২০২০ সালের চেয়ে ৬৫ শতাংশ বেশি, টানা অষ্টম মাসে ১ লক্ষ কোটি ছাড়াল জিএসটি সংগ্রহ

    আরও পড়ুন

    খবর অনলাইন ডেস্ক: সদ্য শেষ হওয়া মে মাসে পণ্য ও পরিষেবা কর (GST) বাবদ হয়েছে ১.০২ লক্ষ কোটি টাকার বেশি। এই নিয়ে টানা আট মাস জিএসটি সংগ্রহের পরিমাণ এক লক্ষ কোটি টাকার উপরেই রইল।

    তবে এপ্রিলের থেকে জিএসটি সংগ্রহ কমেছে মে মাসে। গত এপ্রিলে রেকর্ড পরিমাণ, ১.৪১ লক্ষ কোটি টাকার জিএসটি সংগ্রহ হয়েছিল, মে মাসে যা হ্রাস পেয়েছে ২৭ শতাংশ। এই হ্রাসের কারণ হিসেবে করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ এবং তার জেরে লকডাউন ও অন্যান্য কঠোর নিয়ন্ত্রণবিধির বড়ো ভূমিকা রয়েছে।

    Loading videos...

    মন্দের ভালো, ২০২১ সালের মে মাসে জিএসটি সংগ্রহ গত বছরের একই মাসের তুলনায় ৬৫ শতাংশ বেশি। ২০২০ সালের মে মাসে জিএসটি সংগ্রহ হয়েছিল মাত্র ৬২,০০৯ কোটি টাকা। গত বছর, কোভিড -১৯ মহামারির কারণে জাতীয় পর্যায়ে লকডাউন অর্থনৈতিক কার্যকলাপকে চরম ভাবে প্রভাবিত হয়েছিল। যে কারণে জিএসটি সংগ্রহও হ্রাস পেয়েছিল।

    - Advertisement -

    শনিবার অর্থমন্ত্রকের জারি করা বিবৃতি অনুসারে, মে মাসে মোট জিএসটি সংগ্রহ দাঁড়িয়েছে ১,০২,৭০৯ কোটি টাকা। এতে কেন্দ্রীয় জিএসটির (CGST) অংশ রয়েছে ১৭,৫৯২ কোটি টাকা, রাজ্য জিএসটির (SGST) শেয়ারের পরিমাণ ২২,৬৫৩ কোটি টাকা এবং ইন্টিগ্রেটেড জিএসটির (IGST) শেয়ারের পরিমাণ ৫৩,১৯৯ কোটি টাকা। এর মধ্যে ২ ২৬,০০২ কোটি টাকা পণ্য আমদানি থেকে পাওয়া গিয়েছে, যখন সেসের শেয়ারের পরিমাণ ছিল ৯,২৫৬ কোটি টাকা। শুল্ক হিসাবে, পণ্য আমদানিতে ৮৬৮ কোটি টাকা আদায় করা হয়েছিল মে মাসে।

    মন্ত্রক জানিয়েছে, উপরের পরিসংখ্যানগুলি ৪ জুন অবধি দেশীয় লেনদেনের উপর প্রাপ্ত জিএসটি সংগ্রহের পরিমাণ। করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের কারণে, মে মাসে ১৫ দিন দেরিতে রিটার্ন দাখিলের জন্য করদাতাদের সুদ ছাড় দেওয়া হয়েছে। তবে অনেক রাজ্যে কড়া লকডাউন সত্ত্বেও জিএসটি সংগ্রহের পরিমাণ এক লক্ষ কোটি টাকারও বেশি হয়েছে।

    আরও পড়তে পারেন: অক্সিজেন কনসেনট্রেটরের দাম বেঁধে দিল কেন্দ্র

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

    - Advertisement -

    আপডেট খবর