sensex,nifty,share bazar

বিশেষ প্রতিনিধি: একটানা কত দিন বলা যেতে পারে সেই একই কথা। ভারতীয় শেয়ার বাজারকে এখন যে কোনো মতেই পিছনে টেনে ধরা যাবে না, সে কথাই বলা হচ্ছে। এই মুহূর্তে বিশ্বজোড়া বিনিয়োগকারীরা নিজেদের গন্তব্য হিসাবে যে দেশগুলিকে বেছে নিচ্ছেন, সেগুলির তালিকায় বিশ্বের পাঁচ নম্বর স্থানে রয়েছে এ দেশের নাম। সেনসেক্স, নিফটি বা অন্যান্য সূচকগুলির ক্রমবর্ধমান রেখচিত্রের নেপথ্য কারণগুলির মধ্যে অন্যতম হল এই বিষয়টি। বিদেশি বিনিয়োগকারীররা প্রতিদিন যে হারে এ দেশের শেয়ার বাজারে লগ্নি করে চলেছেন, তা বাজারকে পর্যাপ্ত পুষ্টি জুগিয়ে চলেছে।

সেনসেক্স ৩৬ হাজার এবং নিফটি ১১ হাজারের উপরেই স্থির হয়েছে গত বুধবার। মাসের শেষ বৃহস্পতিবার হলেও হাতে রয়েছে আরও তিনটি ট্রে়ডিং ডে। ফলে ইন্টার ডে খেলুড়েদের কাছে অন্য একটা গুরুত্ব বহন করছে এই দিন। কিন্তু যাঁরা স্বল্প মেয়াদের জন্য বিনিয়োগ করতে চাইছেন তাঁদের নিশ্চিন্তে থাকাটাই শ্রেয় বলে মনে হয়।

গত বুধবার সকাল থেকে বাজার যে কার্যকলাপ দেখিয়েছে তাতে অনেকেই আতঙ্কিত হয়ে পড়েছিলেন। মনে করেছেন, এই বুঝি তথাকথিত কারেকশনের সময় চলে এসেছে বাজারের। সেনসেক্স-নিফটি প্রত্য়েকটি সূচকই নিম্নমুখী যাত্রা শুরু করে দিয়েছে। কিন্তু এতে ঘাবড়ানোর কিছু নেই, এ মুহূর্তে বাজারে এমন কিছু ঘটবে না, যাতে বিনিয়োগের নাভিশ্বাস উঠতে পারে। বিশেষ করে ছোট আকারের একাধিক বিনিয়োগ, স্বল্প সময়ের জন্য করতে পারলে তো কথাই নেই। এখন বাজারে তাড়াহুড়োর কোনো স্থান নেই। শর্ট টার্মের বিনিয়োগই এই বাজারের জন্য উপযুক্ত।

বিনিয়োগ করবেন কোন কোন স্টকে-এমন প্রশ্নের উত্তর পূর্ববর্তী প্রতিবেদনগুলিতেই রয়েছে। তবে একটা কথা মাথায় রাখলে মন্দ হবে না, বাজারের বর্তমান গতিপ্রকৃতি দেখেই বলা যেতে পারে তথ্যপ্রযুক্তি, ব্যাঙ্কের স্টকে অধিক গুরুত্ব দিলে আগামী আড়াই-তিন মাসের মধ্যে হাতেনাতে ফল মিলবে। আগামী শুক্রবার আলোচনার বিষয় হিসাবে তোলা রইল তেমনই কিছু স্টক।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন