ব্যাঙ্ক ঝাঁপ ফেললে স্থগিতাদেশের ৯০ দিনের মধ্যে গ্রাহকের হাতে ৫ লক্ষ টাকা, বড়ো ঘোষণা কেন্দ্রের

0
কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন। প্রতীকী ছবি

খবর অনলাইন ডেস্ক: ব্যাঙ্কে টাকা আমানতকারীদের জন্য বড়োসড়ো স্বস্তি!

এ বার কোনো ব্যাঙ্ক দেউলিয়া হয়ে গেলে অথবা আর্থিক প্রতারণার সম্মুখীন হলে স্থগিতাদেশের ৯০ দিনের মধ্যে পাঁচ লক্ষ টাকার বিমা পাবেন গ্রাহক। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভায় ডিপোজিট ইন্সুরেন্স ক্রেডিট গ্যারান্টি কর্পোরেশন (DICGC) আইনের সংশোধনী পাশের মাধ্যমে এ বিষয়টিই নিশ্চিত করা হল বুধবার।

এ দিন সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর (Anurag Thakur) বলেন, কোনো ব্যাঙ্কে আর্থিক লেনদেনের উপর ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক (RBI) মোরাটোরিয়াম জারি করলে বিপাকে পড়তে হয় ওই ব্যাঙ্কের গ্রাহকদের। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভার বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, এ বার থেকে কোনো ব্যাঙ্কে আরবিআই-এর স্থগিতাদেশ জারি হওয়ার ৯০ দিনের মধ্যে গ্রাহক নিজের গচ্ছিত টাকার উপর ৫ লক্ষ টাকার বিমা পাবেন।

কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন (Nirmala Sitharaman) বলেন, “৯৮.৩ শতাংশ ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট এই আইনের আওতায় সম্পূর্ণ সুরক্ষিত থাকবে”।

Shyamsundar

ডিআইসিজি হল ভারতের রিজার্ভ ব্যাঙ্কের একটি সহযোগী সংস্থা, যারা আমানতের উপর বিমা সুরক্ষা সরবরাহ করে। এই আইনেরটি পঞ্জাব অ্যান্ড মহারাষ্ট্র সমবায় (PMC) ব্যাঙ্ক বা ইয়েস ব্যাঙ্ক এবং লক্ষ্মী বিলাস ব্যাঙ্কের মতো ব্যাঙ্কগুলির আমানতকারীদের চাপমুক্ত করতে সাহায্য করবে।

এই ডিপোজিট ইন্সুরেন্স ব্যবস্থা দেশের সমস্ত সরকারি, বেসরকারি, সমবায় এবং বিদেশি ব্যাঙ্কের নির্দিষ্ট কিছু বিভাগ ব্যতীত সব ক্ষেত্রেই গ্রাহক সুরক্ষাকে মজবুত করবে।

কোনো ব্যাঙ্কের উপর আরবিআই-এর স্থগিতাদেশ জারি হলে সেখানে গচ্ছিত টাকা তুলতে পারেন না গ্রাহকেরা। স্বাভাবিক ভাবেই নয়া আইনে ৯০ দিনের মধ্যে বিমার টাকা হাতে মিললে গ্রাহক অনেকটাই স্বস্তি পাবেন।

আরও পড়তে পারেন: কোভিড সংকট মোকাবিলায় বাড়তি নোট ছাপবে কি সরকার? সংসদে জবাব দিলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন