হোম লোন না কি পার্সোনাল লোন, কোনটা বেশি সাশ্রয়কারী?

0
Loan
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: আকাঙ্ক্ষা আর আয়ের মধ্যে বিস্তর ফারাক? চিন্তা নেই, আপনার পাশে এসে দাঁড়াবে ব্যাঙ্ক অথবা কোনো না কোনো আর্থিক প্রতিষ্ঠান। দামি মোবাইল বা টিভি কেনার শখ মেটানোর পাশাপাশি আপদকালীন পরিস্থিতিতে অর্থনৈতিক সংকট কাটাতেও পার্সোনাল লোন বা ব্যক্তিগত ঋণ সহায়ক ভূমিকা নিয়ে থাকে। আচমকা অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি বা আপনার উপর নির্ভরশীল কারও বিয়ের খরচ জোগাতেও ব্যক্তিগত ঋণের কারবারিরা হাজির রয়েছে। ঋণের পরিমাণ একটু বেশি কি কম, জরুরি অবস্থায় বিচার করার সময় থাকে কোথায়?

অন্য দিকে বাড়ির স্বপ্ন পূরণ করতে হলে হোম লোন বা গৃহঋণের দ্বারস্থ হতে হয়ে সিংহভাগ মানুষকেই। সময়ের সঙ্গে আয় বাড়ে কিন্তু এককালীন এতগুলো টাকা বের করা সবার পক্ষে সম্ভব হয় না।হ্যাঁ, এটা ঠিক, যত দিন না হোম লোন পরিশোধ হচ্ছে, তত দিন বাড়ি বা ফ্ল্যাটের উপর সম্পূর্ণ অধিকার আসে না। কিন্তু টেনেটুনে ঋণ শোধ হয়ে গেলে তো স্বপ্নের বাড়ির মালিক শুধু আপনিই।

অর্থাত্‍, বর্তমানের যুগপোযোগী এই দুই ঋণের তুল্যমূল্য গ্রহণযোগ্যতা বা কার্যকারিতা অত্যন্ত জরুরি হয়ে উঠেছে। মূলত দু’-তিনটি কারণে এই দুই ঋণের তারতম্য সহজেই চোখে পড়ে। প্রথমত, গৃহঋণের ক্ষেত্রে সুদের হার অনেকটাই কম হয়ে থাকে ব্যক্তিগত ঋণের থেকে। গৃহঋণে সুদের হার যেখানে শুরু হচ্ছে বার্ষিক ৮.৭৫ শতাংশ থেকে সেখানে ব্যক্তিগত ঋণের সুদের হার প্রায় ১৪ শতাংশ।

দ্বিতীয়ত, গৃহঋণ পরিশোধের সময়সীমা ব্যক্তিগত ঋণের থেকে অনেক বেশি। আবার দুই ঋণের পরিমাণের ব্যাপারেও একটা আলাদা মাপকাঠি রয়েছে। গৃহঋণে যে পরমাণ অর্থ ধার পাওয়া যাবে ব্যক্তিগত ঋণের ক্ষেত্রে তা মোটেই পাওয়া সম্ভব নয় একজন সাধারণ আয়ের মানুষের পক্ষে।

কিন্তু এ কথাও ঠিক, গৃহঋণ মানেই যত দিন ঋণ পরিশোধ হচ্ছে তত দিন ওই সম্পত্তির উপর ঋণপ্রদানকারী ব্যাঙ্ক বা সংস্থার অংশীদারিত্ব থেকেই যায়। কিন্তু সুবিধাটা অন্য জায়গায়। গৃহঋণে আয়করে ছাড় পাওয়া গেলেও ব্যক্তিগত ঋণের ক্ষেত্রে তা মোটেই প্রযোজ্য নয়।

ব্যক্তিগত ঋণে সঠিক সময়ে কিস্তির টাকা দিতে না পারলেই জরিমানার বোঝা চেপে যায় খুব দ্রুত। কোনো কোনো ক্ষেত্রে ৩-৪ শতাংশ পর্যন্ত জরিমানা হতে পারে। কিন্তু ফ্লোটিং রেট গৃহঋনের জন্য জরিমানা নেই, তবে ফিক্সড রেট গৃহঋণে রয়েছে এই জরিমানা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.