রফতানিতে বাংলাদেশের কাছ থেকে শিক্ষা নিতে পারে ভারত: অর্থনৈতিক সমীক্ষা

0

খবর অনলাইন ডেস্ক: বাংলাদেশ এখন একটি শক্তিশালী রফতানিকারক দেশ। তাদের কাছ থেকেই বেশি কিছু বিষয়ে ভারতকে “শিক্ষা” নেওয়ার পরামর্শ দিল অর্থনৈতিক সমীক্ষা ২০২১ (Economic Survey 2021)।

শুক্রবার প্রকাশিত সমীক্ষাটিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের কাছ থেকে কয়েকটি ক্ষেত্রে “শিক্ষা” নিতে পারে ভারত। যে পণ্যগুলিতে প্রতিযোগিতামূলক আবহ রয়েছে, সেগুলিতে বিশেষ ভাবে মনোনিবেশ করা যেতে পারে।

রফতানিতে বাংলাদেশের চমকপ্রদ বৃদ্ধি

সমীক্ষায় বলা হয়েছে, পণ্য রফতানিতে ২০১১-২০১৯ সময়কালের মধ্যে বাংলাদেশের কম্পাউন্ড অ্যানুয়াল গ্রোথ রেট (CAGR) চমকপ্রদ ভাবে ৮.৬ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছিল। যেখানে ভারতে এই হার ০.৯ শতাংশ এবং বিশ্বের গড় হার ছিল মাত্র ০.৪ শতাংশ।

২০১১ সালে বিশ্ব-রফতানিতে বাংলাদেশের অংশীদারিত্ব ছিল ০.১ শতাংশ, যা ২০১৯ সালে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ০.৩ শতাংশ।

সমীক্ষায় নির্দিষ্ট করে বলা হয়েছে, শীর্ষ পাঁচটি রফতানি পণ্য (যেমন বস্ত্র, পোশাক এবং পাদুকার মতো শ্রমনির্ভর ক্ষেত্র) বাংলাদেশের মোট রফতানির ৯০ শতাংশের বেশি অংশ দখল করে রয়েছে।

কী এই অর্থনৈতিক সমীক্ষা

মূলত দেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতির চুলচেরা বিশ্লেষণ করা হয় অর্থনৈতিক সমীক্ষায়। আগামী অর্থবর্ষের বাজেটকে দিশা দেখানোর জন্যই এই বিশেষ সমীক্ষা করা হয়।

বাংলাদেশের তথ্য উদ্ধৃত করে কেন্দ্রের বাজেট (Union Budget) অধিবেশন শুরুর দিনে প্রকাশিত সমীক্ষায় বলা হয়েছে, “প্রতিযোগিতামূলক এমন পণ্যগুলিতে বাংলাদেশের কাছ থেকে ভারতের শিক্ষা নেওয়ার প্রয়োজন রয়েছে”।

উল্লেখ্যনীয় ভাবে বাণিজ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ (LDC)-এর অন্তর্ভুক্ত হওয়ায় বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশে শুল্ক ছাড়ের সুবিধা পেয়ে থাকে।

আরও পড়তে পারেন: রেশন দোকানের মাধ্যমে সরবরাহ খাদ্যশস্যের দর সংশোধনের প্রস্তাব অর্থনৈতিক সমীক্ষায়

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন