তিন বছর পর নাটকীয় জয় সাইরাস মিস্ত্রির! ফের টাটা সন্সের শীর্ষপদে

ratan tata and cyrus mistry
ফাইল ছবি

ওয়েবডেস্ক: নাটকীয় ভাবে টাটা সন্স থেকে বরখাস্ত হওয়া সাইরাস মিস্ত্রি বড়ো জয় পেলেন। বুধবার ন্যাশনাল কোম্পানি ল’ অ্যাপিলেট ট্রাইবুনাল (এনসিএলএটি) তাঁকে টাটা সন্সের নির্বাহী চেয়ারম্যান পদে পুনর্বহালের নির্দেশ দেয়। ট্রাইব্যুনাল এন চন্দ্রকে নির্বাহী চেয়ারম্যান হিসাবে নিয়োগকে অবৈধ অবৈধ আখ্যা দিয়ে তিন বছর পর সাইরাসকেই ফের ওই পদে ফেরানোর নির্দেশ দেয়।

এনসিএলএটির একটি দুই বিচারকের বেঞ্চ স্পষ্টতই জানিয়ে দেয়, সাইরাসের বিরুদ্ধে রতন টাটার আচরণ ‘নিপীড়নমূলক’ ছিল এবং নতুন চেয়ারম্যান নিয়োগ প্রক্রিয়া অবৈধ ছিল। বছর তিনেক আগে আচমকা সাইরাসকে সরিয়ে ওই পদে এন চন্দ্রকে বসায় টাটা।

তবে একই সঙ্গে আদেশের বিরুদ্ধে আবেদন করার জন্য টাটাদের চার সপ্তাহের সময় দেওয়া হয়েছে। ট্রাইব্যুনাল বলেছে, পুনর্বহালের আদেশটি চার সপ্তাহ পরেই কার্যকর হবে। সেই আদেশকে সুপ্রিম কোর্টে চ্যালেঞ্জ জানানোর বিকল্প পথও টাটাদের সামনে খোলা রয়েছে।

সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, মিস্ত্রি পরিবার টাটা সন্সে একক বৃহত্তম শেয়ারহোল্ডার, তাঁদের ১৮.৪ শতাংশ অংশীদারিত্ব রয়েছে।

সাইরাস যুক্তি দিয়েছিলেন, “যে তাঁর অপসারণ শুধু সংস্থা আইন (কোম্পানি অ্যাক্ট) লঙ্ঘনকারী নয়, টাটা সন্স জুড়ে বিস্তীর্ণ অব্যবস্থাপনা রয়েছে”।

বুধবার ট্রাইবুনালের রায় ঘোষণার পর এক বিবৃতিতে সাইরাস বলেন, “আজকের রায় আমার পক্ষে ব্যক্তিগত বিজয় নয়, বরং সুশাসনের নীতি ও সংখ্যালঘু শেয়ারহোল্ডারদের অধিকারের জয়। আমার আবেদনের উপর আজকের রায় আমার অবস্থানের সত্যতা প্রমাণ করেছে”।

উল্লেখ্য, গত ২০১৬ সালের অক্টোবর মাসে সংস্থার শীর্ষপদ থেকে সাইরাসকে বরখাস্ত করা হয়েছিল। রতন টাটা অবসর ঘোষণার পর ২০১২ সালে তিনি ওই পদে দায়িত্ব গ্রহণ করেছিলেন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.