এজিআর মামলায় সুপ্রিম কোর্টে ধাক্কা খেল এয়ারটেল, ভোডাফোন

0

খবর অনলাইন ডেস্ক: অ্যাডজাস্টেড গ্রস রেভিনিউ (AGR) মামলার রায় ঘোষণা করল সুপ্রিম কোর্ট। ভারতী এয়ারটেল, ভোডাফোনের মতো টেলিকম সংস্থাগুলি এজিআর গণনায় ‘ত্রুটি’ সংশোধনের আবেদন জানিয়েছিল। শুক্রবার সেই আবেদন খারিজ করে দিল সুপ্রিম কোর্ট।

এমনিতে বিশাল অঙ্কের বকেয়া এজিআর পরিশোধ করা নিয়ে তীব্র সংকটে পড়েছে দেশের অন্যতম টেলিকম সংস্থাগুলি। গত বছর শীর্ষ আদালত জানায়, বকেয়া মেটানোর জন্য টেলিকম সংস্থাগুলি ১০ বছর পর্যন্ত সময় পাবে। এর পরেও টেলিযোগাযোগ দফতরের (DoT) দাবি করা এজিআর বকেয়ার পরিমাণ পুনর্নির্ধারণের আবেদন জানায় দুই টেলিকম সংস্থা ভোডাফোন আইডিয়া (Vodafone Idea) এবং ভারতী এয়ারটেল (Bharti Airtel)।

Loading videos...

গত বছরের সেপ্টেম্বরে শীর্ষ আদালত বলে, বকেয়া পরিশোধের জন্য ১০ বছরের সময়সীমা শুরু হবে আগামী ২০২১ সালের ১ এপ্রিল থেকে। সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি অরুণ মিশ্রের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ নির্দেশ দেয়, এক বার শুরু হওয়ার পর বাকি কিস্তির টাকা প্রতি বছরের ৭ ফেব্রুয়ারির মধ্যে জমা করতে হবে।

একই সঙ্গে বেঞ্চ জানায়, মোট বকেয়ার ১০ শতাংশ এজিআর ২০১৯ সালের ৩১ মার্চের মধ্যে মিটিয়ে দিতে হবে। এজিআর বকেয়া নিয়ে ডটের মূল্যায়নে আর কোনো পরিবর্তন হবে না বলেও জানিয়ে দেয় শীর্ষ আদালত।

কিন্তু নির্ধারিত সময় পার হয়ে গেলেও টেলিকম সংস্থাগুলি বকেয়া মেটায়নি। তাদের অভিযোগ, ডটের হিসেবে ত্রুটি রয়েছে। ফলে পুনরায় গণনা করতে হবে। তারা আরও দাবি করে, ইতিমধ্যেই ১০ শতাংশের বেশি বকেয়া মিটিয়ে দেওয়া হয়েছে।

বিচারপতি এলএন রাওয়ের নেতৃত্বে সুপ্রিম কোর্টের বেঞ্চের রায় বৃহস্পতিবার ঘোষণা হওয়ার কথা থাকলেও শেষ মুহূর্তে তা বাতিল হয়ে যায়।

একই সঙ্গে এজিআর-এর পরিমাণ নির্ধারণে ডটের অঙ্কে বড়োসড়ো বিভ্রান্তি রয়েছে বলে দাবি করেছে সংস্থাগুলি। সরকারি পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ভোডাফোন আইডিয়া এবং ভারতী এয়ারটেলের এজিআর বকেয়ার পরিমাণ যথাক্রমে ৫৮ হাজার ২৫৪ টাকা এবং ৪৩ হাজার ৯৮০ টাকা। অন্য দিকে টাটা টেলিসার্ভিসের বকেয়ার পরিমাণ ১৬ হাজার ৭৯৮ টাকা।

আরও পড়তে পারেন: আসছে সরকারি ডিজিটাল কারেন্সি, পরীক্ষামূলক ভাবে চালু করার চিন্তাভাবনা রিজার্ভ ব্যাঙ্কের

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন