এক দিকে কড়াকড়ি শিথিল, অন্য দিকে সংক্রমণ বাড়ন্ত, কোন দিকে ঝুঁকে সপ্তাহ শুরুর শেয়ার বাজার?

0
Sensex nifty Stock market

ওয়েবডেস্ক: করোনাভাইরাস মহামারির (Coronavirus pandemic) ধাক্কা কাটিয়ে ফের চাঙ্গা হচ্ছে এ দেশের শেয়ার বাজার। তবে দুই মূল সূচক সেনসেক্স (Sensex) এবং নিফটির (Nifty 50) ঊর্ধ্বগমন কতটা স্থায়ী, সে প্রশ্নেই দোলাচলে ভুগছেন শেয়ার কারবারিরা।

রাত পোহালেই সোমবার থেকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক ঘোষিত আনলক-১ (Unlock-1)। হোটেল, রেস্তোঁরা, শপিং মল, ধর্মীয়স্থান থেকে শুরু করে সরকারি, বেসরকারি সংস্থা নির্দিষ্ট নিয়ম মেনে খুলে যাচ্ছে। তবে সরকার যখন লকডাউনের কড়াকড়ি সিদ্ধান্ত ঘোষণা করে, তখন ভারতে সংক্রমণের সংখ্যা প্রতিদিনের নিরিখে এতটা বেশি ছিল না। শেষ কয়েক দিন আট হাজারের উপরে রয়েছে সারা দেশে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা।

অর্থাৎ, এক দিকে আক্রান্তের সংখ্যা তুলনামূলক ভাবে বাড়ছে, অন্য দিকে কড়াকড়ি শিথিল হচ্ছে- এই আপাত-পরস্পরবিরোধী বিষয় দু’টিকে কেন্দ্র করে বিনিযোগকারীরা পড়েছেন দু:শ্চিন্তায়। বাজার বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নিফটির দৌড় হয়তো এই ঝটকায় থামতে পারে ১০,৫০০ পয়েন্টে ঠেকে। শুক্রবার বাজার বন্ধের সময় যা ছিল ১০,১৪২ পয়েন্টে।

বিশ্লেষকদের যুক্তি, গত ২৩ মার্চ প্রায় সাড়ে সাত হাজার পয়েন্টের খাদে পড়ে যাওয়া নিফটি যে ভাবে ১০,২০০-র লক্ষ্যে ঘোরাফেরা করছে, তাতে টেকনিক্যাল চার্ট-সহ অন্যান্য গ্রাফ বলছে, ৯,৯০০-র সাপোর্টে ভর করে ১০,৫০০ পাড়ি দেওয়ার জন্য উদগ্রীব হয়ে রয়েছে। তা হলে সোমবার থেকে কী ছবি দেখা যেতে পারে?

টানা এক সপ্তাহ ক্রমশ একটার পর একটা সিঁড়ি ভেঙেছে শেয়ার বাজারের সমস্ত সূচক। গত মার্চে যে অবস্থানে ছিল, যে কোনো স্টকের দাম, এখন তা অনেকটাই পুনরুদ্ধার সম্ভব হয়েছে। সোমবার বাজারে প্রভাব ফেলতে পারে আমেরিকা-চিনের ব্যবসায়িক দ্বন্দ্বের সাময়িক ইতি। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প চিনা সংস্থার উড়ান বাতিল করেও গত শুক্রবার নির্দিষ্ট সংখ্যক বিমান ওড়ানোর অনুমতি দিয়েছে। একই পথ ধরেছে চিন।

জানুয়ারি-মার্চ ত্রৈমাসিকের আয়-ব্যায়ের রিপোর্ট এ সপ্তাহে পেশ করতে চলেছে বেশ কয়েকটি সংস্থা। আইনক্স লেজার, চালেত হোটেল, পিভিআর, টাইটান, বম্বে ডাইং, হিরো মোটোকর্প, ইন্ডিয়ান হোটেলস, মাহিন্দ্রা অ্যান্ড মাহিন্দ্রা, ভেল মার্চ ত্রৈমাসিকের রিপোর্ট পেশ করবে চলতি সপ্তাহেই। ফলে সেগুলির প্রভাব পড়বে বাজারে।

অন্য দিকে ব্যাঙ্ক নিফটিও যথেষ্ট চাঙ্গা। সরকারি-বেসরকারি ব্যাঙ্কগুলির বেশিরভাগই ৫০ দিনের গড় ওঠানামার শীর্ষে অবস্থান করছে।

কিন্তু বাজার বিশ্লেষকদের মতে, ঝুঁকি থাকবেই। করোনা, লকডাউন, অর্থনৈতিক মন্দা থেকে এখনই বেরোতে পারবে না শেয়ার বাজার।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন