ওয়াশিংটন: কলমের কয়েকটা খোঁচায় প্রায় সাড়ে ১৩ কোটি মানুষের আমেরিকা যাওয়া আটকে দিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আপাতত ৯০ দিনের জন্য।

৭টি মুসলিম প্রধান দেশের নাগরিকদের জন্য জারি হল এই নিষেধাজ্ঞা। দেশগুলি হল ইরাক, ইরান, সুদান, লিবিয়া, সোমালিয়া, ইয়েমেন ও সিরিয়া। ভবিষ্যতে আরও দেশের নাম তালিকায় যুক্ত হতে পারে বলে জানিয়েছেন হোয়াইট হাউজের এক আধিকারিক। ট্রাম্পের শুক্রবারের এই নির্দেশ, ভবিষ্যতে আরও বড়ো নিষেধাজ্ঞার পথে যাওয়ার প্রথম পদক্ষেপ বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

এই সিদ্ধান্তের কারণ হিসেবে হোয়াইট হাউজের তরফে বলা হয়েছে, “আমেরিকাকে নিরাপদ রাখাই এই সিদ্ধান্তের লক্ষ্য” এবং তাঁরা “কোনো ঝুঁকি নিতে চাইছেন না”।

এদিন উদ্বাস্তুদের আমেরিকায় ঢোকার ক্ষেত্রেও চার মাসের নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন ট্রাম্প। এই সময় কালে উদ্বাস্তুদের আবেদন খতিয়ে দেখবে ট্রাম্প প্রশাসন। 

এর আগে বছরে এক লক্ষ দশ হাজার উদ্বাস্তুকে আমেরিকায় প্রবেশের অনুমতি দিত ওবামা প্রশাসন। সেই সংখ্যাটা এক ধাক্কায় কমিয়ে পঞ্চাশ হাজার করে দিয়েছেন ট্রাম্প।

উদ্বাস্তুদের আমেরিকায় যাওয়ার অনুমতি দেওয়ার ক্ষেত্রে তাঁদের ধর্মীয় পরিচয়কে অগ্রাধিকার দেবে ট্রাম্প প্রশাসন। “ব্যক্তির ধর্মীয় পরিচয়টি হতে হবে সংখ্যালঘুর ধর্ম”। এর অর্থ হল, মুসলিম প্রধান দেশগুলি ক্রিশ্চান ধর্মাবলম্বীদের উদ্বাস্তু হিসেবে অনুমতি দেওয়া হবে অন্যদিকে সেই সব দেশের মুসলিমদের আমেরিকায় যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হবে না। 

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here