নয়াদিল্লি: সুরাত হাওয়ালা মামলা ও আইপিএল বেটিং কাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে ইডি, আহমেদাবাদের প্রাক্তন যুগ্ম অধিকর্তা জেপি সিং-কে গ্রেফতার করল সিবিআই। সঙ্গে গ্রেফতার করা হয়েছে জেপি সিং-এর তৎকালীন অধস্তন কর্মচারী সঞ্জয় কুমার ও আরও ২ জনকে। জেপি-র বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি সুরাত হাওয়ালা মামলায় অভিযুক্তের থেকে এবং ২০১৫-১৬ সালে সামনে আসা আইপিএল বেটিং কাণ্ডে ‘বিপুল পরিমাণ অর্থ’ নিয়েছিলেন।

সিবিআই মুখপাত্র আরকে গৌড় জানিয়েছেন, জেপি, কুমার ও অন্য দু’জনকে তাঁরা আগেই গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতার করা হয়েছে ৩ জন বুকি-কেও। সিবিআই-এর দাবি, ওই তিন বুকি, জেপি সিং-এর লিঙ্কম্যান হিসেবে কাজ করতেন। তাদের মাধ্যমেই তিনি সুরাত হাওয়ালা মামলা ও আইপিএল বেটিং কাণ্ডে টাকা তুলতেন। ওই দুই মামলারই তদন্তকারী ছিলেন তিনি।

ইডি আধিকারিকরাই জেপি সিং-এর বিরুদ্ধে এফআইআর করেছিলেন। জেপি যে সব অভিযুক্তের বিরুদ্ধে তদন্ত চালিয়েছিলেন, তাদের অনেকেই জেপি-র বিরুদ্ধে ঘুষ চাওয়া ও হেনস্থা করার অভিযোগ জানান। সিবিআই-এর আগে এ বিষয়ে তদন্ত করে রিপোর্ট দিয়েছিল ইন্টেলিজেন্স ব্যুরো। আহমেদাবাদের বিশেষ আদালতে সিবিআই, আইবি-র তদন্তের একটি নথি জমা দেয়। তাতে বলা হয়েছে, জেপি সিং ‘কয়েকজন ব্যক্তিকে গ্রেফতার না করার মূল্য হিসেবে টাকা নিয়েছিলেন’।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন