IPL-Live

ওয়েবডেস্ক: নাহ্! এয়ারটেল একবারের জন্যও দাবি করছে না, মানে সরাসরি বলছে না যে তাদের এই নয়া রিচার্জ প্ল্যান চলতি মাসের ৭ তারিখ থেকে শুরু হওয়া ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের খেলাকে কেন্দ্র করে বাজারে নিয়ে আসা হয়েছে!

কিন্তু এই প্ল্যানে আদতে যা অফার করছে সংস্থা, তার থেকে একটা ব্যাপার স্পষ্ট- এটা আইপিএল-এর খেলাকে নিয়ে টেলেকম সংস্থাগুলোর লড়াইয়ে এগিয়ে থাকার একটা প্রয়াস ছাড়া আর কিছুই নয়! কেন না, সংস্থা এই নয়া প্রিপেড রিচার্জ প্ল্যানে বিশেষ করে জোর দিয়েছে ভিডিও স্ট্রিমিংয়ের উপরে। এটুকু বলতে দ্বিধা করছে না যে এর আগের রিচার্জ প্ল্যানগুলোর তুলনায় এই প্ল্যান ভিডিও স্ট্রিমিংয়ে অনেক বেশি কার্যকরী হবে!

পাশাপাশি, রিলায়েন্স জিও আর বিএসএনএল-এর ভাঁড়ারেও আছে শুধুমাত্র আইপিএল-কে কেন্দ্র করে বাজারে আনা দুটি রিচার্জ প্ল্যান। কোন সংস্থা কী অফার দিচ্ছে, দেখে নেওয়া যাক এক এক করে!

এয়ারটেল:

শুরুটা এই সংস্থা দিয়েই হোক! হাজার হোক, তাদের প্ল্যানটাই একেবারে টাটকা! জানা যাচ্ছে, ৪৯৯ টাকার এই প্রিপেড রিচার্জ প্ল্যানে ৮২ দিনের জন্য প্রত্যেক দিন ২ জিবি করে ৪জি ডেটা পাওয়া যাবে। সঙ্গে পাওয়া যাবে দিন পিছু ১০০টি করে এসএমএস এবং অফুরন্ত লোকাল বা ন্যাশনাল কলিংয়ের সুবিধা।

রিলায়েন্স জিও:

জিও-র প্যাকটি ২৫১ টাকার বিনিময়ে ৫১ দিনের জন্য ১০২ জিবি ৪জি ইন্টারনেট ডেটা দিচ্ছে। মানে দিন পিছু পাওয়া যাচ্ছে ২ জিবি করে ডেটা! ৫১ দিন ধরে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ-এর খেলা এই বিশেষ প্যাকের মাধ্যমে যেখানে খুশি, যতক্ষণ খুশি দেখতে পারবেন গ্রাহকরা, দাবি সংস্থার।

বিএসএনএল:

অন্য দিকে, বিএসএনএল-এর এই প্যাকের দাম ধার্য হয়েছে ২৪৮ টাকা। তেমন কিছু কম নয় জিও-র তুলনায়, মাত্র ৩ টাকা। কিন্তু বিএসএনএল এই প্ল্যানের আওতায় গ্রাহককে দিন পিছু ৩ জিবি করে ৪জি ইন্টারনেট ডেটা দিচ্ছে।

তবে বিএসএনএল-এর এই অফার নিতে হলে রিচার্জ করাতে হবে ৭-৩০ এপ্রিলের মধ্যেই। এ ক্ষেত্রে জিও সময় দিচ্ছে ৭ এপ্রিল থেকে ২৭ মে পর্যন্ত। এয়ারটেল অবশ্য এ সব সময়সীমা বেঁধে দিচ্ছে না, সে দিক থেকে সুবিধা করে রেখেছে গ্রাহকের!

এ বার সিদ্ধান্ত আপনার!

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন