হাইড অ্যান্ড সিক ফিলস: পার্লের সম্ভারে নতুন সংযোজন

0

কলকাতা: ঘুরতে বেরিয়ে নির্ঝঞ্ঝাটে খাওয়া যাবে আবার সহজে দুধ খেতে চায় না এমন বাচ্চাদের জন্য উপাদেয় এবং পুষ্টিকর। এমনই এক চকোলেট সমৃদ্ধ ক্রাঞ্চি এবং ক্রিপসি চকোচিপস নিয়ে এসেছে দেশের শীর্ষস্থানীয় বিস্কুট, স্ন্যাকস অথবা কনফেকশনারি প্রস্তুতকারক সংস্থা পার্লে। ইতিমধ্যেই উত্তর ও পশ্চিম ভারতের বাজারে এসে গিয়েছিল। এ বার পশ্চিমবঙ্গ-সহ পূর্বভারতের রাজ্যেগুলিতে ‘হাইড অ্যান্ড সিক ফিলস’ নামের নতুন এই সিরিয়ালস নিয়ে এল সংস্থা।

নিজের জনপ্রিয় ব্র্যান্ড ‘হাইড অ্যান্ড সিক’-এর পসার আরও বিস্তৃত করেছে পার্লে। এই নামে চকোলেট বিস্কুট এখন সকলের কাছেই জনপ্রিয়। সেই জনপ্রিয়তার রেশ ধরেই নতুন এই পণ্য। সংস্থার মতে, ‘হাইড অ্যান্ড সিক ফিলস’-এর মাধ্যমে একটা জোরদার ব্রেকফার্স্টের জন্যই এই পুষ্টিকর সিরিয়ালস তৈরি করা, যা সমস্ত বয়সিদের কাছে সমান ভাবে গ্রহণযোগ্য। তা ছাড়া বাইরে বেরিয়ে দুধ ছাড়াও মনভরে খাওয়া যাবে এই মুচমুচে সিরিয়ালস।

সংস্থার রিজিওনাল সেলস ম্যানেজার সন্দীপ পারিক জানান, “পার্লে জি-র জন্যই বেশির ভাগ মানুষের কাছে পরিচিত বিস্কুট এবং কনফেকশনারি পণ্য প্রস্তুতকারী সংস্থা পার্লে। শহরের পাশাপাশি গ্রামেগঞ্জেও সমান ভাবে পরিচিত। তবে শেষ কয়েক বছর ধরে আমরা বিভিন্ন বিভাগে বেশ কিছু পণ্য নিয়ে এসেছি। স্ন্যাকস, পট্যাটো ওয়েফার থেকে ঐতিহ্যবাহী নিমকি-সহ বিভিন্ন পণ্য এনেছি আমরা। এ বার সেই তালিকাতেই জুড়ল হাইড অ্যান্ড সিক ফিলস। ইতিমধ্যেই এই নামের চকোলেট বিস্কুট জনপ্রিয়তা পেয়েছে। নতুন পণ্যটিও চকোলেট ভিত্তিক”।

নতুন পণ্যটি শিশু-কিশোর এবং তরুণদের বিশেষ ভাবে আকর্ষিত করবে বলে আশাপ্রকাশ করছে সংস্থা। কারণ, এর ৫০ শতাংশই চকোলেট। দামের দিক থেকেও যথেষ্ট সাশ্রয়কর। ১৮ গ্রামের প্যাকটে পিছু মাত্র ১০ টাকা। এর বিশেষত্ব, এটা যেমন সুস্বাদু, তেমনই মুচমুচে। সংস্থার দাবি, অন্য সংস্থার তৈরি একই বিভাগের যে সব পণ্য রয়েছে, সেগুলোর থেকে এর চকোলেট ফিলিং অনেকটাই বেশি।

কলকাতার পাশাপাশি গ্যাংটক, শিলিগুড়ি এবং হাওড়াতেও লঞ্চ করেছে পার্লের এই নতুন চকোচিপস। সব জায়গা থেকেই সাফল্য এসেছে। এর পরে রাজ্যের বাকি এলাকা এবং সমগ্র পূর্ব ভারতেই বাজারে নিয়ে আসার পরিকল্পনা রয়েছে সংস্থার।

পার্লে কর্তারা জানান, ক্রেতা এবং বিক্রেতাদের বাড়তি সুযোগ দিতে বর্তমানে ৩০ শতাংশ অতিরিক্ত চকোচিপস মিলছে প্রতি প্যাকেটে। সন্দীপ ছাড়াও নতুন এই পণ্যের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনে উপস্থিত ছিলেন সংস্থার ডিএসএম আসরিফ আলি, সিনিয়র এএসএম স্বপেন্দু কুমার এবং সিনিয়র সেলস এগজিকিউটিভ দীপঙ্কর সরকার।

আরও পড়তে পারেন:

‘উনি গুলাম নয়, আজাদ থাকতে চান,’ বুদ্ধদেবের পদ্ম-প্রত্যাখ্যানকে কুর্নিশ করে গুলাম নবীকে খোঁচা দিলেন জয়রাম রমেশ

কেরলে উদ্বেগজনক বৃদ্ধি, তবুও দেশে ৩ লক্ষের নীচেই থাকল দৈনিক সংক্রমণ, পর পর দু’দিন কমল সক্রিয় রোগী

দুই কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর নাম নিয়ে ফের পৃথক রাজ্যের উসকানি উত্তরবঙ্গে

বাকি দেশে করোনা যখন কমছে, তখন উদ্বেগের পরিস্থিতি কেরলে, প্রতি দু’জনের মধ্যে একজনই পজিটিভ

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন