সরকার আরও একটি আর্থিক প্যাকেজ নিয়ে কাজ করছে: কেন্দ্রীয় অর্থসচিব

0
Ajay Bhushan

নয়াদিল্লি: সরকার আরও একটি আর্থিক প্যাকেজ নিয়ে কাজ করছে বলে রবিবার ইঙ্গিত দিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থসচিব অজয়ভূষণ পান্ডে। তবে নতুন প্যাকেজটির দিনক্ষণ নিয়ে কোনো মন্তব্য করেননি তিনি।

সংবাদ সংস্থা এএনআই-এর কাছে অজয়ভূষণ পান্ডে (Ajay Bhushan Pandey) বলেন, “কোন অংশের জনগণের বা অর্থনৈতিক ক্ষেত্রের সহায়তার প্রয়োজন, সেই অনুযায়ী পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য পর্যবেক্ষণ চলছে। আমরা শিল্প সংস্থা, বাণিজ্যিক সংস্থা, বিভিন্ন মন্ত্রকের পরামর্শ নিয়েছি। তাদের পরামর্শ এবং অর্থনীতির প্রয়োজনীয়তার কথা বিবেচনা করেই আমরা সময়োপযোগী ব্যবস্থা নেব”।

তবে নতুন প্যাকেজটি কবে নাগাদ ঘোষিত হতে পারে, এমন প্রশ্নের উত্তর দেননি পান্ডে। কিন্তু সরকার যে বিষয়টি নিয়ে এগোচ্ছে, সে কথা স্বীকার করেন।

লকডাউনের (lockdown) সময় ভারতীয় অর্থনীতিতে বড়োসড়ো ধাক্কা সামলাতে ঘোষিত হয়েছিল আর্থিক প্যাকেজ (stimulus package)। সপ্তাহ দুয়েক আগে অর্থমন্ত্রক (finance ministry)-এর একটি সূত্র জানায়, কেন্দ্রীয় সরকার (Indian government) পরবর্তী একটি আর্থিক প্যাকেজ নিয়েও কাজ করছে।

করোনা-কাঁটায় বিপর্যস্ত অর্থনীতির হাল ধীরে ধীরে আবার আগের অবস্থায় ফিরছে বলে জানান পান্ডে। অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারের পাশাপাশি বৃদ্ধির হার-ও ধরা পড়ছে বিভিন্ন ক্ষেত্রে।

রবিবার অর্থমন্ত্রক জানায়, ফ্রেব্রুয়ারির পর এই প্রথম মাসিক জিএসটি সংগ্রহ ১ লক্ষ কোটি ছাড়িয়েছে। সদ্য সমাপ্ত অক্টোবর মাসে সংগৃহীত মোট জিএসটি রাজস্বের পরিমাণ পৌঁছেছে ১,০৫,১৫৫ কোটি টাকায়। ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত মোট জিএসটিআর-৩বি রিটার্ন (GSTR-3B return) দাখিলের সংখ্যা ৮০ লক্ষ।

তিনি বলেন, “সেপ্টেম্বর এবং অক্টোবরের তথ্যগুলি থেকে স্পষ্ট আমরা প্রাক-কোভিড স্তরে পৌঁছেছি। গত বছরের একই সময়ের তুলনায় সেপ্টেম্বরে ১০ শতাংশ বৃদ্ধির পর অক্টোবরে তা ২১ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে”। তাঁর কথায়, “আমরা যদি আগামী পাঁচ মাস ধরে এই বৃদ্ধি বজায় রাখতে সক্ষম হই, তা হলে ২০২১ সালের মার্চ মাসের মধ্যে ঘুরে দাঁড়াতে পারব”।

এপ্রিল-জুন ত্রৈমাসিকে অর্থনৈতিক বৃদ্ধি রেকর্ড পরিমাণ সংকুচিত হওয়ার পর কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন (Nirmala Sitharaman) ইঙ্গিত দিয়েছিলেন, পরিস্থিতি পুনরুদ্ধারের জন্য দ্বিতীয় প্যাকেজ ঘোষণার সম্ভাবনা রয়েছে।

তিনি বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার আর্থিক প্যাকেজের বিকল্প পথ বন্ধ করে দেয়নি। জিডিপি সংকোচনের কথা বিবেচনা করে ‘এ ধরনের’ মূল্যায়ন শুরু হয়েছে। তার পরই নতুন প্যাকেজ নিয়ে কেন্দ্রের চিন্তাভাবনার কথা প্রকাশ্যে এল।

প্রসঙ্গত, প্রায় পাঁচ মাসে আগে আত্মনির্ভর ভারত (Atmanirbhar Bharat) নামে ২০ লক্ষ কোটি টাকার প্যাকেজ ঘোষণা করে কেন্দ্র। কিন্তু সেই প্যাকেজে সমাজের সমস্ত স্তরে সুবিধা পৌঁছায়নি বলে সমালোচনার সৃষ্টি হয়।

আরও পড়তে পারেন: ৭ সপ্তাহ ধরে নিম্নমুখী করোনা সংক্রমণ, তবে পতনের হার মন্থর

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন