১০ মিনিট বাড়তি কাজ করলেও ৩০ মিনিটের জন্য ওভারটাইমের টাকা পাবেন কর্মচারীরা

0

খবর অনলাইন ডেস্ক: বেতন বিধি বিলের (Wage Code Bill) আওতায় কর্মচারীদের জন্য কাজের সময়, বেতন কাঠামো, বেতনের হাতে পাওয়া অংশ, প্রভিডেন্ট ফান্ড এবং গ্র্যাচুইটি সম্পর্কে দেখা দিতে চলেছে একাধিক পরিবর্তন।

২০১৯ সালে সংসদে পাশ হয়েছিল কোড অন ওয়েজ বিল ২০১৯। গত ১ এপ্রিল থেকে কেন্দ্রীয় সরকার এই নতুন বিলটি কার্যকর করতে চাইলেও বিবিধ কারণে তা পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে। এগুলির মধ্যে অন্যতম দু’টি কারণ হল, যাতে রাজ্যগুলি আরও বেশি সময় পায় এবং মানব সম্পদ নীতি পরিবর্তনের জন্য সংস্থাগুলিও আরও সময় পায়।

সর্বাধিক ১২ ঘণ্টার কাজের সময়, অতিরিক্ত সময় ওভারটাইম

নতুন খসড়া অনুযায়ী, এক দিনে সর্বাধিক যে কাজের সময়ের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে যে তা হল ১২ ঘণ্টা। নিয়মানুযায়ী, কোনো কর্মচারী ১৫ থেকে ৩০ মিনিটের জন্য অতিরিক্ত কাজ করলেও এটি ৩০ মিনিটের ওভারটাইম হিসাবে গণ্য হবে। যার জন্য কর্মীদের অতিরিক্ত বেতন দেওয়া হবে। আগের নিয়মেও এ বিষয়ে আলাদা হিসেব রয়েছে। যদিও সে ক্ষেত্রে কোনো কর্মচারী ৩০ মিনিটের কম সময় ধরে কাজ করলে তা ওভারটাইম হিসাবে বিবেচিত হয় না।

এ ছাড়া খসড়া নিয়মানুযায়ী, যে কোনো কর্মচারী এক টানা ৫ ঘণ্টা কাজ করলে, তাঁকে অবশ্যই আধ ঘণ্টার বিশ্রামের সময় দিতে হবে। এমনকী ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে এক টানা কাজ করা নিষিদ্ধ।

গ্র্যাচুইটি এবং প্রভিডেন্ট ফান্ডে পরিবর্তন

নতুন নিয়মে প্রভিডেন্ট ফান্ড (PF) এবং কর্মীদের গ্র্যাচুইটির (employees’ Gratuity) অংশের পরিমাণ বাড়ানো হবে, বেতন কাঠামোর পরিবর্তনের মানে কর্মীদের গ্র্যাচুয়িটি এবং পিএফ-এ অংশীদারিত্ব বৃদ্ধি পাবে। উলটো দিকে কোনো কর্মীর হাতে পাওয়া বেতনের পরিমাণ কমে যাবে।

এ ছাড়া ভাতার পরিমাণ মোট বেতনের সর্বাধিক ৫০ শতাংশ হবে। যাঁদের প্রাথমিক বেতন (basic salary) ইতিমধ্যে ৫০ শতাংশ বা তার বেশি, তাঁদের উপর এই নিয়মের কোনো প্রভাব পড়বে না। তবে যাঁদের প্রাথমিক বেতন ৫০ শতাংশেরও কম, তাঁদের ক্ষেত্রে হাতে পাওয়া বেতনের পরিমাণ বদলে যাবে।

যেহেতু প্রাথমিক বেতনের ভিত্তিতেই পিএফ অবদানের পরিমাণ নির্ধারিত হয়, তাই নতুন নিয়মে পিএফ-এ জমা করা টাকার পরিমাণও বাড়বে। ওয়াকিবহাল মহলের মতে, নতুন বিধি কার্যকর হলে অপেক্ষাকৃত বেশি বেতনের কর্মচারীদের ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। একই সঙ্গে পিএফ এবং গ্র্যাচুইটি বৃদ্ধির কারণে নিয়োগকারী সংস্থাগুলির ব্যয়ও বৃদ্ধি পেতে পারে। কারণ সংস্থাগুলিরও তরফেও কর্মীদের এই খাতগুলিতে আনুপাতিক ভাবে অবদান জমা করা হয়।

উল্টো দিকে, গ্র্যাচুইটি এবং পিএফ-এ অবদান বৃদ্ধির ফলে অবসরকালীন সুবিধার পরিমাণও আনুপাতিক ভাবে বাড়বে।

আরও পড়তে পারেন: Covid 19 Pandemic: কোভিডের টিকা ও অক্সিজেন উৎপাদনের সামগ্রীতে আমদানি শুল্ক মকুব কেন্দ্রের

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন