কোভিড সংকট মোকাবিলায় বাড়তি নোট ছাপবে কি সরকার? সংসদে জবাব দিলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী

0
কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন। প্রতীকী ছবি

খবর অনলাইন ডেস্ক: কোভিড-১৯ মহামারির (COVID-19 pandemic) জেরে তৈরি হয়েছে অর্থনৈতিক সংকট। এই পরিস্থিতি মোকাবিলায় বাড়তি নোট (currency notes) ছাপানোর চিন্তাভাবনা রয়েছে কি কেন্দ্রীয় সরকারের?

সংসদে এমনই একটি এমনই একটি প্রশ্নের জবাবে ‘না’ জানিয়ে দিলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন (Nirmala Sitharaman)।

Shyamsundar

কোভিডের জেরে বিপর্যস্ত অর্থনৈতিক কার্যকলাপ পুনরুদ্ধারে বাড়তি নোট ছাপার পরামর্শ দিয়েছেন অর্থনীতিবিদ এবং বিশেষজ্ঞদের একাংশ।

এ দিন লোকসভার অধিবেশন একটি লিখিত প্রশ্নের জবাবে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী বলেন, “২০২০-২১ অর্থবর্ষে জিডিপি ৭.৩ শতাংশ কমেছে বলে অনুমান করা হয়েছে। এই সংকোচনের ফলে মহামারির অভূতপূর্ব প্রভাব এবং মহামারি নিয়ন্ত্রণের জন্য যে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে, তার প্রতিচ্ছবিই দেখা যাচ্ছে”।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেন, “অর্থনীতির মৌলিক ভিত্তিগুলি ধীরে ধীরে শক্তিসঞ্চয় করে নিজের জায়গায় ফিরছে। বিপর্যস্ত অর্থনীতির পুনরুদ্ধারে আত্মনির্ভর ভারত অভিযান (Atmanirbhar Bharat Mission) গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছে। ২০২০-২১ অর্থবর্ষের দ্বিতীয়ার্ধ থেকে অর্থনীতির আবার নিজের জায়গায় ফিরে আসতে শুরু করেছে”।

নির্মলা বলেন, এই প্রকল্পের আওতায় একটি বিশেষ অর্থনৈতিক এবং বিস্তৃত প্যাকেজ ঘোষণা করেছিল কেন্দ্র। যাতে বরাদ্দ ঘোষণা করা হয়েছিল ২৯.৮৭ লক্ষ কোটি টাকা। কোভিড সংকট মোকাবিলায় অর্থনৈতিক বৃদ্ধি এবং কর্মসংস্থানে জোর দিতে এই বিপুল অঙ্কের অর্থ বরাদ্দ করে কেন্দ্র।

এ বারের বাজেটেও কোভিডে মহামারির প্রভাবের উপর ভিত্তি করে একাধিক পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছিল। মূলধন ব্যয় (capital expenditure) ৩৪.৫ শতাংশ এবং স্বাস্থ্যখাতে ব্যয় ১৩৭ শতাংশ বৃদ্ধি-সহ বিস্তৃত পদক্ষেপ নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। অর্থমন্ত্রী এ দিন আরও বলেন, জনস্বাস্থ্যকে আরও শক্তিশালী করতে ও কর্মসংস্থান বাড়ানোর লক্ষ্যে সরকার ২০২১ সালের জুনে ৬.২৯ লক্ষ কোটি টাকার ত্রাণ প্যাকেজ ঘোষণা করেছিল।

আরও পড়তে পারেন: হাইওয়ের ধারে আর নতুন করে মদের দোকান নয়, জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন