sensex,Nikkei 225,Dow Jones Industrial Average

বিশেষ প্রতিনিধি: এইচডিএফসি, অ্যাক্সিস এবং স্টেট ব্য়াঙ্ক অব ইন্ডিয়া। এই তিনটি ব্যাঙ্কই এখন লংটার্মের বিনিয়োগকারীদের কাছে আলোচ্য বিষয় হয়ে উঠেছে। এসবিআইয়ের কথা আগেও বলা হয়েছে। এমন কিছু ভুক্তভোগী বিনিয়োগকারী আছেন, যাঁরা আজ থেকে চার বছর আগে ৩০০-৩২০ টাকার ঘরে এসবিআই কিনে এখনও হাত গুটিয়ে বসে আছেন, কেন?

ওই সময় এসবিআই স্প্লিট হওয়ার পর ৩০০টাকার কাছাকাছি নামতেই অনেকে বিনিয়োগ করে ফেলেছিলেন। কিন্তু তার পর সামান্য বাড়লেও লাভের অঙ্কের দিকে তাকিয়ে অনেকেই ধরে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়ে নেন। তবে তার পর থেকে এই স্টককে আর উপরের দিকে উঠতে দেখা যায়নি। এমনও হয়েছে দেড়শো টাকায় নেমে এসেছে। স্বাভাবিক ভাবেই ওই লংটার্মের বিনিয়োগকারীরা এখনও অপেক্ষা করছেন। কারণ এসবিআই গত বছরের শেষ প্রান্তে ৩৫০ টাকায় গেলেও চার বছরের বিনিয়োগ থেকে এত কম রিটার্নে সন্তুষ্ট হওয়ার কথা নয়।

এক এসবিআই বিনিয়োগকারী আক্ষেপ করে বলছিলেন, সেনসেক্স-নিফটি ৩৬ হাজার-১১ হাজার ছুঁয়ে ফেলল, আর এসবিআই সেই পড়েই রইল!

সত্যিই তাই। সাড়ে তিনশো ছুঁয়ে আসার পরেও এসবিআই তিনশোর ঘাটে সেই যে নোঙর ফেলেছে নড়ার নাম নেই। অথচ ব্যাঙ্কের ভাঁড়ার এত ভালো খবরের ছড়াছড়ি। তবে এসবিআই এ বার শীতঘুম কাটিয়ে উঠতে চলছে। গত বুধবার ৩৩০ টাকায় ঘুরে এসে বৃহস্পতিবার ফের ৩১১ টাকায় ফিরে এসেছে এই স্টক। কিন্তু এর সব থেকে দর্শনীয় বিষয়টি হল ভলিউম। যা গত কয়েক দিন গায়েব হয়ে গিয়েছিল। গত দু-দিনে এর ভলিউম চার-পাঁচ কোটিতে গিয়ে ঠেকেছে। তার মানে আবার প্রাণ ফিরে পেতে চলেছে এসবিআই। ব্যাঙ্কের বেসরকারিকরণ বা এফআরডিআই নিয়ে যে টালমাটাল পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে, তা সামাল দিয়ে এ বার এসবিআইয়ের গন্তব্য় কিন্তু চারশোর দিকেই। নজরে রাখা ভালো এইচডিএফসি এবং অ্য়াক্সিস ব্য়াঙ্ককেও।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন