আইপিও-তে ঝড় তুলেছিল এলআইসি, স্টক এক্সচেঞ্জে আত্মপ্রকাশ কী ভাবে

0

নয়াদিল্লি: ২ মে খুলেছিল এলআইসি আইপিও। বন্ধ হয়েছে ৯ মে। মঙ্গলবার স্টক এক্সচেঞ্জে আত্মপ্রকাশ করছে দেশের বৃহত্তম জীবন বিমা সংস্থার শেয়ার। ইতিমধ্যেই আইপিও-তে আবেদনকারীদের জন্য শেয়ার বরাদ্দ করেছে সংস্থা। এ দিন সকালে এলআইসি শেয়ার তালিকাভুক্তির সঙ্গে সঙ্গে কোটি কোটি বিনিয়োগকারী এবং শেয়ারহোল্ডারদের অপেক্ষার অবসান হবে।

শেয়ার বাজারে সাম্প্রতিক দুর্বলতার পরিপ্রেক্ষিতে যথেষ্ট উদ্বেগ রয়েছে এলআইসি-র শুরু নিয়ে। বাজার বিশেষজ্ঞরা বলছেন, শুরুটা ধীরগতিতে হতে পারে। যাইহোক, বিনিয়োগকারী এবং শেয়ারহোল্ডারদের আতঙ্কিত হওয়া উচিত নয়। অবশ্যই মাঝারি থেকে দীর্ঘমেয়াদে এলআইসি শেয়ার ধরে রাখার পরামর্শ দিচ্ছেন তাঁরা।

বাজার বিশ্লেষকদের কথায়, শেয়ার বাজারের সাম্প্রতিক দুর্বলতাকে সুযোগ হিবেসে দেখা যেতে পারে। কম দামে শেয়ার নথিভুক্ত হলেও বিনিয়োগকারীরা দীর্ঘমেয়াদি সিদ্ধান্ত নিতে পারেন। সেটা সম্ভব না হলে অন্তত মাঝারি মেয়াদের সময়ের জন্য ধরে রাখা যেতে পারে। ফলে কম দামে শেয়ার নথিভুক্ত হওয়ার পর হতাশ না হওয়াই ভালো।

রীতি অনুযায়ী শেয়ারের প্রাইস ব্র্যান্ড আগাম নির্ধারণ করেছিল এলআইসি। যা রয়েছে ৯০২-৯৪৯ টাকার মধ্যে। তবে খুচরো বিনিয়োগকারী এবং যোগ্য কর্মীরা প্রতি শেয়ারে ছাড় পাবেন ৪৫ টাকা, যেখানে পলিসি হোল্ডারদের জন্য ছাড় শেয়ার পিছু ৬০ টাকা। সেই শেয়ার এ দিন তালিকাভুক্ত হচ্ছে বিএসই এবং এনএসই-তে।

এলআইসি-র ৩.৫ শতাংশ অংশীদারিত্ব ছেড়ে বাজার থেকে ২১ হাজার কোটি টাকা তুলতে চাইছে কেন্দ্রীয় সরকার। সে অর্থে এটাই দেশের সর্বকালের সবচেয়ে বড়ো আইপিও। তবে ১৬,২০,৭৮,০৬৭ শেয়ারের আইপিও হওয়া সত্ত্বেও আবেদন জমা পড়েছে ৪৭,৮৩,২৫,৭৬০। আইপিও-র শেষ দিন সন্ধে ৭টা পর্যন্ত এই তথ্য জমা করা হয়েছে স্টক এক্সচেঞ্জে।

উল্লেখ্য, আকারের দিক থেকে এলআইসি আইপিও দেশের সর্বকালের বৃহত্তম আইপিও। ২০২১ সালে ১৮,৩০০ কোটি টাকার বৃহত্তম আইপিও ছেড়েছিল পেটিএম। তার আগে ২০১০ সালে কোল ইন্ডিয়ার আইপিও-র আকার ছিল ১৫,৫০০ কোটি টাকা। তারও আগে, ২০০৮ সালে রিলায়েন্স পাওয়ার ১১,৭০০ কোটি টাকার আইপিও ছেড়েছিল বাজারে।

আরও পড়তে পারেন:

মূল সুদের হার আবারও বাড়াতে পারে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক, বলছে এসবিআই রিপোর্ট

‘অযৌক্তিক!’ কাশ্মীর নিয়ে ওআইসির মন্তব্য উড়িয়ে দিল ভারত

বর্ষার আগেই বন্যা কবলিত অসম, ধসে বিপর্যস্ত হাফলং

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন