সিএএ বিক্ষোভে মার খাচ্ছে পর্যটন শিল্প

0
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ)-এর বিরুদ্ধে দেশ জুড়ে প্রতিবাদ কয়েক দিন ধরেই অব্যাহত রয়েছে। শীতকালের এই ছুটির মরশুমে পর্যটন শিল্পে যার জোরালো প্রভাব পড়েছে বলেই জানিয়েছেন পর্যটন ব্যবসায়ীরা।

সিএএ নিয়ে বিক্ষোভের জেরে বিশ্বের একাধিক দেশ নিজের নাগরিকদের ভারত ভ্রমণের উপর বিশেষ নির্দেশ জারি করেছে। এই শীতের সময় ভারতে পর্যটকদের ঢল বছরের অন্য সময়ের থেকে তুলনামূলক ভাবে বেশি থাকে। কিন্তু আইন শৃঙ্খলাজনিত অবণতির কারণে তাতে ভাঁটা পড়েছে।

ট্র্যাভেল এজেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি জ্যোতি মায়াল পিটিআইয়ের কাছে জানিয়েছেন, “আমরা বিদেশি পর্যটকদের কাছ থেকে আশঙ্কাজনক সাড়া পাচ্ছি। যাঁরা দেশের বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে চাইছেন, সংবাদ মাধ্যমের প্রতিবেদনও পড়ছেন। তবে এখনও পর্যন্ত বড়ো কোনো সফর বাতিল বা পুনর্নির্ধারণ হয়নি”।

একই সঙ্গে তিনি দাবি করেন, অস্থিরতা অব্যাহত থাকলে সফর বাতিল হওয়াটাই স্বাভাবিক।

গত কয়েক দিন ধরে আমেরিকা, ব্রিটেন, কানাডা, সংযুক্ত আরব আমিরশাহি, রাশিয়া এবং অস্ট্রেলিয়া-সহ অন্যান্য দেশগুলি নিজের নাগরিকদের উদ্দেশে ভারতে, বিশেষ করে উত্তর-পূর্বে ভ্রমণে সতর্কতা বা পুনর্বিবেচনা করার পরিকল্পনার পরামর্শ জারি করেছে।

জানা গিয়েছে, এমনিতেই এই বছরের শুরুর দিকে পর্যটক সংখ্যা উল্লেখযোগ্য বৃদ্ধি পায়নি। একই সঙ্গে বর্তমানে যে ধরনের পরিস্থিতি চলছে, এই শিল্পের উপর আঘাত আরও মারাত্মক হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

[ আরও পড়ুন: অর্থনৈতিক সংকটে মুখোশ চড়ানোই মোদী-শাহের চরম প্রাপ্তি ]

তথ্য অনুসারে, ২০১৯ সালের প্রথমার্ধে (এইচ ১) বিদেশি পর্যটকদের আগমনে প্রান্তিক বৃদ্ধি দেখিয়েছে ৫২.৬৬ লক্ষ, যা ২০১৫ সালের একই সময়ের তুলনায় ২.২ শতাংশ বেশি। কিন্তু গত বছরের প্রথমার্ধে এই বৃদ্ধির হার ছিল ৭.৭ শতাংশ।

------------------------------------------------
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.