ওয়েবডেস্ক: করোনাভাইরাস মহামারির জেরে লকডাউনের কারণে কাজ চলে গিয়েছিল লক্ষ লক্ষ মানুষের হাত থেকে। লকডাউন শিথিল হওয়ার পর কল-কারখানা, ব্যবসা-বাণিজ্য পুনরায় চালু হওয়ার পর বেকারত্বের (unemployment) হার কিছুটা কমেছিল। তবে আপাত ভাবে বেকারত্ববৃদ্ধির জন্য শুধু করোনার ঘাড়ে ‘দায়’ চাপালেই কি সমস্ত ‘দায়িত্ব’ ঝেড়ে ফেলা যায়?

প্রথম বার প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী নরেন্দ্র মোদী সাত বছর আগে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, তিনি ক্ষমতায় এলে বছরে দু’কোটি বেকারের হাতে কাজ জুটবে। সাত বছরের মেয়াদে শেষবারের মে দিবসের কয়েকদিন আগে-পরে তাঁর সেই প্রতিশ্রুতি বাস্তাবায়িত হল কাজ জুট‌ত ১৪ কোটি বেকারের হাতে। অথচ, তাঁর প্রথম পাঁচ বছরের মেয়াদ শেষ হওয়ার সময় একটি বেসরকারি সংস্থার সমীক্ষা আগেই জানিয়েছে , বিগত ৪৫ বছরের মধ্যে সর্বাধিক বেকারত্বের নমুনা বয়ে নিয়ে বেড়াচ্ছে তাঁরই শাসনকাল।

সেন্টার ফর মনিটরিং ইন্ডিয়ান ইকনমি (সিএমআইই)-র পরিসংখ্যান থেকে স্পষ্ট, ২০১৭-’১৮ সালে বেকারত্বের হারের সঙ্গে খুব একটা ফারাক নেই করোনা আবহে বেকারত্বের হারের। সংস্থার একটি রিপোর্ট জানিয়েছিল, ওই বছরের এপ্রিলের প্রথম তিন সপ্তাহে দেশে বেকারত্বের হার দাঁড়িয়েছিল যথাক্রমে ৭.৯%, ৮.১% এবং ৮.৪%। এখন কত? দেখে নেওয়া যাক নীচের তালিকায়-

শেষ ১২ মাসে বেকারত্বের হার

 মাসভারতশহরগ্রাম
এপ্রিল ২০২১৭.৯৭৯.৭৮৭.১৩
মার্চ ২০২১৬.৫২৭.২৪৬.১৯
ফ্রেব্রুয়ারি ২০২১৬.৯০৬.৯৯৬.৮৬
জানুয়ারি ২০২১৬.৫৩৮.০৮৫.৮৩
ডিসেম্বর ২০২০৯.০৬৮.৮৪৯.১৫
নভেম্বর ২০২০৬.৫০৭.০৭৬.২৪
অক্টোবর ২০২০৭.০২৭.১৮৬.৯৫
সেপ্টেম্বর ২০২০৬.৬৮৮.৪৫৫.৮৮
আগস্ট ২০২০৮.৩৫৯.৮৩৭.৬৫
জুলাই ২০২০৭.৪০৯.৩৭৬.৫১
জুন ২০২০১০.১৮১১.৬৮৯.৪৯
মে ২০২০২১.৭৩২৩.১৪২১.১১

উপরের তালিকাটি সিএমআইই-এর তৈরি করা। যেখানে গত বছরের এমনই এক মে দিবস থেকে শুরু হয়ে এ বছরের মে দিবসের (May Day) আগের দিন পর্যন্ত ভারতে বেকারত্বের হারের পরিসংখ্যান তুলে ধরেছে। বিশ্বের শ্রমজীবী মানুষের অধিকার আদায়ের বিশেষ দিনে এ ধরনের পরিসংখ্যান কতটা স্বস্তিদায়ক?

ভারতের সামনে সব থেকে বড়ো চ্যালেঞ্জ যে কর্মসংস্থান, সে কথা নতুন করে বলার নয়। কিন্তু ভোটের বাজারে সে সব নিয়ে রাজনৈতিক দলগুলি ব্যাপক সরব হলেও ক্ষমতা কুক্ষিগত হওয়ার পর ক্রমশ ফিকে হয়ে যায় সেই ইস্যু। তার উপর বর্তমানের করোনা আবহ বেকারত্ব ইস্যুতে কিছুটা হলেও স্বস্তি দিলেও দিতে পারে শাসককে।

আরও পড়তে পারেন: অক্সিজেন সিলিন্ডার-সহ চিকিৎসা সরঞ্জাম সরবরাহের ব্যবসায় দ্রুত ঋণ দিচ্ছে এই ব্যাঙ্ক

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন