বাড়ছে ক্রিপ্টোকারেন্সি জালিয়াতি, নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে ৭ সুরক্ষা বলয়

0

নয়াদিল্লি: হু হু করে বাড়ছে বিটকয়েন, ইথেরিয়াম এবং ডগিকয়েনের মতো ক্রিপ্টোকারেন্সির (cryptocurrency) দাম। বিনিয়োগের বহর দ্রুত বৃদ্ধির ফলে আকৃষ্ট হচ্ছেন অনেকেই। কিন্তু অনেকেই এখনও ব্লকচেন এবং ক্রিপ্টো প্রযুক্তি সম্পর্কে সঠিক ভাবে অবগত নন। তাই নতুন বিনিয়োগকারী বা সম্ভাব্য বিনিয়োগকারীরা প্রতারণার শিকার হতেই পারেন।

অনেকের কাছেও এখনও স্পষ্ট নয় ক্রিপ্টোকারেন্সি এক্সচেঞ্জের কার্যকারিতা অথবা কোনো নিয়ন্ত্রক ছাড়াই কী ভাবে এই লেনদেন পরিচালনা হয়। ফলে নতুন বিনিয়োগকারীরা প্রতারকদের শিকার হতে পারেন। এখানে এমন কিছু পদ্ধতি তুলে ধরা হল, যা অনুসরণ করলে আপনি প্রতারকের হাত থেকে নিজের সম্পদকে রক্ষা পেতে পারেন।

দেখে নিন ৭টি টিপস

১. অনেক নকল মোবাইল অ্যাপ আছে, যেগুলো বৈধ ক্রিপ্টোকারেন্সি অ্যাপের মতোই দেখতে। এ ক্ষেত্রে আসল অ্যাপগুলি থেকে নকল অ্যাপগুলিকে আলাদা করতে হবে। এর জন্য অ্যাপের রেটিং, গ্রাহক পর্যালোচনা এবং সেই সঙ্গে লোগোগুলোর সত্যতা যাচাই করে নিন।

২. ওয়েবসাইট এবং তাদের ইউআরএল (URL) নিয়ে সতর্ক থাকুন। সেগুলো ভালো করে যাচাই করুন। স্পুফিং, যা সবচেয়ে সাধারণ প্রযুক্তিগত হানার মধ্যে একটি, এটা কিন্তু ক্রিপ্টোকারেন্সির জগতেও রমরমিয়ে চলছে।

৩. আপনাকে নিশ্চিত করতে হবে যে আপনি শুধুমাত্র স্বীকৃত এবং অনুমোদিত প্ল্যাটফর্মেই ক্রিপ্টো লেনদেন করছেন।

৪. আপনি যদি কোনো বিশ্বাসযোগ্য উৎস বা ক্রিপ্টো বিশেষজ্ঞের কাছ থেকে পাওয়া লিঙ্ক অনুসরণ করেন, তা হলেও সেটাকে যাচাই করুন। সঙ্গে সঙ্গে পৃথক একটা ট্যাবে সেটা খুলে দেখে নিন।

৫. লোভনীয় কোনো অফার পেতেই পারেন। কিন্তু টাকা দেওয়ার আগে যাচাই করে নিন। কেউ হয়তো আপনার বিনিয়োগের ৫-১০ গুণ রিটার্ন দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিচ্ছে। সেটার বাস্তবতা যাচাই করুন। বিশেষজ্ঞরা এ ধরনের লেনদেন এড়িয়ে চলার পরামর্শই দিয়ে থাকেন।

৬. প্রতারকরা প্রায়শই ফিশিং ই-মেল পাঠিয়ে ব্যবহারকারীদের প্রতারণা করে। এগুলো দেখতে অবিকল একটি বিশ্বাসযোগ্য ক্রিপ্টোকারেন্সি সাইট বা এক্সচেঞ্জ থেকে অফিসিয়াল যোগাযোগের মতোই। এই ধরনের ইমেলগুলির ফাঁদে পা দেবেন না।

৭. যে ফোন নম্বর, সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেল বা ইমেল-আইডি থেকে আপনার সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে, সেগুলোর বিশ্বাসযোগ্যতা নিশ্চিত করুন।

আরও পড়তে পারেন: ঘোষণা করতে হবে সম্পদ, মানতে হবে নয়া নিয়ম, ক্রিপ্টোকারেন্সি মালিকদের সময়সীমা বেঁধে দেওয়ার চিন্তা করছে কেন্দ্র

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন