sensex-bull

ওয়েবডেস্ক: আর্থিক ক্ষেত্রে একই দিনে দু’টি চাঞ্চল্যকর ঘটনার সাক্ষী হল দেশ। যার প্রথমটি অবশ্যই ভারতীয় শেয়ার বাজারের ৩০ স্টকের সূচক সেনসেক্সের সর্বকালীন রেকর্ড ছুঁয়ে ফেলা।

গত জানুয়ারিতে প্ৰথমবার ৩৬ হাজারের গণ্ডি টপকানোর পর সেনসেক্স গত বৃহস্পতিবার ফের সেই মাইলস্টোন টপকে গেল। অন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা দেশের খুচরো বাজারে মুদ্রাস্ফীতির হার গত পাঁচ মাসে ৫ শতাংশ বৃদ্ধি (জুন মাসের হিসাবে)। অর্থাৎ এক দিকে যখন মূল্যবৃদ্ধির হার লাফিয়ে বাড়ছে, তারই সঙ্গে তাল মিলিয়ে শেয়ার বাজারও চড়ছে একটার পর একটা চুড়োয়। এটাই স্বাভাবিক এবং হয়েছেও তাই। মুদ্রাস্ফীতির পূর্বাভাস বরাবর শেয়ার বাজারের বিনিয়োগকারীদের চাঙ্গা করে তোলে। পণ্যের দাম বাড়লে স্টক মার্কেটে বেশি রিটার্ন পাওয়ার প্রত্যাশা তৈরি হয়। এর উল্টো হয় দীর্ঘমেয়াদি সঞ্চয়ের অন্যান্য বিনিয়োগ পদ্ধতির ক্ষেত্রে। যেমন ফিক্সড ডিপোজিটে অর্থ বিনিয়োগ করলে মুদ্রাস্ফীতির ফল সে ক্ষেত্রে নেতিবাচকই হয়।

গত সপ্তাহ থেকে এক টানা প্রতিটা দিন শেয়ার বাজারের সমস্ত সূচকই কম-বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে। গত বৃহস্পতিবার সেনসেক্স .৭৮ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে বন্ধ হলেও নিফটি কিন্তু বন্ধ হয়েছে .৬৮ শতাংশে। এই ফারাক মাঝে মধ্যে দেখা গেলেও খুব একটা ভালো লক্ষণ নয়। নিফটি যেখানে চড়েছিল তার থেকে ৫০ পয়েন্ট নীচে নেমে বন্ধ হওয়ার মধ্যে অন্য কাহিনি জমাট বাঁধার ইঙ্গিত রয়েছে।

আরও পড়ুন: সর্বকালীন রেকর্ড ছুঁয়ে ফেলল ভারতীয় শেয়ার বাজারের সূচক সেনসেক্স

গত সপ্তাহে নিফটির রেজিস্ট্য়ান্স ছিল ১১,১৫০-এ। আশ্চর্যজনক ভাবে গত বৃহস্পতিবার নিফটি পৌঁছেছে ১১,০৭৮.৩০ পয়েন্টে। কিন্তু বন্ধ হয়েছে ১১,০২৩.২০ পয়েন্টে। অর্থাৎ, আপাতত নিফটি ১১,০৮০ পয়েন্টকে প্রথম রেজিস্ট্যান্স ধরে নিতে পারে। সেটা ে সপ্তাহের শেষ দিনেই স্পষ্ট হয়ে যাবে।

আরও পড়ুন: বাজারের গতি স্পষ্ট, কিন্তু বিধি বোঝা দায়!

শুক্রবারের বাজারে নিফটির সাপোর্ট যথাক্রমে ১০,৯৯০ ও ১০,৯৫৭ অন্য দিকে রেজিস্ট্যান্স ১১,০৬৭ ও ১১,১১০। পিভট পয়েন্ট ১১,০৩৪।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here