sensex,Nikkei 225,Dow Jones Industrial Average

লক্ষ্য করেছেন কি, ভারত ইলেক্ট্রনিক্স লিমিটেড বা বেল লম্বা রেসের ঘোড়াদের জন্য হাতছানি দিয়ে চলেছে? রাজনৈতিক তর্ক-বিতর্ককে সরিয়ে রেখে দেখা যাচ্ছে, এই মুহূর্তে সংস্থায় বিপুল পরিমাণ সরকারি লগ্নি হয়েছে। বেলকে চাঙ্গা করে না তুলতে পারলে যে দেশের অগ্রগতিকে সঠিক জায়গায় নিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়, তা বুঝেছে সরকার।  এই সংস্থা রয়েছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের অধীনে। এই মন্ত্রকটিকে যে কোনো সরকারই অধিক মাত্রায় গুরুত্ব দিয়ে এসেছে বরাবর। ফলে ভারতের এই মহারত্ন সংস্থার অদূর ভবিষ্যৎ কতটা ঝকঝকে তা কিছু দিনের মধ্যেই পরিষ্কার হয়ে যাবে বলেই মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।

গত এক বছর সময় কালের মধ্য়ে বেলের সর্বনিম্ন দর পৌঁছেছিল ১০৯ টাকায়। কিন্তু এখন তা ঘোরাফেরা করছে ১৮০-১৯০ টাকার আশেপাশে। এ বিষয়ে এই স্টকটির ভিত যে কতটা শক্ত তা বুঝতে একটি উদাহরণের প্রয়োজন হয়ে উঠছে। গত ১৮ ডিসেম্বর, সোমবার সকাল সকাল বসেছিল গুজরাত নির্বাচনের ভোট গণনার আসর। পৌনে ১০টা নাগাদ কংগ্রেস যখন বিজেপির থেকে সামান্য এগিয়ে যায়, দেখা যায় বাজার হুড়মুড়িয়ে নিম্নগামী হয়ে ওঠে। প্রায় সব স্টকই ৩-৪ শতাংশ নীচে নেমে যায়।

কিন্তু বেলের ক্ষেত্রে তার প্রভার ততটা দেখা গেল না। এমনকী সরকারি সংস্থা হওয়া সত্ত্বেও। কারণ বেলের ওই শক্ত ভিত। এবার আসা যাক কাজের কথায়। আজ বেল ওপেনিং প্রাইসটা দেখুন। এরপর অপেক্ষা করুন ১৮১-১৮২ টাকার জন্য। ওই দর ছুঁলেই সিদ্ধান্ত নিতে পারেন কিনে ফেলার। কারণ এক বছরে এই স্টক পৌঁছে যেতে পারে ২২০টাকায়।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here