ওয়েবডেস্ক: একটা মনের মতো ফোন পাওয়া তো এখন মুখের কথাই। কিন্তু সেই ফোন যদি আই ফোন এক্সের মতো লাখ খানেক দামের হয়, তা হলে প্রায় বেশির ভাগ মানুষই সেই স্বপ্ন থেকে বিরত থাকবেন। কিন্তু তা যদি পাওয়া যায় প্রায় অর্ধেকের অর্ধেক দামে। মানে ২৬৭০০ টাকায়? তা হলেও কী এক বারও ভাববেন না ফোনটা পাওয়ার ব্যাপারে?

মজা নয়, এটাই সত্যি। বলব, ভেবেই ফেলুন এ বার এই দামে আই ফোন এক্স কেনার ব্যাপারে। শর্ত খালি একটাই। এর জন্য নিতে হবে রিলায়েন্স জিও-র বাই ব্যাক স্কিম।

গ্রাহকদের জন্য রিলায়েন্স নিয়ে এসেছে এই অভিনব স্কিম। এই স্কিমের মাধ্যমে আই ফোন এক্সের দামের ৭০% ফিরিয়ে দেবে রিলায়েন্স, যা প্রায় ৭০ হাজারের কাছাকাছি।

প্রথমে ৮৯ হাজার বা ১ লক্ষ ২ হাজারের মোট দামটাই দিতে হবে। তার পর এক বছর পরে ফোন ফেরত করা হলে সেই সময় ৬২ হাজার ৩০০ টাকা ফেরত দেবে সংস্থা।

তবে সে ক্ষেত্রেও একটা টুইস্ট আছে। এই ফেরত যেমন তেমন নয়। নিয়ম মেনে সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে তবেই হবে টাকা ফেরত। নইলে নয়।

তাই খুব যত্ন করে ব্যবহার করতে হবে ফোনটাকে। তার কোনো ক্ষতি হলে হবে না। সঙ্গে প্রতি মাসে ৭৯৯ টাকার প্ল্যান রিচার্জ করতে হবে। এতে পাওয়া যাবে প্রতি দিন ৩ জিবি ডেটা। আনলিমিটেড কলিং।

আরও পড়ুন : বেশিরভাগ জনপ্রিয় প্রিপেড প্ল্যানে পরিবর্তন করল এয়ারটেল, বিস্তারিত দেখে নিন

ভাবছেন তো কেমন করে পাওয়া যাবে এই সুযোগ?

এ বছর ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে জিও বাইব্যাক অফারের জন্য নাম নথিভুক্ত করতে হবে ৯,৯৯৯ টাকা দিয়ে।

এই ফোন পাওয়া যাবে রিলায়েন্সের রিটেল স্টোর, আমাজন.ইন, জিও.কম, মাইজিও ইত্যাদি পোর্টালের সাহায্যে।

পদ্ধতি হল —–

১/ প্রথমে যেতে হবে জিও.কম-এ।

২/ এর পর হোম পেজে ‘আই ফোন এক্স ৭০% বাইব্যাক’ ব্যানার খুঁজতে হবে।

৩/ সেখানে আই ফোনটির আইএমইআই নম্বর আর নিজের মোবাইল নম্বর এন্টার করতে হবে।

৪/ এর পর ‘আই অ্যাকসেপ্ট টার্মস অ্যান্ড কন্ডিশনস’–এ ক্লিক করতে হবে।

৫/ তার পর নিচের দিকে লেখা ‘সাবমিট’-এ ক্লিক করতে হবে।

৬/ তার পরই স্কিমের অধীনে চলে যাবে ফোন আর নম্বর। তার পর থেকে দায়িত্ব হল অতি যত্নে আর সাবধানে ফোনটা ব্যবহার করা। আর ‘ব্র্যান্ড নিউ কন্ডিশনে’ ফোনটিকে রেখে দেওয়া।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here