পৃথিবীর বৃহত্তম স্কুটার বাজার কাঁপাচ্ছে ওলা, আপনি কী ভাবে বুকিং করবেন?

খবর অনলাইন ডেস্ক: বৈদ্যুতিন স্কুটার (EV) বাজারে ঝড় তুলে দিয়েছে ওলা (Ola)। শুরুতেই মাত্র ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এক লক্ষ বুকিং হওয়ার ঘটনা ইঙ্গিত দিচ্ছে পৃথিবীর বৃহত্তম দু’চাকার গাড়ি বাজার কাঁপিয়ে দিতে পারে এই সংস্থা।

ওয়াকিবহাল মহলের মতে, জ্বালানি নির্ভর দু’চাকার গাড়ি নির্মাতা সংস্থাগুলি যে এ মুহূর্তে নিজেদের উৎপাদনে রাশ টানবে, তেমনও কোনো লক্ষণ নেই। তবে বাজাজ অটো, হিরো মটোকর্প এবং টিভিএস মোটরের মতো সংস্থাগুলোর কাছে এখনই উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ার মতো পরিস্থিতি না তৈরি হলেও পরবর্তীতে তাদের তৈরি দু’চাকার গাড়ির দাম নির্ধারণেও বিশেষ চিন্তাভাবনা করতে হতে পারে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

Loading videos...

কারণ, সম্ভাব্য ই-স্কুটার যে দামে বাজারে ছাড়া হবে, তাতে নিশ্চয় লোকসান করতে চাইবে না ওলা।

দাম কত হতে ওলা স্কুটারের?

নিজের তৈরি স্কুটারের দাম নিয়ে এখনও কোনো তথ্য প্রকাশ করেনি ওলা। তবে সোমবার বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডের প্রতিবেদন অনুযায়ী, আশা করা হচ্ছে ওলার ইলেক্ট্রিক স্কুটারের (electric scooter) দাম থাকতে পারে ৮৫ হাজার টাকা থেকে ১ লক্ষ ১০ হাজার টাকার মধ্যে।

এই হিসেবে বর্তমানে দেশে যে জ্বালানি নির্ভর (ICE) স্কুটার বিক্রি হয়, তার দামের তুলনায় ৭০ শতাংশ হতে পারে ওলা স্কুটারের দাম।

কী ভাবে বুকিং করবেন?

আগ্রহী ক্রেতা olaelectric.com ওয়েবসাইট থেকে ওলা বুকিং করতে পারবেন। ওটিপির মাধ্যমে নিজের মোবাইল নম্বর ভেরিফাই করানো যাবে। ৪৯৯ টাকার বিনিময়ে বুকিং করা যাবে। আরও একটি অন্যতম সুবিধা, কোনো ব্যক্তি একাধিক স্কুটার বুকিং করতে পারবেন।

নিজের ওয়েবসাইটে স্কুটার রিজার্ভেশন সম্পর্কিত কিছু প্রশ্নের উত্তরও দিয়েছে ওলা। বুকিংয়ের জন্য প্রদেশ টাকা সম্পূর্ণ ফেরতযোগ্য। বাতিল হওয়ার পরে, ৭-১০ দিনের মধ্যে তা ফেরত পাওয়া যাবে। আপনার রিজার্ভেশন সফল হয়ে গেলে, সংস্থা আপনাকে অর্ডার আইডি এবং অন্যান্য বিশদ তথ্য এসএমএস বা ইমেলের মাধ্যমে পাঠিয়ে দেবে।

সংস্থা জানিয়েছে, পরবর্তীতে নিজের পছন্দের স্কুটারটির রং এবং অন্যান্য ফিচার বেছে নিতে পারবেন ক্রেতা। তবে ঠিক কবে নাগাদ এই স্কুটার বাজারে আসবে, তা জানায়নি সংস্থা।

আরও পড়তে পারেন: ঝড় তুলে দিল ওলা স্কুটার, প্রথম দিনই ১ লক্ষ বুকিং!

পাঠকের পছন্দ

আরও পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.