্রিয়ায় পাওয়ায় যাবে। কোনো পৃথক পদ্ধতি নির্ধারিত হয়নি। সদস্যরা অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন। ইপিএফও কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, সমস্ত আবেদনই অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে গৃহীত হবে। অর্থাৎ, যত দ্রুত সম্ভব অ্যাকাউন্টে টাকা স্থানান্তর হবে।

Continue Reading

শিল্প-বাণিজ্য

হোয়াটসঅ্যাপ ব্যাঙ্কিংয়ে ১০ লক্ষ ব্যবহারকারী সংগ্রহ করল আইসিআইসিআই ব্যাঙ্ক

আগামী তিন মাসের মধ্যে এই পরিষেবা ব্যবহারকারীর সংখ্যা দ্বিগুণ করার লক্ষ্য নিয়েছে ব্যাঙ্ক।

মুম্বই: তার হোয়াটসঅ্যাপ ব্যাঙ্কিং (WhatsApp banking) প্ল্যাটফর্মে ১০ লক্ষ ব্যবহারকারী সংগ্রহের মাইলফলক অতিক্রম করল বেসরকারি ব্যাঙ্ক আইসিআইসিআই ব্যাঙ্ক (ICICI Bank)। ব্যাঙ্ক তিন মাস আগে হোয়াটসঅ্যাপে ব্যাঙ্কিং পরিষেবা শুরু করে।

এই প্ল্যাটফর্মে খুচরো ব্যাঙ্কিং গ্রাহকরা করোনাভাইরাস মহামারির সময় সতর্কতা মেনে বাইরে না বেরিয়ে বাড়ি থেকেই ব্যাঙ্কিং প্রয়োজনীয়তা পূরণ করতে সক্ষম হন। ব্যাঙ্ক এই অতি স্বল্পসময়ে গ্রাহকদের কাছ থেকে উৎসাহব্যঞ্জক প্রতিক্রিয়া পেয়েছে এবং আগামী তিন মাসের মধ্যে এই পরিষেবা ব্যবহারকারীর সংখ্যা দ্বিগুণ করার লক্ষ্য নিয়েছে।

কী কী পরিষেবা রয়েছে?

শুরুতে ব্যাঙ্ক সেভিংস অ্যাকাউন্ট ব্যালান্স, শেষ তিনটি লেনদেন, ক্রেডিট কার্ডের সীমা অর্থাৎ লিমিট, পূর্ব-অনুমোদিত তাৎক্ষণিক ঋণ অফারের বিশদ বিবরণ এবং ক্রেডিট এবং ডেবিট কার্ডকে লক / আনলক করার মতো পরিষেবাগুলি এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশন মেসেজের মাধ্যমে শুরু করে। সম্প্রতি, ব্যাঙ্ক কয়েক মিনিটের মধ্যে ইনস্ট্যান্ট সেভিংস অ্যাকাউন্ট খোলা, ব্যাঙ্কের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে থাকা খবরের কাগজ / ম্যাগাজিনগুলির পিডিএফ পড়ার সুবিধা, নিকটবর্তী প্রয়োজনীয় দোকানের অনুসন্ধান এবং ঋণ পরিশোধ স্থগিতের বিকল্প বেছে নেওয়ার মতো কয়েকটি নতুন বৈশিষ্ট্য এর সঙ্গে যুক্ত করেছে। ব্যাঙ্ক তার প্রবাসী গ্রাহকদের জন্যও এই পরিষেবা চালু করেছে।

এর মধ্যে অ্যাকাউন্ট ব্যালেন্স পরীক্ষা করা, শেষ তিনটি লেনদেন পর্যবেক্ষণ , লোন স্থগিতের জন্য আবেদন করা এবং ক্রেডিট কার্ডের লিমিট সংশোধন করার মতো পরিষেবাগুলি সর্বাধিক ব্যবহৃত হয়েছে।

এই পরিষেবা পাওয়ার জন্য যা করতে হবে

নম্বরটি সংরক্ষণ (সেভ) করুন ও বলুন ‘হাই’ (Hi) :

গ্রাহককে তার মোবাইল ফোনে আইসিআইসিআই ব্যাঙ্কের যাচাই করা হোয়াটসঅ্যাপ প্রোফাইল নম্বর ৮৬৪০০৮৬৪০০ সেভ করতে হবে। ব্যাঙ্কের সঙ্গে নিবন্ধিত নিজের মোবাইল নম্বর থেকে এই নম্বরটিতে লিখে পাঠান। প্রত্যুত্তরে ব্যাঙ্ক আপনাকে পরিষেবার তালিকা জানাবে।

পরিষেবা পাওয়ার জন্য কিওয়ার্ড টাইপ করুন :

পরিষেবার তালিকা থেকে প্রয়োজনীয় পরিষেবার কিওয়ার্ডটি টাইপ করুন। উদাহরণ হিসাবে বলা যায়, , ইত্যাদি। পরিষেবাটি তৎক্ষণাৎ গ্রাহককে তথ্য সরবরাহ করবে।

বিশদে জানতে দেখুন : https://www.icicibank.com/online-services/WhatsApp-Banking/index.page

Continue Reading

শিল্প-বাণিজ্য

পিপিএফের ৯টি নিয়ম, যা জেনে রাখা ভালো

currency

ওয়েবডেস্ক: পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড বা পিপিএফ (PPF) সাধ্যমতো নির্দিষ্ট মেয়াদে সঞ্চয়ের একটি সহজ মাধ্যম। ব্যাঙ্ক (Bank), পোস্ট অফিস (Post Office) বা অন্য কোনো আর্থিক সংস্থায় পিপিএফ অ্য়াকাউন্টে টাকা রেখে নির্দিষ্ট হারে সুদ পাওয়া সম্ভব। জেনে নেওয়া যাক, এই অ্যাকাউন্ট সম্পর্কে খুঁটিনাটি কয়েকটি তথ্য-

* ১৫ বছরের মেয়াদ পরিপূর্ণ হওয়ার পরেও পিপিএফ অ্যাকাউন্ট চালু রাখা যেতে পারে, কোনো রকমের টাকা জমা না-দিয়েও।

*. ১৫ বছরের পর অ্যাকাউন্ট চালু রাখলে নির্দিষ্ট হারের সুদের টাকা গ্রাহকের খাতায় জমা হবে।

* তবে একটা কথা মনে রাখা দরকার, কোনো গ্রাহক যদি মনে করেন, ১৫ বছরের পরেও চালু রাখা অ্যাকাউন্টে টাকা জমা করবেন, তা হলে ন্যূনতম পাঁচ বছর মেয়াদ পর্যন্ত তা চালু রাখতে হবে। অন্যথায় যে কোনো সময় টাকা তুলে নেওয়া যায়। সুবিধা নেওয়ার জন্য ফর্ম-এইচ জমা করতে হবে।

* পিপিএফ অ্যাকাউন্টের মেয়াদ বৃদ্ধির জন্য নির্দিষ্ট কোনো সংখ্যা বাঁধা নেই। অর্থাৎ, গ্রাহক যতবার চাইবেন, ততবার মেয়াদ বৃদ্ধি করতে পারবেন।

* পিপিএফ অ্যাকাউন্ট থেকে আংশিক সঞ্চয় তুলে নেওয়া সম্ভব, এমনকী মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে নির্দিষ্ট কারণ ব্যতিরেকে চাইলে অ্যাকাউন্ট বন্ধ করেও দিতে পারেন গ্রাহক।

* অ্যাকাউন্ট খোলার পর তৃতীয় থেকে ষষ্ঠ আর্থিক বছর পর্যন্ত আংশিক টাকা তোলা সম্ভব। তবে বছরে মাত্র একবারই টাকা তোলা যায়।

* আংশিক টাকা তোলা বা পিপিএফ অ্যাকাউন্ট থেকে নেওয়া ঋণের মেয়াদ ৩৬ মাস। আংশিক তোলা টাকা সম্পূর্ণ ভাবে করমুক্ত।

* অন্য দিকে মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে পিপিএফ অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিতে হলে দেখাতে হবে নির্দিষ্ট কয়েকটি কারণ। যদি গ্রাহকের সন্তান, স্ত্রী বা অন্য কোনো নির্ভরশীল সদস্যের রোগের চিকিৎসার জন্য টাকার দরকার পড়ে।

* সন্তানের দেশে বা বিদেশে গিয়ে পড়াশোনার জন্য অর্থের প্রয়োজন হলেও গ্রাহক মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিতে পারেন। তবে সমস্ত ক্ষেত্রেই উপযুক্ত নথি তথ্যপ্রমাণ হিসাবে জমা করতে হবে।

Continue Reading
Advertisement
বিনোদন6 hours ago

চলে গেলেন ‘শোলে’-র ‘সুরমা ভোপালি’ জগদীপ

দেশ9 hours ago

জম্মু-কাশ্মীরে বাবা এবং ভাই-সহ বিজেপি নেতাকে গুলি করে মারল জঙ্গিরা

ঝাড়গ্রাম9 hours ago

টানাপোড়েনের অবসান ঘটিয়ে, সক্রিয় রাজনীতিতে লালগড় আন্দোলনের মুখ ছত্রধর মাহাত

দেশ10 hours ago

৮৯টি অ্যাপ ‘নিষিদ্ধ’ করল ভারতীয় সেনা

বিনোদন10 hours ago

সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহত্যাকাণ্ডে সলমন খান, করন জোহরের বিরুদ্ধে মামলা খারিজ আদালতে

LPG
দেশ11 hours ago

উজ্জ্বলা যোজনায় বিনামূল্যের এলপিজি সিলিন্ডার পাওয়ার মেয়াদ বাড়ল আরও তিন মাস

রাজ্য12 hours ago

রেকর্ড বৃদ্ধি, রাজ্যে একদিনে আক্রান্ত প্রায় ১০০০

কলকাতা12 hours ago

অনলাইনে নয়, পড়ুয়াদের জন্য এই বিকল্প পথই বেছে নিয়েছে গড়িয়া স্টেশনের একটি স্কুল

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 days ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

কেনাকাটা3 days ago

রান্নাঘরের টুকিটাকি প্রয়োজনে এই ১০টি সামগ্রী খুবই কাজের

খবরঅনলাইন ডেস্ক : লকডাউনের মধ্যে আনলক হলেও খুব দরকার ছাড়া বাইরে না বেরোনোই ভালো। আর বাইরে বেরোলেও নিউ নর্মালের সব...

কেনাকাটা4 days ago

হ্যান্ড স্যানিটাইজারে ৩১ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

অনলাইনে খুচরো বিক্রেতা অ্যামাজন ক্রেতার চাহিদার কথা মাথায় রেখে ঢেলে সাজিয়েছে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের সম্ভার।

DIY DIY
কেনাকাটা1 week ago

সময় কাটছে না? ঘরে বসে এই সমস্ত সামগ্রী দিয়ে করুন ডিআইওয়াই আইটেম

খবর অনলাইন ডেস্ক :  এক ঘেয়ে সময় কাটছে না? ঘরে বসে করতে পারেন ডিআইওয়াই অর্থাৎ ডু ইট ইওরসেলফ। বাড়িতে পড়ে...

নজরে