Connect with us

শিল্প-বাণিজ্য

ভুলে ভরা অর্থনৈতিক পদ্ধতির দুর্বলতাগুলোকে স্পষ্ট করেছে করোনা, বললেন মহম্মদ ইউনুস

নিজের সুচিন্তিত মতামত ব্যক্ত করলেন নোবেল শান্তি পুরস্কার জয়ী ‘ক্ষুদ্রঋণ ধারণা’র প্রবর্তক।

মহম্মদ ইউনুস এবং রাহুল গান্ধী। প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: বাংলাদেশের নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ মহম্মদ ইউনুস শুক্রবার বললেন, করোনাভাইরাস মহামারি বিশ্বকে একটি নতুন দিশা তৈরির দিকে ঠেলে দিয়েছে।

তিনি বলেন, “আক্রমণাত্মক ভাবে” সাহসী সিদ্ধান্তগুলি প্রতিফলিত করার এবং গ্রহণের সুযোগ করে দিয়েছে এই মহামারি। এখন এমন একটি বিশ্ব গড়ে তোলার লক্ষ্য নিয়ে এগোতে হবে, যেখানে কোনো বিশ্ব উষ্ণায়ন নেই, সম্পদের একত্রীকরণ নেই এবং বেকারত্ব নেই।

ইউনুস যা বললেন…

কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীর সঙ্গে এ দিনের আলোচনায় গ্রামীণ ব্যাঙ্কের (Grameen Bank) প্রতিষ্ঠাতা বলেন, “আমরা কতটা সাহসী পদক্ষেপ নিতে পারি, কোভিড আমাদের সেই সিদ্ধান্ত নেওয়ার সুযোগ করে দিয়েছে। কত তাড়াতাড়ি আমরা আগের অর্থনৈতিক অবস্থায় ফিরতে পারি, সেটার উপরেই সবকিছু নির্ভর করছে। কিন্তু এখন এমন একটি বিশ্ব গড়ে তোলার লক্ষ্য নিয়ে এগোতে হবে, যেখানে কোনো বিশ্ব উষ্ণায়ন থাকবে না, সম্পদের একত্রীকরণ থাকবে না এবং বেকারত্ব থাকবে না”।

তিনি বলেন, দরিদ্র মানুষ, অভিবাসী শ্রমিক, সমাজের সব থেকে নীচু স্তরে অবস্থানকারী মহিলাদের স্বীকৃতি দেওয়ার উপর জোর দিতে হবে।

তাঁর কথায়, “ভুল পথে আমাদের অর্থনৈতিক পদ্ধতির নকশা রচনা করা হয়েছিল। কোভিড-১৯ মহামারি (Covid-19 pandemic) সেই দুর্বলতাগুলোকেই প্রকাশ্যে এনেছে। বিশ্বে করোনা পরিস্থিতির জন্য অর্থনীতিতে বিপুল ক্ষতিসাধন হয়েছে। এই আর্থিক সংকট গরিব মানুষের উপর একটা বড়োসড়ো প্রভাব ফেলবে। আমরা সাধারণত সংগঠিত ক্ষেত্রে দিয়ে অর্থনীতি বিচার করি। উল্টো দিকে থাকা অসংগঠিত ক্ষেত্রকে আমরা অর্থনীতির অংশ হিসাবে ধরতে চাই না। এটাই সব থেকে বড়ো ভুল”।

পশ্চিমী মডেলের সমালোচনা

একই সঙ্গে তিনি পশ্চিমী অর্থনৈতিক মডেলেরও সমালোচনা করেন। বলেন, ওই মডেলের কেন্দ্রে নগর অর্থনীতি এবং গ্রামীণ অর্থনীতিকে সেখানে শ্রমের সরবরাহকারী হিসাবে বিবেচনা করা হয়েছিল।

তাঁর প্রশ্ন, “কেন আমরা স্বায়ত্তশাসিত অর্থনীতি তৈরি করতে পারি না?” এ প্রসঙ্গে তিনি গ্রামীণ ব্যাঙ্কের উদাহরণ তুলে ধরে বলেন, “কী ভাবে আস্থার উপর নির্ভর করে গ্রামীণ ব্য়াঙ্ক গড়ে তোলা হয়েছিল। মানুষ হতবাক হয়ে গেল। আমি বলেছিলাম, আমরা তাঁদের সক্ষমতায় বিশ্বাস করি। তাঁরা আমাদের বিশ্বাস করে। কোন কোল্যাটারাল (collateral) নেই। বিশ্বাসের ভিত্তিতেই গরিব মানুষকে লক্ষ লক্ষ ডলার ‌ঋণ দেওয়া এবং সুদ সমেত ফিরিয়ে ফেরত পাওয়ার একটি আইনসম্মত পদক্ষেপের বাস্তব রূপ এই গ্রামীণ ব্যাঙ্ক”।

বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ পুনরাবৃত্তি করে বলেন, “আমি বলছি, এটা একটা সুযোগ। করোনা সেই সুযোগের প্রতিফলন ঘটিয়েছে। স্বাভাবিক পরিস্থিতিতে আমরা এই বিষয়গুলিতেই ধ্যান দিই না। আমরা আসলে অর্থোপার্জনেই ব্যস্ত থাকি”।

আলোচনা রাহুল গান্ধীর সঙ্গে

গত চারমাস ধরে কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi) করোনাভাইরাস (Coronavirus) এবং লকডাউনের (Lock down) জেরে সংকটে পড়া অর্থনীতি নিয়ে অর্থনীতিবিদ, বিশেষজ্ঞ এবং শিল্পপতিদের সঙ্গে আলোচনা করছেন।

ইতিমধ্যেই তিনি নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়, ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্কের প্রাক্তন গভর্নর রঘুরাম রাজন, শিল্পপতি রাজীব বাজাজ, মহামারি বিশেষজ্ঞ জোহান গিসিকে, হার্ভার্ডের কেনেডি স্কুলের অধ্যাপক নিকোলাস বার্নসের সঙ্গে আলোচনা করেছেন। এ দিন তিনি আলোচনা করেন মহম্মদ ইউনুসের (Muhammad Yunus) সঙ্গে। এ দিনের আলোচনায় নিজের এই সুচিন্তিত মতামত ব্যক্ত করেন নোবেল শান্তি পুরস্কার জয়ী ‘ক্ষুদ্রঋণ ধারণা’র প্রবর্তক।

শিল্প-বাণিজ্য

সোনার বিনিময়ে ‘গোল্ড লোন’ নেওয়ার আগে যা জেনে রাখা ভালো

সোনার বিনিময়ে ঋণ নেওয়ার আগে বেশ কয়েকটি বিষয় অবশ্যই জেনে রাখা ভালো।

ছবি: প্রতিনিধিত্বমূলক

ওয়েবডেস্ক: আপদকালীন সময়ে জরুরি ভিত্তিতে টাকার দরকার পড়তে পারে যে কোনো মানুষের। এই চাহিদা পূরণের জন্য বেশ কয়েকটি সম্ভাব্য বিকল্পও খোলা থাকে কারও কারও সামনে। যেমন ব্যক্তিগত ঋণ, প্রভিডেন্ট ফান্ড, ফিক্সড ডিপোজিট, মিউচুয়াল ফান্ড অথবা এই ধরনের আর্থিক সঞ্চয়গুলি থেকে টাকা তুলে পরিস্থিতি সামাল দেওয়া যেতে পারে।

ব্যাঙ্ক অথবা ব্যাঙ্ক নয় এমন কোনো আর্থিক প্রতিষ্ঠান (NBFC) থেকে ব্যক্তিগত ঋণ নেওয়ার ক্ষেত্রে বিকল্প হিসেবে বেছে নেওয়া যেতে পারে এই সোনা বন্ধকী ঋণ অথবা গোল্ড লোন (Gold loan)। তবে যদি আপনি সোনার বিনিময়ে ঋণ নেওয়ার পরিকল্পনা করে থাকেন, তা হলে বেশ কয়েকটি বিষয় অবশ্যই জেনে রাখা ভালো।

গোল্ড লোন কী?

গোল্ড লোন হল সোনার বিনিময়ে ঋণ। এটিকে একটি সুরক্ষিত ঋণ হিসেবেই বিবেচনা করা হয়। যেখানে সোনার জিনিস যেমন, সোনার গহনা বা অলঙ্কার ঋণপ্রদানকারী ব্যাঙ্ক / এনবিএফসির কাছে জামানত হিসাবে জমা দিতে হয়। জামানত হিসাবে এই সোনার বিরুদ্ধে ঋণগ্রহীতাকে ঋণ দেওয়া হয়।

গোল্ড লোন কোথায় পাবেন?

এসবিআই, আইসিআইসিআই ব্যাঙ্ক, এইচডিএফসি ব্যাঙ্ক-সহ অন্যান্য ব্যাঙ্ক এবং নন-ব্যাঙ্কিং ফিনান্স সংস্থাগুলি সোনার বিনিময়ে ঋণ দেয়। এনবিএফসিগুলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য মুথুট ফিনান্স, মনপ্পুরাম ফিনান্স ইত্যাদি।

ঋণের সর্বোচ্চ এবং সর্বনিম্ন পরিমাণ

জমা রাখা সোনার পরিমাণের উপর এবং ঋণপ্রদানকারী সংস্থার নিজস্ব নীতির উপর নির্ভর করে ঋণের সর্বোচ্চ এবং সর্বনিম্ন পরিমাণ। যেমন, সোনার পরিমাণের উপর নির্ভর করে এসবিআই (SBI) ২০ হাজার টাকা থেকে ২০ লক্ষ টাকা এবং আইসিআইসিআই ব্যাঙ্ক (ICICI Bank) ১০ হাজার থেকে এক কোটি টাকা পর্যন্ত ঋণ দেয়।

গোল্ড লোনের মেয়াদ

ঋণপ্রদানকারী সংস্থার নীতির উপর নির্ভর করে এই মেয়াদ। যেমন এসবিআইয়ের গোল্ড লোন পরিশোধের সর্বোচ্চ সীমা ৩৬ মাস, এইচডিএফসি (HDFC)-র ক্ষেত্রে ৩-২৪ মাস পর্যন্ত, ইত্যাদি। অন্য দিকে মুথুট ফিনান্সের বিভিন্ন রকমের গোল্ড লোন স্কিমের মেয়াদ ভিন্ন।

কোন কোন নথি প্রয়োজন?

গোল্ড লোনের জন্য ঋণপ্রদানকারী সংস্থা একাধিক নথি চাইতে পারে। যেমন পরিচয়পত্র হিসেবে প্যান, আধার কার্ড ইত্যাদি। ঠিকানার প্রমাণ হিসেবে আধার, পাসপোর্ট, ভোটার আই-ডি কার্ড ইত্যাদি। এ ছাড়া লাগবে পাসপোর্ট ছবি-সহ ইত্যাদি।

চার্জ কত?

গৃহঋণ অথবা গাড়ি ঋণের মতোই গোল্ড লোনের ক্ষেত্রেও প্রসেসিং চার্জ/ফি লাগে। এ ছাড়া সোনার মূল্য নির্ধারণে কোল্যাটারাল হিসাবেও ফি ধার্য্য হতে পারে। বিভিন্ন সংস্থার এই চার্জ/ফি-র পরিমাণ ভিন্ন।

সুদের হার

বিভিন্ন ব্যাঙ্ক অথবা এনবিএফসি-র গোল্ড লোনের সুদের হার ভিন্ন। যেমন এসবিআইয়ের গোল্ড লোনের সুদের হার ৭.০০ থেকে ৭.৫০ শতাংশ (সঙ্গে .৫০ শতাংশ জিএসটি)। অন্য দিকে মুথুট ফিনান্সে (Muthoot Finance) এই সুদের হার ১২ থেকে ২৭ শতাংশ।

*যে কোনো ধরনের ঋণ নেওয়ার আগে শর্তাবলি সঠিক ভাবে বুঝে নিন।

Continue Reading

শিল্প-বাণিজ্য

ঋণ পুনর্গঠনের মাপকাঠি নির্ধারণে পাঁচ সদস্যের কমিটি গড়ল আরবিআই

কমিটির সুপারিশ মতোই পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবে কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক।

কেভি কামাথ এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ফাইল ছবি

মুম্বই: আইসিআইসিআই ব্যাঙ্কের (ICICI Bank) প্রাক্তন সিইও কেভি কামাথের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি গড়ল ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক (RBI)। কোভিড-১৯ মহামারির (Covid-19) প্রভাবিত ঋণে পরিশোধের বিষয়ে সেগুলির পুনর্গঠনের মাপকাঠি নির্ধারণ করবে পাঁচ সদস্যের কমিটি। কমিটির সুপারিশ মতোই পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবে কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক।

এর আগে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন জানান, “মূলত ঋণ পুনর্গঠনের দিকেই আমরা আলোকপাত করছি। অর্থ মন্ত্রক এ বিষয়ে আরবিআইয়ের সঙ্গে সক্রিয় ভাবে কাজ করছে। সাধারণত পুনর্গঠনের এই ধারণা দক্ষতার সঙ্গে কার্যকর করা দরকার”।

আরবিআই গঠিত কমিটি

কমিটির চেয়ারম্যান করা হয়েছে কামাথকে। তিনি ছাড়াও কমিটিতে রয়েছেন স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়ার (SBI) প্রাক্তন এগজিকিউটিভ দিবাকর গুপ্তা, কানাড়া ব্যাঙ্কের বর্তমান চেয়ারম্যান টিএন মনোহরণ, কনসালট্যান্ট অশ্বিন পারেখ এবং ইন্ডিয়ান ব্যাঙ্ক’স অ্যাসোসিয়েশনের সিইও সুনীল মেহতা। কমিটির সচিব করা হয়েছে মেহতাকে।

আরবিআই এ দিন জানায়, প্রয়োজন হলে ভবিষ্যতে কমিটিতে আরও কয়েকজন সদস্যকে অন্তর্ভুক্ত করা হতে পারে।

মোরাটোরিয়ামের বদলে ঋণ পুনর্গঠন

গত বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের দ্বিমাসিক আর্থিক নীতি ঘোষণার সময় গভর্নর শক্তিকান্ত দাস জানান, এই কমিটি দেড় হাজার কোটি টাকার উপর ঋণের পুনর্গঠন প্রস্তাব জমা করবে। বিশেষজ্ঞদের মতে, এর ফলে দেশের ছোটো ও মাঝারি সংস্থাগুলি বিশেষ সুবিধা পাবে। অন্য দিকে রিয়েল এস্টেট ক্ষেত্রের জন্যেও একটি বিশেষ কমিটি তৈরি করা হবে বলে জানিয়েছেন আরবিআই গভর্নর।

অন্য দিকে সমস্ত শ্রেণীর ঋণগ্রহীতাদের জন্যও এককালীন ঋণ পুনর্গঠনের সুবিধা দেওয়ার কথা জানায় আরবিআই। করোনা মহামারিতে ছ’মাসের ইএমআই মোরাটোরিয়ামের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগস্টে। সেই মেয়াদ আর বাড়ছে না, পরিবর্তে ঋণগ্রহীতাদের জন্য ঋণ পুনর্গঠনের সুবিধার কথা ঘোষণা করে। গত ১ মার্চ পর্যন্ত যাঁদের ঋণ পরিশোধে কোনও ছেদ পড়েনি তাঁরাই ওই সুবিধা পাবেন। ঋণ পুনর্গঠনের অর্থ ঋণ পরিশোধের মেয়াদ বৃদ্ধি এবং অনেক সময় সুদের হারও ব্যাঙ্ক কমিয়ে দেয়। এ ধরনের পুনর্গঠনের বিষয়গুলি সংশ্লিষ্ট ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষই নির্ধারণ করবেন বলে জানা গিয়েছে।

Continue Reading

শিল্প-বাণিজ্য

ব্য়াঙ্ক চেকে জুড়ছে নতুন সুরক্ষা বৈশিষ্ট্য, ঘোষণা আরবিআইয়ের

‘পজিটিভ পে’ নামে একটি বিশেষ প্রক্রিয়া চালু করার পরিকল্পনা নিয়েছে আরবিআই।

প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক (RBI) বৃহস্পতিবার ঘোষণা করল, ৫০ হাজার বা তার বেশি আর্থিক মূল্যের চেকগুলির সুরক্ষা বৈশিষ্ট্য বাড়ানোর জন্য তারা ‘পজিটিভ পে’ (Positive Pay) নামে একটি বিশেষ প্রক্রিয়া চালু করার পরিকল্পনা নিয়েছে।

গ্রাহকদের আর্থিক সুরক্ষার বিষটিকে বিবেচনায় রেখে এ দিন আরবিআইয়ের গভর্নর শক্তিকান্ত দাস (Shaktikanta Das) এই ঘোষণাটি করেন।

প্রক্রিয়াটির অধীনে এ ধরনের চেক আদান-প্রদানের সময় গ্রাহকের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ড্রয়ি ব্যাঙ্ক (যে ব্যাঙ্কের চেক) পেমেন্ট প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করবে। এ বিষয়ে কার্যকরী নির্দেশিকা আলাদা ভাবে জারি করা হবে। এর ফলে চেকের মাধ্যমে টাকা লেনদেনের ক্ষেত্রে প্রতারণা এবং অপব্য়বহার কমবে বলে জানান আরবিআই গভর্নর।

পজিটিভ পে কী ভাবে কাজ করবে?

এই পদ্ধতিটি মূলত একটি স্বয়ংক্রিয় প্রতারণা শনাক্তকরণের সরঞ্জাম। আরও স্পষ্ট ভাবে বলা যায়, চেক ক্লিয়ারিংয়ের সময় চেক সম্পর্কিত নির্দিষ্ট তথ্যগুলি মিলিয়ে দেখার একটি নির্দিষ্ট পদ্ধতি। চেকের নির্দিষ্ট করা সমস্ত তথ্য হুবহু না মিললে চেকটি ক্লিয়ার হবে না।

পজিটিভ পে পদ্ধতিতে কোনো অ্যাকাউন্টধারী চেক ইস্যু করার সময় চেক নম্বর, চেকের তারিখ, প্রাপকের নাম, অ্যাকাউন্ট নম্বর, টাকার পরিমাণ ইত্যাদি তথ্যগুলি দেবেন। প্রাপকের কাছে যাওয়ার আগে এই তথ্যগুলি ছবির আকারে চেকের সামনে এবং পিছনের দিকের কোণে চিত্রিত হবে।

প্রাপক যখন এনক্যাশমেন্টের জন্য চেকটি জমা করবেন, তখন ব্যাঙ্ক পজিটিভ পে-র মাধ্যমে প্রাপ্ত ওই তথ্যগুলি মিলিয়ে দেখবে। কোনো সমস্যা না থাকলে চেকটি ক্লিয়ার হয়ে যাবে।

তবে আরবিআই বৃহস্পতিবার এই নতুন পদ্ধতির কথা ঘোষণা করলেও আইসিআইসিআই ব্যাঙ্ক (ICICI Bank) ইতিমধ্যেই একই ধরনের প্রক্রিয়া চালু করেছে। ব্যাঙ্কের আই-মোবাইল অ্য়াপে ২০১৬ সাল থেকে এই ফিচার চালু রয়েছে।

সুদের হার

একই সঙ্গে এ দিন রেপো রেট অপরিবর্তিত রাখার ঘোষণা করেন গভর্নর। তিনি জানান, আরবিআইয়ের ছয় সদস্যের মুদ্রানীতি কমিটি বা মনিটারি পলিসি কমিটি (MPC) সম্মতিক্রমে রেপো রেট অপরিবর্তিত রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অর্থাৎ রেপো রেট ৪ শতাংশই রয়ে গেল, রিভার্স রেপো রেট রইল ৩.৩৫ শতাংশ। 

প্রসঙ্গত, রেপো রেট সেই হার, যাতে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অন্য ব্যাঙ্কগুলিকে ঋণ দেয়। রিভার্স রেপো রেট, যে হারে আরবিআই অন্য ব্যাঙ্ক থেকে ঋণ গ্রহণ করে।

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
দেশ6 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৬৪৩৯৯, সুস্থ ৫৩৮৭৯

দেশ1 day ago

বিমান দুর্ঘটনা লাইভ: উদ্ধার ব্ল্যাক বক্স, উদ্ধারকারীদের কোয়ারান্টাইনে যাওয়ার নির্দেশ শৈলজার

দেশ2 days ago

১ সেপ্টেম্বর থেকেই স্কুলের ঘণ্টা বাজানোর কেন্দ্রীয় প্রস্তুতি

কলকাতা1 day ago

ঢাকায় পথদুর্ঘটনায় নিহত পর্বতারোহী, শোকস্তব্ধ কলকাতার পাহাড়প্রেমীরা

প্রযুক্তি3 days ago

হ্যাকার এবং সাইবার অপরাধীরা করোনার সুযোগ নিচ্ছে : বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

রাজ্য3 days ago

রাজ্যে প্রথম বার এক দিনে ২৫ হাজার টেস্ট, আক্রান্তের সংখ্যায় রেকর্ড হলেও সুস্থতার হারে স্বস্তি

খেলাধুলো2 days ago

জাতীয় দলের অধিনায়ক-সহ পাঁচ ভারতীয় হকি খেলোয়াড় করোনা পজিটিভ

বিজ্ঞান3 days ago

করোনা রোগীর মৃত্যুর ঝুঁকি কমাতে প্লাজমা থেরাপির কোনো ভূমিকা নেই, বলেছে এইমসের অন্তর্বর্তী বিশ্লেষণ

রবিবারের খবর অনলাইন

কেনাকাটা

কেনাকাটা3 days ago

ঘর ও রান্নাঘরের সরঞ্জাম কিনতে চান? অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ৫০% পর্যন্ত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্ক : অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ঘর আর রান্না ঘরের একাধিক সামগ্রিতে প্রচুর ছাড়। এই সেলে পাওয়া যাচ্ছে ওয়াটার...

কেনাকাটা3 days ago

এই ১০টির মধ্যে আপনার প্রয়োজনীয় প্রোডাক্টটি প্রাইম ডে সেলে কিনতে পারেন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : চলছে অ্যামাজনের প্রাইমডে সেল। প্রচুর সামগ্রীর ওপর রয়েছে অনেক ছাড়। ৬ ও ৭  তারিখ চলবে এই সেল।...

কেনাকাটা4 days ago

শুরু হল অ্যামাজন প্রাইম ডে সেল, জেনে নিন কোন জিনিসে কত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্: শুরু হল অ্যামাজন প্রাইম ডে সেল। চলবে ২ দিন। চলতি মাসের ৬ ও ৭ তারিখ থাকছে এই অফার।...

things things
কেনাকাটা1 week ago

করোনা আতঙ্ক? ঘরে বাইরে এই ১০টি জিনিস আপনাকে সুবিধে দেবেই দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনা পরিস্থিতিতে ঘরে এবং বাইরে নানাবিধ সাবধানতা অবলম্বন করতেই হচ্ছে। আগামী বেশ কয়েক মাস এই নিয়মই অব্যাহত...

কেনাকাটা2 weeks ago

মশার জ্বালায় জেরবার? এই ১৪টি যন্ত্র রুখে দিতে পারে মশাকে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: একে করোনা তায় আবার ডেঙ্গুর প্রকোপ শুরু হয়েছে। এই সময় প্রতি বারই মশার উৎপাত খুবই বাড়ে। এই বারেও...

rakhi rakhi
কেনাকাটা2 weeks ago

লকডাউন! রাখির দারুণ এই উপহারগুলি কিন্তু বাড়ি বসেই কিনতে পারেন

সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে মনের মতো উপহার কেনা একটা বড়ো ঝক্কি। কিন্তু সেই সমস্যা সমাধান করতে পারে অ্যামাজন। অ্যামাজনের...

কেনাকাটা3 weeks ago

অনলাইনে পড়াশুনা চলছে? ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ৪০ হাজার টাকার নীচে ৬টি ল্যাপটপ

ইনটেল প্রসেসর সহ কোন ল্যাপটপ আপনার অনলাইন পড়াশুনার কাজে লাগবে জেনে নিন।

কেনাকাটা3 weeks ago

করোনা-কালে ঘরে রাখতে পারেন ডিজিটাল অক্সিমিটার, এই ১০টির মধ্যে থেকে একটি বেছে নিতে পারেন

শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা বুঝতে সাহায্য করে এই অক্সিমিটার।

কেনাকাটা3 weeks ago

লকডাউনে সামনেই রাখি, কোথা থেকে কিনবেন? অ্যামাজন দিচ্ছে দারুণ গিফট কম্বো অফার

খবরঅনলাইন ডেস্ক : সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে দোকানে গিয়ে রাখি, উপহার কেনা খুবই সমস্যার কথা। কিন্তু তা হলে উপায়...

laptop laptop
কেনাকাটা4 weeks ago

ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ২৫ হাজার টাকার মধ্যে এই ৫টি ল্যাপটপ

খবরঅনলাইন ডেস্ক : কোভিভ ১৯ অতিমারির প্রকোপে বিশ্ব জুড়ে চলছে লকডাউন ও ওয়ার্ক ফ্রম হোম। অনেকেই অফিস থেকে ল্যাপটপ পেয়েছেন।...

নজরে

Click To Expand