hammer and sickle symbol

ওয়েবডেস্ক: গত সেপ্টেম্বর বিশ্বজনীন খুচরো বিক্রেতা ওয়ালমার্টেকে কাস্টে-হাতুড়ির ছবি দেওয়া কোনো পণ্যসামগ্রী বিক্রি বন্ধ করার অনুরোধ জানিয়ে চিঠি দিয়েছিলেন বিশ্বের এক প্রভাবশালী ব্যক্তি। এ বার অনলাইনে পণ্য বিক্রেতা আমাজনের কার্যনির্বাহী অধিকর্তাকে কতকটা একই অনুরোধ জানিয়ে চিঠি দিলেন ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের সদস্যরা। তাঁদের দাবি, সোভিয়েত যুগের চিহ্নসম্বলিত পণ্য বিক্রি করার অর্থ সেই সময়ে ‘অত্যাচারের’ শিকার অংসখ্য মানুষকে অপমানের নামান্তর!

বর্তমানে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের সদস্য সংখ্যা সাড়ে সাতশো। তাঁদের মধ্যে থেকে ২৭ জন সদস্য জানিয়েছেন, সোভিয়েত ইউনিয়নের প্রতিনিধিত্বকারী কাস্তে-হাতুড়ির চিহ্ন দেওয়া যে কোনো পণ্যের বিক্রি বন্ধ করার অনুরোধ জানিয়ে তাঁরা আমাজনকে চিঠি দিয়েছেন।

ওই চিঠিতে স্পষ্ট করেই বলা হয়েছে, কাস্তে-হাতুড়ি চিহ্ন দেওয়া টি-শার্ট, অন্যান্য পোশাক, পতাকা বা স্মারক-সহ যে কোনো পণ্যই বর্জন করুক আমাজন।

তাঁরা বলেছেন, “সোভিয়েত যুগে দুরাবস্থার শিকার হওয়া মানুষের সংখ্যা ৬ কোটির কাছাকাছি। পাশাপাশি সোভিয়েত যুগে এক কোটি মানুষকে সাইবেরিয়ায় নির্বাসনে পাঠানো হয়। সেখানে তাঁদের অমানবিক জীবনযাপনে বাধ্য করা হয়। শারীরিক লাঞ্চনার সঙ্গেই খেতে না দিয়ে অমানুষিক পরিশ্রম করানো হয়”।

ওই সদস্যদের দাবি, “সোভিয়েত যুগের ঘৃণ্য কার্যকলাপ, অমানবিক আচরণ এবং নৃশংসতার দু:সহ স্মৃতি বহন করে চলেছেন কয়েক কোটি মানুষ। ফলে যখন নিত্য ব্যবহার্য কোনো পণ্যে সে যুগের চিহ্ন চোখে পড়ে যন্ত্রণা আরও বাড়িয়ে তোলে”।


আরও পড়ুন: ধর্ষণ মামলার শুনানিতে আদালতে ধর্ষিতার অন্তর্বাস হাতে অভিযুক্তের আইনজীবী! দাবি, কিশোরীর সম্মতি ছিল


পাশাপাশি তাঁরা বলেন, এই একই কারণে বিখ্যাত ক্রীড়া সরঞ্জাম নির্মাতা সংস্থা আদিদাস-ও তাদের তৈরি পণ্য থেকে এই ধরনের চিহ্নগুলিকে বর্জন করেছে গত মে মাসে। উল্লেখ্য, আমাজনের লাল রঙের উপর হলুদ কাস্তে-হাতুড়ির ছবি দেওয়া একটি টি-শার্টের বিক্রির হারও যথেষ্ট।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here