জুলাইয়ে জিএসটি সংগ্রহ ১.১৬ লক্ষ কোটি টাকা, গত বছরের তুলনায় বাড়ল ৩৩ শতাংশ

0
gst collections

খবর অনলাইন ডেস্ক: সদ্য শেষ হওয়া জুলাই মাসে পণ্য ও পরিষেবা কর (GST) সংগ্রহ হয়েছে ১.১৬ লক্ষ কোটি টাকা। যা গত ২০২০ সালের একই সময়ের তুলনায় ৩৩ শতাংশ বেশি।

রবিবার কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রকের জারি করা বিবৃতি অনুসারে, জুলাইয়ে মোট জিএসটি সংগ্রহ দাঁড়িয়েছে ১,১৬,৩৯৩ কোটি টাকা। এতে কেন্দ্রীয় জিএসটির (CGST) অংশ রয়েছে ২২,১৯৭ কোটি টাকা, রাজ্য জিএসটির (SGST) শেয়ারের পরিমাণ ২৮,৫৪১ কোটি টাকা এবং ইন্টিগ্রেটেড জিএসটির (IGST) শেয়ারের পরিমাণ ৫৭,৮৬৪ কোটি টাকা। এর মধ্যে ২৭,৯০০ কোটি টাকা পণ্য আমদানি থেকে পাওয়া গিয়েছে, যখন সেসের শেয়ারের পরিমাণ ছিল ৭,৭৯০ কোটি টাকা। শুল্ক হিসাবে, পণ্য আমদানিতে ৮১৫ কোটি টাকা আদায় করা হয়েছিল জুলাই মাসে।

২০২০ সালের জুলাইয়ে জিএসটি সংগ্রহের পরিমাণ ছিল ৮৭,৪২২ কোটি টাকা। তবে চলতি বছরের জুনে জিএসটি সংগ্রহ হয়েছিল ৯২,৮৪৯ কোটি টাকা।

অর্থমন্ত্রকের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, টানা আট মাস জিএসটি সংগ্রহের পরিমাণ ১ লক্ষ কোটি টাকার উপরে থাকার পর গত জুন মাসে তা নেমে গিয়েছিল। কারণ তার আগের মাসের সঙ্গে অনেকটাই সম্পর্ক ছিল ওই মাসের জিএসটি আদায়ে। ওই সময় ভারতে করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ ব্যাপক আকার ধারণ করে। একাধিক রাজ্য লকডাউন বা সমজাতীয় কড়া বিধিনিষেধ জারি করে করোনা মোকাবিলায়। প্রভাবিত হয় ব্যবসা-বাণিজ্য।

Shyamsundar

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের কারণে, মে মাসে ১৫ দিন দেরিতে রিটার্ন দাখিলের জন্য করদাতাদের সুদ ছাড় দেওয়া হয়। তবে অনেক রাজ্যে কড়া লকডাউন সত্ত্বেও জিএসটি সংগ্রহের পরিমাণ এক লক্ষ কোটি টাকারও বেশি হলেও পরের মাসে তা অনেকটাই কমে যায়।‌

তবে জুলাইয়ে সেই প্রভাব অনেকটাই কাটিয়ে ওঠা সম্ভব হয়েছে বলে জানিয়েছে মন্ত্রক। কোভিড নিয়ন্ত্রণবিধি শিথিল হওয়ার কারণেই যে উত্তরণ, সেটাও স্বীকার করা হয়েছে সরকারি ভাবে।

আরও পড়তে পারেন: বাণিজ্যিক এলপিজি সিলিন্ডারে বাড়ল ৭৩.৫০ টাকা, রান্নার গ্যাসের দাম অপরিবর্তিত

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন