মুদ্রাস্ফীতির গতিপথ পরিবর্তনে জোর দিচ্ছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক, তা হলে কি আবার বাড়বে সুদের হার

0

মুম্বই: মুদ্রাস্ফীতির হার সর্বোচ্চ। যা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্কের (RBI) ছয় সদস্যের মুদ্রানীতি কমিটি (MPC)। লক্ষ্যমাত্রায় পৌঁছানোর জন্য দরকার মূল্যবৃদ্ধির গতিপথ পরিবর্তন। আপাতত সেই লক্ষ্যকে সামনে রেখেই পরিকল্পনা নির্ধারণ করতে চায় কমিটি। বুধবার প্রকাশিত কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের রিপোর্টে এমনটাই বলা হয়েছে।

কী বলছে আরবিআই-এর এমপিসি?

এমপিসি-র বৈঠকের কার্যবিবরণীতে বলা হয়েছে, বিশ্ব জুড়ে ভূ-রাজনৈতিক পরিস্থিতি এবং তার ফলে সৃষ্টি হওয়ার মূল্যবৃদ্ধির ফলে দেশের অভ্যন্তরীণ মুদ্রাস্ফীতিতে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে। এই পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে যেমন সময় লাগবে, তেমনই প্রয়োজন সুশৃঙ্খল নীতির।

এমপিসি সদস্যদের মতে, ২০২২ সালের মার্চ থেকে তীব্র হয়েছে মুদ্রাস্ফীতির চাপ। আন্তর্জাতিক সরবরাহ স্থিতিশীল না হলে ২০২২-২৩ আর্থিক বছরে যা উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়াবে বলে আশংকা করা হচ্ছে। স্বাভাবিক ভাবেই অর্থনৈতিক বৃদ্ধির লক্ষ্য অর্জনে মুদ্রাস্ফীতির গতিপথ পরিবর্তন করতে হবে। এই বিষয়টিকেই এখন অগ্রাধিকারের তালিকায় রাখছে কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক।

মুদ্রাস্ফীতিতে লাগাম টানতে ইতিমধ্যেই বিশ্বের বেশ কিছু দেশ মুদ্রানীতি কঠোর করছে। এমপিসি সদস্যদের আশা, আন্তর্জাতিক মূল্যবৃদ্ধির প্রভাব থেকে দেশীয় ভোক্তাদের স্বস্তি দিতে যথোপযুক্ত আর্থিক ব্যবস্থা নিতে হবে। সরবরাহ স্বাভাবিক করতে পারলে চাপ কমবে গ্রাহকের উপর।

আরবিআই গভর্নর শক্তিকান্ত দাস বলেছেন, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে একটা ভৌগলিক অঞ্চলের মুদ্রাস্ফীতির চাপ সারা বিশ্বেই ছড়িয়ে পড়েছে। যা অব্যাহত থাকলে দীর্ঘমেয়াদি মুদ্রাস্ফীতির ঝুঁকি বাড়বে। এই কারণেই গত এপ্রিল থেকে ভারতে মূল্যবৃদ্ধির হার শেষ কয়েক বছরের শীর্ষে পৌঁছেছে। পাশাপাশি বেশ কিছু ঘরোয়া কারণও রয়েছে। যেমন, তীব্র তাপপ্রবাহে ফসল উৎপাদনে ক্ষতির কারণে খাদ্যপণ্যের দাম উল্লেখযোগ্য ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে।

আট বছরের শীর্ষে মুদ্রাস্ফীতি

গত মে মাসে খুচরো মূল্যবৃদ্ধি পৌঁছোয় ৭.০৪ শতাংশে। যা এপ্রিলে বেড়ে দাঁড়ায় ৭.৭৯ শতাংশ। এটাই শেষ আট বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ। তবে, টানা ৩২ মাস ধরে মুদ্রাস্ফীতির হার আরবিআই-এর মধ্যমেয়াদী লক্ষ্যমাত্রার ৪ শতাংশের উপরে রয়েছে। পাঁচ মাস ধরে যা ২-৬ শতাংশ সহনশীলতা মাত্রার ৬ শতাংশ ঊর্ধ্বসীমা দিয়ে যাচ্ছে।

পরিস্থিতি বিবেচনায় রেখে গত ৮ জুন আবার এক বার মূল সুদের হার বাড়িয়েছে আরবিআই। ৫০ বেসিস পয়েন্ট বাড়িয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের রেপো রেট করা হয়েছে ৪.৯০ শতাংশ। তবে এখানেই শেষ নয়, ওয়াকিবহাল মহলের মতে, আগামী আগস্টে আরেক দফায় রেপো রেট বাড়াতে পারে আরবিআই।

২০২০ সালের মে মাস থেকে রেপো রেট বাড়ানো স্থগিত রেখেছিল কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক। দীর্ঘ সময় পরে আচমকা ৪ মে প্রথম বার বৃদ্ধি। তার পর ফের জুন মাসে। বিশ্লেকদের মতে, আগস্টের মধ্যে সবমিলিয়ে সুদের হার বাড়তে পারে .৭৫ শতাংশ। সেটা করা হবে ধাপে ধাপে। তবে পুরোটাই নির্ভর করছে আরবিআই-এর মুদ্রানীতি কমিটির সিদ্ধান্তের উপর।

আরও পড়তে পারেন:

অসুস্থতা কাটেনি, ইডির কাছে আপাতত হাজিরা থেকে অব্যাহতি চাইলেন সনিয়া গান্ধী

ইস্তফাপত্র তৈরি, বিধায়ক-বিদ্রোহের আবহে স্পষ্ট বার্তা উদ্ধব ঠাকরের

এসএসসিতে তদন্তে ইডি-ও, আরও অস্বস্তিতে পার্থ চট্টোপাধ্যায়

নবম-দশমে শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতি মামলা, এসএসসি-র চেয়ারম্যানকে সশরীরে হাজিরার নির্দেশ হাইকোর্টের

চার বছরেও নেওয়া হয়নি পদক্ষেপ, স্কুলের মামলায় রাজ্য পুলিশকে ভর্ৎসনা হাইকোর্টের

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন