Income Tax

নয়াদিল্লি: ৩১ জুলাই ছিল ২০২১-২২ আর্থিক বছরের আয়কর রিটার্ন ফাইলের শেষ দিন। সময়সীমা পার হলে গেলে মেটাতে হবে জরিমানা। এরই মধ্যে আয়কর রিটার্ন যাচাইয়ের (Income Tax Return Verification) নিয়মে বড়োসড়ো পরিবর্তন এনেছে আয়কর বিভাগ।

ভেরিফিকেশনের নতুন নিয়ম

নির্ধারিত সময়ের পর আয়কর রিটার্ন দাখিলের ক্ষেত্রে ই-ভেরিফিকেশন (e-verification) অথবা আইটিআর-৫-এর হার্ড কপি পাঠানোর সময়সীমা অনেকটাই কমিয়ে দিয়েছে বিভাগ। করদাতারা রিটার্ন দাখিল করার পরে ভেরিফিকেশনের জন্য ১২০ দিন সময় পান। তবে যাঁরা ২৯ জুলাইের পর আইটিআর দাখিল করছেন, তাঁদের ক্ষেত্রে সেটাই এখন কমিয়ে ৩০ দিনে করা হয়েছে। যা ১ আগস্ট থেকে প্রযোজ্য।

২৯ জুলাই নিয়ম পরিবর্তনের বিজ্ঞপ্তি জারি করে আয়কর বিভাগ। বলে রাখা ভালো, কোনো রিটার্ন ফাইলিং প্রক্রিয়াটি সম্পূর্ণ হয় ই-ভেরিফিকেশনের মাধ্যমে। এবং যদি এটি নির্ধারিত সময়ের মধ্যে না করা হয় তবে তা অবৈধ হিসাবে বিবেচিত হয়। আয়কর বিভাগের বেঙ্গালুরুর ঠিকানায় স্পিড পোস্টের মাধ্যমে হার্ড কপি পাঠিয়েও আইটিআর ফাইল ভেরিফিকেশন করা যায়। যে দিন স্পিড পোস্ট করা হচ্ছে, সেই দিন থেকে পরবর্তী ৩০ দিন গণনা করা হবে। তার মধ্যে না পৌঁছালে গোটা প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হয় না।

নতুন নিয়ম অনুযায়ী, ৩১ জুলাই বা তার আগে আগে যাঁরা রিটার্ন ফাইল করেছেন, তাঁদের ভেরিফিকেশনের জন্য ১২০ দিনের নিয়মই বহাল থাকছে। আর যাঁরা ১ আগস্ট বা তার পরে আইটিআর দাখিল করেছেন তাঁদের ক্ষেত্রে এই নয়া নিয়ম কার্যকর।

৩০ দিনের মধ্যে ভেরিফিকেশন না হলে কী হবে?

বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, যদি উল্লিখিত সময়ের পরে ফর্ম আইটিআর-৫ জমা দেওয়া হয়, তা হলে ধরে নেওয়া হবে যে রিটার্নের জন্য ফর্মটি পূরণ করা হয়েছিল তা কখনই জমা দেওয়া হয়নি। অর্থাৎ, আয়কর বিভাগ এটি প্রক্রিয়াকরণের জন্য গ্রহণ করবে না। ফলে ফের নতুন করে আয়কর রিটার্ন ফাইল করে তা ৩০ দিনের মধ্যে ই-ভেরিকেশন করতে হবে। অথবা স্পিড পোস্টের মাধ্যমে Centralised Processing Centre, Income Tax Department, Bengaluru – 560500, Karnataka-এর ঠিকানা পাঠাতে হবে।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন