Currency

নয়াদিল্লি: আগামী ১ এপ্রিল থেকেই দু’ভাগে বিভক্ত হতে পারে কর্মচারীদের প্রভিডেন্ট ফান্ড (PF) অ্যাকাউন্ট। করযোগ্য সুদের হিসাব নির্ধারণে নতুন আয়কর (২৫তম সংশোধনী) আইন, ২০২১-এ সংযোজিত হয়েছিল এই নিয়ম।

গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে নতুন আয়কর বিধি জারি করেছিল কেন্দ্রীয় সরকার। সেই বিজ্ঞপ্তি মতো দু’টি ভাগে বিভক্ত হবে পিএফ অ্যাকাউন্ট। এর ফলে পিএফে কোনো কর্মীর নিজস্ব অবদান বছরে আড়াই লক্ষ টাকার সীমা ছাড়ালেই তাঁর অর্জিত সুদ করের আওতায় চলে আসবে।

কেন্দ্রীয় প্রত্যক্ষ কর বোর্ড (CBDT) এই নিয়ম জারি করে ইতিমধ্যেই জানিয়েছে, একজন কর্মীর করযোগ্য অবদান এবং করযোগ্য নয়, এমন অবদানের হিসেব আলাদা ভাবে রক্ষণাবেক্ষণ করা হবে পৃথক দুই অ্যাকাউন্টে। পিএফ অ্যাকাউন্টের মধ্যে পৃথক অ্যাকাউন্টগুলি বজায় রাখা হবে।

যে সমস্ত কর্মচারী পিএফে বছরে আড়াই লক্ষ টাকার বেশি অবদান রাখেন, তাঁদের প্রাপ্ত সুদের উপর কর চাপাতে আয়কর আইনের নতুন বিভাগ ৯ডি অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এর মাধ্যমে সম্প্রতি শেষ হওয়া আর্থিক বছরে একজন ব্যক্তির করযোগ্য অবদানের সুদ গণনা করতেই এই নতুন নিয়ম চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র।

পরবর্তীতে এই একই নিয়ম কার্যকর হবে ইপিএফেও। সেখানেও কোনো অ্যাকাউন্টধারীর তরফে বছরে আড়াই লক্ষ টাকার বেশি অবদান জমা পড়লে, অর্জিত সুদের উপর কর নির্ধারণ করা হবে এই নতুন নিয়মে।

সবমিলিয়ে নতুন নিয়মের উদ্দেশ্য বহুবিধ। কেন্দ্রের লক্ষ্য বিভিন্ন সরকারি কল্যাণমূলক প্রকল্পগুলির সুবিধা যাতে উচ্চ আয়ের ব্যক্তিরা না নিতে পারেন। সরকারি সূত্রে খবর, নিময়গুলি পরবর্তী আর্থিক বছর, অর্থাৎ ১ এপ্রিল থেকে কার্যকর হবে।

আরও পড়তে পারেন:

নতুনদের সুযোগ, পুরভোটের প্রার্থীতালিকা প্রকাশ করল তৃণমূল

রাজ্যের পাশে দাঁড়িয়ে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখরকে তোপ দাগলেন বিক্ষুব্ধ বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার

আইসিএসই এবং আইএসসি প্রথম টার্মের ফলাফল ৭ ফেব্রুয়ারি

 সুপ্রিম কোর্টে শুনানির আগেই নিট পিজি পরীক্ষা পিছিয়ে দিল কেন্দ্র

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন