Connect with us

শিল্প-বাণিজ্য

ফের ভাইরাসে কাবু ষাঁড়ের দৌড় শুরু! কিন্তু কত দিন?

Bull run

ওয়েবডেস্ক: মঙ্গলবার শেয়ার বাজারের টপ গেনার্স লিস্টের প্রথম দু’টি স্থানই দখল করে রইল দুই বেসরকারি ব্যাঙ্ক। ইন্ডাসইন্ড ব্যাঙ্ক (Indusind Bank) (২২.৫৬ শতাংশ) এবং অ্যাক্সিস ব্যাঙ্ক (Axis Bank) (১৯.৪৮ শতাংশ)। রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের মধ্যে এসবিআই এক দিনে ৬ শতাংশের বেশি বাড়লেও নিফটি ব্যাঙ্ক (Nifty Bank) ১০.৫১ শতাংশ (১,৮১৩.২০ পয়েন্ট) উপরে উঠে থিতু হয়েছে ১৯ হাজারের উপরে। অন্য দিকে সেনসেক্স এবং নিফটি ফিফটির ঊর্ধ্বগমনও এ দিন রেকর্ড গড়ে ফেলেছে। করোনাভাইরাস নিয়ে হতাশা বজায় থাকলেও শেয়ার বাজারে এই ‘বুল রান’ কত দিন বজায় থাকবে, এখন প্রশ্ন সেটাই।

বিএসই সেনসেক্স (BSE Sensex) ২,৪৭৬ পয়েন্ট বেড়ে ৩০,০৬৭ পয়েন্টে ঠেকেছে, অন্য দিকে নিফটি ফিফটি (Nify ৭০২ পয়েন্ট বেড়ে ফের ছুঁয়ে ফেলেছে ৮,৭৮৫ পয়েন্ট। করোনাভাইরাস (Coronavirus) মহামারীর জেরে ৪০ হাজার থেকে এক ধাক্কায় ২৫ হাজারে নেমে আসা সেনসেক্স এ দিন ফের ৩০ হাজার পয়েন্টের উপর তিথু হওয়ায় বিনিয়োগকারী থেকে শুরু করে বিশেষজ্ঞরাও বাজারের সুমতির ইঙ্গিত পাচ্ছেন। কী কারণে?

বিশেষজ্ঞদের মতে, আগামী সপ্তাহ থেকে লকডাউন কিছুটা সহজ করার প্রত্যাশা তৈরি হয়েছে। চলতি লকডাউনের মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা আগামী ১৪ এপ্রিল। কেন্দ্রের তরফে এই মেয়াদ বাড়ানো অথবা প্রত্যাহার নিয়ে কোনো স্থায়ী সিদ্ধান্ত ঘোষণা না করা হলেও সদর্থক ছবিটা ক্রমশ স্পষ্ট হচ্ছে। একই সঙ্গে যুক্ত হয়েছে বিশ্বের অন্যান্য বৃহত্তম স্টক এক্সচেঞ্জগুলির ইতিবাচক গতিবিধি। অন্য দিকে বিদেশি প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের বিনিয়োগের কৌশল পরিবর্তনের ফলে বাজারের মনোভাব কিছুটা হলেও পুনরুদ্ধার সম্ভব হয়েছে। কিন্তু এত কিছুর মাঝে আশঙ্কাও রয়েছে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, করোনাভাইরাস সংকট এখনও সম্পূর্ণ ভাবে নিয়ন্ত্রণের মধ্যে আসেনি। স্বাভাবিক ভাবেই এই আকস্মিক প্রত্যাবর্তন টিকিয়ে রাখার খুব একটা সম্ভাবনা নেই। ফলে এই এক দিনের উত্থানকে মোটেই ঘুরে দাঁড়ানোর মাইলফলক হিসাবে চিহ্নিত করা যাচ্ছে না। বাজারের অস্থিরতা ততদিন বজায় থাকবে, যতদিন না কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা নিয়ন্ত্রণের মধ্যে না আসে। কারণ, এই বিষয়টির উপরই নির্ভর লকডাউনের ভবিষ্যৎ।

আরও পড়ুন: কোভিড-১৯ হতাশার মাঝেই শেয়ার বাজারে বড়োসড়ো ঝাঁকুনি

অর্থাৎ, অস্থিরতার আবহকে মোটেই এড়িয়ে যাওয়া যাচ্ছে না। বাজার এখন এতটাই বাঁকা পথে চলছে যে পুরো রাস্তাই ঝুঁকিপূর্ণ। যদিও নিফটি যদি এই করোনা-আশঙ্কার মাঝেও ৯ হাজারের উপরে নিয়ে যেতে পারে, তা হলে আগামী দিনের জন্য তা যথেষ্ট ইতিবাচক।

শিল্প-বাণিজ্য

ফের সেভিংসে সুদের হার কমাল এসবিআই

SBI

ওয়েবডেস্ক: দেশের বৃহত্তম রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া (SBI) ফের সেভিংস অ্যাকাউন্টের আমানতের উপর সুদের হার হ্রাস করল। ব্যাঙ্ক জানিয়েছে, নতুন সুদের হার ৩১ মে, ২০২০ থেকে কার্যকর হয়েছে।

এসবিআইয়ের সেভিংস ডিপোজিট অ্যাকাউন্টে (saving deposits accounts) এর আগে সুদের হার কমিয়ে বার্ষিক ২.৭৫ শতাংশ করা হয়েছিল। সে বার ২৫ বেসিস পয়েন্ট কমানো হয়। ফের তা থেকে ৫ বেসিস পয়েন্ট কমিয়ে করা হল ২.৭ শতাংশ। ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত সেভিংসের জন্য জন্য এই সুদের হার কার্যকর করা হয়েছে।

সম্প্রতি সমস্ত আকারের সেভিংসের জন্য সমান সুদের হার ধার্য্য করেছে এসবিআই। ফলে এক লক্ষ টাকার বেশি সেভিংসের জন্যও সুদের হার করা হয়েছে বার্ষিক ২.৭ শতাংশ।

প্রসঙ্গত, এই নিয়ে মে মাসে দু’বার সুদের হার কমালো এসবিআই। গত সপ্তাহেই স্থায়ী আমানত বা ফিক্সড ডিপোজিটে সুদের হার কমায় ব্যাঙ্ক।

পড়তে থাকুন

শিল্প-বাণিজ্য

বিমার দাবি নিষ্পত্তির জন্য ৩০ জুন পর্যন্ত অনলাইনে এলআইসির নথি জমার সুবিধা

LIC

ওয়েবডেস্ক: করোনাভাইরাস মহামারি (Coronavirus pandemic) এবং লকডাউনের (Lockdown) জেরে তৈরি হওয়া অস্বাভাবিক পরিস্থিতিতে গ্রাহকের বিমা নিষ্পত্তির দাবি জানাতে অনলাইন পরিষেবা দিচ্ছে এলআইসি (LIC)।

রাষ্ট্রায়ত্ত বিমা সংস্থা এলআইসি জানিয়েছে, গ্রাহক নিজের বিমার নিষ্পত্তি দাবি জানানোর জন্য পলিসি, কেওয়াইসি তথ্য, ডিসচার্জ ফর্ম এবং আনুষঙ্গিক নথিগুলি স্ক্যান করে ই-মেল করতে পারেন। একই ভাবে সারভাইভাল বেনেফিটের ক্ষেত্রেও এই পদ্ধতি অনুসরণ করা যাবে।

এলআইসির বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত নিজের সার্ভিসিং শাখায় নথিগুলি ই-মেল করা যাবে।

কী ভাবে অনলাইনে আবেদন জানানো যাবে?

এলআইসির ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী, পলিসিধারী ই-মেলের মাধ্যমে দাবি নিষ্পত্তির আবেদন জানাতে পারবেন। ই-মেলটি পাঠাতে হবে [email protected] ঠিকানায়। অর্থাৎ, নিজের সার্ভিসিং ব্রাঞ্চের কোড Branch code-এর জায়গায় বসাতে হবে। কারও সার্ভিসিং ব্রাঞ্চের কোড যদি ৮৮৩ (আনুমানিক) হয়, তা হলে তিনি ই-মেলটি পাঠাবেন claims.bo<883>@licindia.com ঠিকানায়।

অন্যতম কয়েকটি শর্ত

১. আবেদনের নিষ্পত্তি করা হবে সংশ্লিষ্ট শাখার মাধ্যমে।

২. যেগুলিতে ডুপ্লিকেট পলিসি জারি করা হয়নি।

৩. সারভাইভাল বেনেফিট ক্লেমের ক্ষেত্রে গ্রস এসবি অ্যামাউন্ট ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত হতে হবে।

৪. দাবি নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে পলিসির সাম অ্যাসিউরড ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত হতে হবে।

বিস্তারিত দেখে নিন এখানে: licindia.in

পড়তে থাকুন

গাড়ি ও বাইক

অনলাইনে মোটর বাইক বিক্রি শুরু করল সুজুকি

নয়াদিল্লি: অনলাইনে বিক্রি এবং সার্ভিস প্ল্যাটফর্ম চালু করল সুজুকি মোটরসাইকেল ইন্ডিয়া প্রাইভেট লিমিটেড (Suzuki Motorcycle India Pvt Ltd)। ক্রেতার দোরগড়ায় বাইক এবং একই সঙ্গে আনুষঙ্গিক পরিষেবা পৌঁছে দিতে মঙ্গলবার এই নতুন উদ্যোগের উদ্বোধন করে সংস্থা।

সংস্থার সরকারি ওয়েবসাইট থেকে ক্রেতা এই সুবিধা নিতে পারবেন। সেখানে নতুন বাইক কেনা, টেস্ট-রাইড এবং কেনার পরে সার্ভিস সমস্ত কিছুই একটি ক্লিকেই মিলবে বলে বিবৃতিতে জানিয়েছে সংস্থা।

একই সঙ্গে টোল-ফ্রি নম্বরে ফোন করে ক্রেতা নিজের নিকটবর্তী ডিলারের সঙ্গে কথা বলতে পারবেন। ডিলারের সঙ্গে কথা বলে ক্রেতা চাইলে তাঁর সঙ্গে দেখা করতেও পারবেন।

সংস্থা জানিয়েছে, ক্রেতা এবং কর্মীদের সুরক্ষার কথা বিবেচনা করেই অনলাইন বুকিং, হোম ডেলিভারি এবং সার্ভিসের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। কোভিড-১৯ পরবর্তী পরিস্থিতিতে ক্রেতার চাহিদা পূরণে যাতে কোনো রকমের খামতি না থাকে, সে দিকে তাকিয়েই এই নতুন পরিকল্পনা। আপনার শহরে পাওয়া যাচ্ছে কিনা, দেখতে পারেন এখানে ক্লিক করে suzukimotorcycle.co.in

পড়তে থাকুন

নজরে