rbi

বিশেষ প্রতিনিধি: বৃহস্পতিবার ২৭০ পয়েন্ট উঁচুতে লাফ দিয়েই  পথ চলা শুরু করেছিল সেনসেক্স। বেলা যত গড়িয়েছে ততই একের পর এক পাহাড়ের চুড়ো ছুঁয়েছে এ দেশের শেয়ার বাজারের এই সূচক। অন্য দিকে নিফটিও তাক লাগানো ফলাফল করে বন্ধ হয়েছে ২ শতাংশ ছুঁইছুঁই অবস্থানে। এই ঘটনা যে ঘটবারই ছিল তা খবরঅনলাইনের বৃহস্পতিবার সকালের বিশ্লেষণে উল্লেখ করা হয়েছিল।

ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্কের সুদের হার ঘোষণা নিয়ে টানটান উত্তেজনা ছিল। কিন্তু তার থেকেও অনেক বেশি ছিল চিন এবং আমেরিকার মধ্যে বাণিজ্য যুদ্ধের নেতিবাচক প্রভাব। এই একটা ঘটনাই বুধবারের নিফটিকে ২০০ দিনের মুভিং অ্য়াভারেজের সব থেকে গভীর খাদটিতে নিয়ে গিয়েছে ফেলেছিল। কিন্তু ওই বাণিজ্য যুদ্ধ যে আদতে ভারতের বাজারের কাছে নকল, ছায়াযুদ্ধ তা বোঝা গেল ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই। সেন্টিমেন্টে ভর করে চলা শেয়ার বাজার বুধবার যতটুকু গরল গিলে ফেলেছিল তার পুরোটাই তাই বৃহস্পতিবার শুষে নিল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক।

আরও: পড়ুন সুদের হার অপরিবর্তিত রাখল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক, জেনে নিন আপনার কী লাভ?

রিজার্ভ ব্যাঙ্ক বলেছে, রেপো রেট এবং রিভার্স রেপো রেটে কোনো বদল ঘটানো হবে না। আগের ৬ এবং ৫.৭৫ শতাংশই বহাল রাখা হবে। এই ঘোষণায় আহ্লাদিত হয়ে পড়েছে প্রত্যেকটি মহল। বিনিয়োগকারী, বাজার এবং সরকার কারও মনে কোনো খেদ রাখেনি আরবিআই। এই একটা সিদ্ধান্তের সঙ্গে দেশের প্রতিটি ক্ষেত্রই অতিপ্রত্যক্ষ বা প্রত্যক্ষ ভাবে যুক্ত।

যেমন সামনে বর্ষার মরশুম। সরকার ঘোষণা করেছে কৃষকের হাতে দেড়গুণ সহায়ক মূল্য তুলে দেবে। এখন বাজার যদি দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে কড়া ভূমিকা নেয় তা হলে এই সিদ্ধান্তে এক দিকে যেমন কৃষকের মুখে হাসি ফুটবে তেমনই ভাঁড়ার নিয়েও স্বস্তিতে থাকতে পারবে সরকার। এই সমস্ত ধারণা থেকেই শেয়ার চাঙ্গা। তবে কয়েক ঘণ্টার খেলের প্রভাব কত দিন স্থায়িত্ব পায় সেটাও দেখার।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here