coronavirus flights west bengal

নয়াদিল্লি: কোভিড-১৯ মহামারির সময় বিমান টিকিটের মূল্যসীমা বেঁধে দিয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকার। তবে পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী, বুধবার থেকে সেই মূল্যসীমা প্রত্যাহার করে নেওয়া হচ্ছে। অর্থাৎ, এ বার থেকে উড়ান সংস্থাগুলিই নিজেদের পছন্দমতো টিকিটের মূল্য নির্ধারণ করবে।

প্রায় ২৭ মাস পরে উড়ান সংস্থাগুলি নিজেদের পছন্দসই ভাড়া নির্ধারণের স্বাধীনতা পাচ্ছে। চলতি মাসের শুরুর দিকে, কেন্দ্র ঘোষণা করেছিল, কার্যকরী ঘরোয়া বিমান ভাড়ার মূল্যের সীমা অপসারিত হবে ৩১ আগস্ট থেকে। কোভিড -১৯ মহামারির কারণে ২০২০ সালে ভাড়ার উপর সীমা আরোপ করা হয়েছিল।

এই ঘোষণা করার সময়, কেন্দ্রীয় বিমান পরিবহণমন্ত্রী জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া টুইটারে লিখেঠিলেন, “এয়ার টারবাইন জ্বালানির (এটিএফ) দৈনিক চাহিদা এবং দাম বিশ্লেষণের পরে বিমান ভাড়ার ঊর্ধ্বসীমা সরানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। স্থিতিশীলতা তৈরি হয়েছে এবং আমরা নিশ্চিত যে অদূর ভবিষ্যতে ঘরোয়া যাত্রী পরিবহণ বৃদ্ধির জন্য প্রস্তুত রয়েছে সংস্থাগুলি”।

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে জেট ফুয়েলের দাম কমার পরিপ্রেক্ষিতে সরকার মূল্যসীমা অপসারণের সিদ্ধান্তে পৌঁছেছে। এই বছরের ফেব্রুয়ারিতে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর এটিএফের দাম রেকর্ড মাত্রায় পৌঁছে গিয়েছে। গত ১ আগস্ট তেল বিপণন সংস্থাগুলি দিল্লিতে এটিএফ-এর দাম ১২ শতাংশ কমিয়ে প্রতি কিলোলিটারে ১.২১ লক্ষ টাকা করেছে। সর্বকালের সর্বোচ্চ ১৬ শতাংশ হারে মূল্য বৃদ্ধি করা হয়েছিল।

তবে বিশ্লেষকদের মতে, প্রতিযোগিতায় বাজার ধরে রাখতে বেশ কিছু উড়ান সংস্থা নির্দিষ্ট রুটে বিমান ভাড়া কমাতে পারে। যাত্রীদের আকৃষ্ট করতেই এই বিকল্প পথ ধরতে পারে সংস্থাগুলি।

আরও পড়তে পারেন: 

সরকারি ভাঁড়ার থেকে একটা টাকাও নয়, নিজের খাওয়ার খরচ নিজেই বহন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

কলকাতাতেও এ বার মিলবে হোম স্টে, পর্যটন দফতর-পুরসভা তৈরি করল গাইডলাইন

বন্যায় বিধ্বস্ত পাকিস্তান, ফের ভারত থেকে খাদ্য সামগ্রী আমদানির ভাবনা

প্রয়াত শেষ সোভিয়েত নেতা মিখাইল গর্বাচেভ

হুব্বলি ঈদগাহ ময়দানে গণেশ চতুর্থী পালনে অনুমতি কর্নাটক হাইকোর্টের

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন