whatsapp business

ওয়েবডেস্ক: ফেসবুক পরিচালিত সংস্থা হোয়াটসঅ্যাপ যে বাণিজ্য দুনিয়ার সুবিধার জন্য প্ল্যাটফর্ম তৈরি করে দিয়েছে, সে কোনো নতুন খবর নয়। আগেই খবর ছিল, ইন্দোনেশিয়া, ইতালি, মেক্সিকো, যুক্তরাজ্য ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অ্যাপটি ডাউনলোডের জন্য পাওয়া যাচ্ছে। কথা ছিল, পরে অন্যান্য দেশেও পাওয়া যাবে অ্যাপটি।

সেই কথা এ বার রেখেছে হোয়াটসঅ্যাপ। ভারতেও ব্যবসার সুবিধার জন্য অ্যাপ স্টোরে চলে এসেছে হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস অ্যাপ। গুগল প্লে স্টোর থেকে সরাসরি ডাউনলোড করে নেওয়া যাচ্ছে অ্যাপটি। তবে এখনই অ্যানড্রয়েড ছাড়া অন্য কোনো মাধ্যমে অ্যাপটি ডাউনলোড করা যাবে না বলে জানিয়েছে সংস্থা।

মূলত ছোটো ব্যবসা ও ব্যবসায়ীদের স্বার্থের কথা ভেবেই হোয়াটসঅ্যাপের এই বিশেষ বিজনেস অ্যাপ নিয়ে আসা। জানা গিয়েছে, যাঁরা এখন হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করছেন, তাঁরা সেই নম্বর থেকেই একটি আলাদা হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন। তবে তার পরে আর স্ট্যান্ডার্ড হোয়াটসঅ্যাপ প্রোফাইল ব্যবহার করা যাবে না ওই নম্বর থেকে।

এ ছাড়া আরও এক দিক থেকে হোয়াটসঅ্যাপের এই বিজনেস অ্যাপ গ্রাহকদের ক্ষমতা ছেঁটে রেখেছে। জানা গিয়েছে, অ্যাপটি ডাউনলোড করার পরে বিজনেস প্রোফাইল তৈরি করে নিতে হবে। এর জন্য যেতে হবে অ্যাপ্লিকেশন সেটিং-এ। সেখানে গিয়ে ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের যা নাম, সেই নামেই প্রোফাইল তৈরি করতে হবে। তবে একবার প্রোফাইল তৈরি হয়ে গেলে তার নাম বা সেটিংয়ের কিছু আর পরে পরিবর্তন করা যাবে না। যদিও প্রোফাইল একবার তৈরি হয়ে গেলে গ্রাহকরা অন্য বিজনেস প্রোফাইল ব্লক করা, মেসেজ ব্লক করা, স্প্যাম রিপোর্ট করা- এ রকম বেশ কিছু সুবিধা হাতে পাবেন।

আর কী সুবিধা গ্রাহকদের দিচ্ছে এই হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস অ্যাপ?

জানা গিয়েছে, এই অ্যাপ বেশ কিছু অভিনব মেসেজিং টুল ব্যবহার করার সুবিধা দিচ্ছে গ্রাহককে। যেমন, কুইক রিপ্লাইজ, গ্রিটিং মেসেজেস ইত্যাদি। এ ছাড়া মেসেজ স্ট্যাটিসটিকস-ও জানা যাবে এই অ্যাপ মারফত।

এই সব সুবিধা যেমন ব্যবসায়ীদের জন্য রেখেছে হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস, তেমনই সাধারণ মানুষকেও সতর্ক করে দেওয়ার জন্য দুটো টিক-মার্ক চালু করেছে। যে প্রোফাইলের পাশে সবুজ টিক থাকবে, বুঝতে হবে সেটি নির্ভরযোগ্য ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান। অন্য দিকে গ্রে বা ধূসর টিক থাকলে তা ততটাও নির্ভরযোগ্য নয়, এমনটাই জানাবে হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস অ্যাপ।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন