নয়াদিল্লি: দেশের কিছু জায়গায় বৈদ্যুতিক দু’চাকার গাড়িগুলিতে বেশ কয়েকটি অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার পরে নতুন নির্দেশিকা জারি করল কেন্দ্রীয় সরকার। বৈদ্যুতিক গাড়ির ক্ষেত্রে এই নিয়ম কার্যকর হবে ১ অক্টোবর থেকে।

বৃহস্পতিবার সরকারি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বৈদ্যুতিক গাড়ির ব্যাটারি-সহ যাবতীয় পরীক্ষা সঠিক ভাবে করাতে হবে। বৈদ্যুতিক যানবাহনগুলিকে (EV) অভ্যন্তরীণ সেল শর্ট সার্কিটের কারণে ব্যাটারি কোষ এবং তাপীয় প্রসারণ সম্পর্কিত অতিরিক্ত সুরক্ষা প্রয়োজনীয়তাগুলি মেনে চলতে হবে।

একটি সরকারি বিবৃতি অনুযায়ী, চারটি বা তার কম চাকার এবং একটি ইলেকট্রিক পাওয়ার ট্রেন-সহ মোটর গাড়ির জন্য স্বয়ংচালিত শিল্পের মান (AIS) সংশোধন করা হয়েছে। বৈদ্যুতিক দুই, তিন এবং চার চাকার গাড়ি, যাত্রীর পাশাপাশি পণ্যবাহী গাড়িগুলিও নতুন নিয়মের আওতায় আসবে।

সংশোধনীগুলির মধ্যে বিভিন্ন রকমের অতিরিক্ত সুরক্ষা প্রয়োজনীয়তা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। যেগুলির মধ্যে রয়েছে ব্যাটারি সেল, ব্যাটারি ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (বিএমএস), অন-বোর্ড চার্জার, ব্যাটারি প্যাকের নকশা, অভ্যন্তরীণ সেল শর্ট সার্কিটের কারণে আগুনের কারণে তাপীয় প্রসারণ।

ইভি-র নিরাপত্তার জন্য, নতুন নিয়মগুলি মেনে চলা বাধ্যতামূলক। বলা হয়েছে, সিস্টেমে “সেফটি ফিউজ” দিতে বাধ্য নির্মাতা সংস্থা। যাতে অত্যধিক তাপ উৎপাদন বা উচ্চ প্রবাহ প্রবাহ হলে ব্যাটারি অবিলম্বে সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

পুরো ব্যাটারি সিস্টেমে কোনো রকমের ত্রুটি দেখা দিলে তা দ্রুত সনাক্ত করার জন্য চারটি বাধ্যতামূলক সেন্সর থাকার কথা বলা হয়েছে নির্দেশিকায়। যা স্বয়ংক্রিয় ভাবে গাড়ির কনসোলে প্রতিফলিত হবে এবং এর ফলে ড্রাইভারকে কাজ করার জন্য সতর্ক করবে।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন