সন্ত্রাসবাদে মদত দিতে পারে ফেসবুকের লিব্রা, আশঙ্কা আমেরিকার

0
libra

ওয়েবডেস্ক: কয়েক দিন আগেই সুদীর্ঘ টুইটার পোস্টে ফেসবুকের প্রস্তাবিত ক্রিপ্টোকারেন্সি লিব্রা নিয়ে তোপ দেগেছিলেন আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মাদক ব্যবসা এবং বেআইনি কাজে এই ক্রিপ্টোকারেন্সি ব্যবহৃত হতে পারে বলে তিনি আগাম আশঙ্কা প্রকাশ করেন। এ বার তাঁর অর্থ বিভাগ জানাল, সন্ত্রাসবাদে মদত দিতে পারে ফেসবুকের লিব্রা।

একটি বড়োসড়ো টুইটার পোস্টে ট্রাম্প বলেন, “আমি বিটকয়েন বা অন্য কোনো ক্রিপ্টোকারেন্সির আনুরাগী নই। এগুলো টাকা নয়। হালকা বাতাসের উপর ভর করে এগুলো ওঠানামা করে। অনিয়ন্ত্রিত ক্রিপ্টোকারেন্সির সম্পদ মাদক ব্যবসা এবং অন্যান্য অবৈধ কার্যকলাপ-সহ বেআইনি আচরণকে সহজতর করে তোলে”।

আমেরিকার অর্থ বিভাগ আরও কয়েক কদম এগিয়ে জানিয়েছে, লিব্রা সন্ত্রাসবাদে মদত এবং অবৈধ আর্থিক লেনদেনে সহায়তা করতে পারে। আমেরিকার ট্রেজারি ডিপার্টমেন্টের সচিব স্টিভেন মুচিন সাংবাদিক বৈঠকে জানান, এটা একটা ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। সন্ত্রাসবাদে অর্থের জোগানদার এবং অন্যান্য বদ-উদ্দেশের মানুষেরা এই ক্রিপ্টোকারেন্সিকে মাধ্যম হিসাবে ব্যবহার করতে পারে।


স্টিভেন মুচিন

[ লিব্রা নিয়ে ফেসবুকের মন্তব্য, পড়ুন এখানে ক্লিক করে ]

তিনি বলেন, “ফেসবুকের লিব্রা এবং অন্যান্য উন্নত ক্রিপ্টোকারেন্সির প্রতি সম্মান জানিয়েই বলতে চাই, আমাদের (আমেরিকার) লক্ষ্য হচ্ছে, নিজের আর্থিক অখণ্ডতাকে বজায় রাখা এবং একই সঙ্গে এটির অপব্যবহার থেকে বিরত থেকে দেশকে সুরক্ষিত রাখা”।

ফেসবুকের ক্রিপ্টোকারেন্সির গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেন স্টিভেন। ঠিক যে ভাবে করেছিলেন ট্রাম্প। বিশদ পড়ুন এখানে ক্লিক করে

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here